kalerkantho

রবিবার । ৬ আষাঢ় ১৪২৮। ২০ জুন ২০২১। ৮ জিলকদ ১৪৪২

১২ লাখ পথশিশুর চার লাখ গৃহকর্মী

ভাতা দেওয়ার চিন্তা করা হচ্ছে : অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ ডিসেম্বর, ২০১৪ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের প্রায় ১২ লাখ পথশিশুর মধ্যে চার লক্ষাধিক শিশু গৃহকাজে নিয়োজিত আছে। এদের মধ্যে ৮৩ শতাংশ মেয়েশিশু। গৃহকাজে নিয়োজিত শিশুদের বয়স পাঁচ থেকে ১৮ বছর। তারা দৈনিক ১৫ ঘণ্টা কাজ করতে বাধ্য হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে পথশিশু ও গৃহকাজে নিয়োজিত শিশুদের সুরক্ষা ও অধিকার উন্নয়নের লক্ষ্যে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় এসব তথ্য তুলে ধরা হয়।

ব্রেড ফর দি ওয়ার্ল্ড-জার্মানির আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় 'ডেভেলপমেন্ট অব চিলড্রেন অ্যাট হাই রিক্স-ডিসিএইচআর' প্রকল্পের আওতায় এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে অ্যাসিস্ট্যান্স ফর স্লাম ডুয়েলার্স (এএসডি) নামের একটি বেসরকারি সংস্থা। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এম এ মান্নান বলেন, 'অসহায় শিশুদেরও ভাতা দেওয়া যায় কি না তা নিয়ে সরকার চিন্তা-ভাবনা করছে। এ জন্য প্রাথমিক পর্যায়ে পাইলট ভিত্তিতে শহরের শিশুদের এ ভাতা দেওয়া শুরু করা হবে। আগামী বাজেটে এটা করা যায় কি না তার চেষ্টা করা হবে।' প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, 'গৃহকাজে নিয়োজিত শিশুদের শারীরিক ক্ষতির চেয়ে মানসিক ক্ষতি হয় বেশি। এসব শিশু মানবেতর অবস্থায় আছে।' এসব সমস্যা ধীরে ধীরে হলেও সমাধান হবে বলে তিনি জানান। তিনি বলেন, 'দীর্ঘকাল বিদেশি শাসনে থাকার কারণে আমাদের মানসিক দুর্বলতা ও মানবিক দরিদ্রতা এখনো কাটেনি। ফলে আমাদের মাঝে অনেক সময় সংস্কৃতিক দুর্বলতা দেখা যায়, যা আমাদের লক্ষ্য অর্জনে বাধা দেয়।'

অনুষ্ঠানে সংস্থার নির্বাহী পরিচালক জামিল এইচ চৌধুরীর সভাপতিত্বে আরো আলোচনা করেন, বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরামের পরিচালক আবদুস শহীদ মাহমুদ, বিলসের সহকারী নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ সুলতান উদ্দীন আহমেদ প্রমুখ।