kalerkantho

শুক্রবার । ৭ অক্টোবর ২০২২ । ২২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ফুল

গুস্তাভিয়ার বাহারি সৌন্দর্য

রাজধানীর প্রায় সব বড় বাগানেই গুস্তাভিয়া দেখা যায়। রমনা পার্ক, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, বলধা গার্ডেন ও মিরপুর বোটানিক্যাল গার্ডেনে নানা প্রজাতির গুস্তাভিয়ার গাছ আছে

মোহাম্মদ আসাদ   

৮ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গুস্তাভিয়ার বাহারি সৌন্দর্য

গাছে ফুটে আছে বাহারি ফুল গুস্তাভিয়া। ছবি : কালের কণ্ঠ

বর্ষা-শরতেও চোখ জুড়ায় গুস্তাভিয়া ফুল। গাছ মাঝারি আকারের। সারা বছরই সবুজ পাতায় ছেয়ে থাকে। শাখার আগায় গুচ্ছ গুচ্ছ পাতা ছায়া তৈরি করে।

বিজ্ঞাপন

বড় আকারের গাছে পাতা তিন-চার ইঞ্চি চওড়া হয়। পাতা লম্বায় দুই-তিন ফুটের বেশি হয়। আবার ছোট আকারের পাতাযুক্ত গাছও আছে।

গ্রীষ্মের শুরুতে পাতার গোড়া থেকে ফুল ফুটতে শুরু করে। অনেক গাছে বর্ষা-শরতেও ফুল দেখা যায়। শুধু পাতার গোড়া নয়, কোনো কোনো প্রজাতির গাছের সব অংশ ফুলে ফুলে ভরে যায়। অর্থাৎ গোড়া থেকে গাছের আগা পর্যন্ত শুধু ফুল আর কলিতে ভরে থাকে। কলি প্রথমে দেখতে অনেকটা সবুজ গোলাকার মার্বেলের মতো। সেটি একটু পরিপক্ব হলে সাদা-গোলাপি রং ধারণ করে। পাপড়ির সংখ্যা ৬ থেকে ১০টি পর্যন্ত হয়ে থাকে। ফুলের মাঝখানে হলুদ আর গোলাপি রঙের অসংখ্য পুংকেশর বৃত্তাকারভাবে সাজানো থাকে। ফুলের গন্ধ আশপাশে ছড়িয়ে পড়ে। সে গন্ধ আর পরাগরেণুর আশায় ফুলের ওপর লুটোপুটি খায় মৌমাছি।

গুস্তাভিয়া ক্রান্তীয় আমেরিকার প্রজাতি। কবে, কখন এই ফুল এ দেশের হয়ে গেছে তা অজানা। তবে এ দেশের মাটিতে মানিয়ে নিয়েছে এই উদ্ভিদ।

রাজধানীর প্রায় সব বড় বাগানেই গুস্তাভিয়া দেখা যায়। রমনা পার্ক, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, বলধা গার্ডেন ও মিরপুর বোটানিক্যাল গার্ডেনে নানা প্রজাতির গুস্তাভিয়ার গাছ আছে। অনেকে যত্নে বাড়িতে লাগিয়েছেন টবের মধ্যে। রমনা পার্কের গাছগুলো আকারে বড়। উচ্চতায় ১০ থেকে ১২ ফুটের বেশি। এখানকার গাছের ফুল-পাতা উভয়ই আকারে বড়। ফুলের রঙে সাদার পরিমাণ বেশি। রমনার গাছগুলোতে শুধু শাখার অগ্রভাগে ফুল ফোটে। বলধা গার্ডেনে আছে নানা রকম গুস্তাভিয়া। দুই ফুট থেকে শুরু করে পাঁচ-ছয় ফুট উঁচু গাছ দেখা যায়। এখানে গুস্তাভিয়া ফুলের আকৃতি ছোট হলেও গোলাপির উজ্জ্বলতা বেশি। ফুলটির চারা হয় বীজ থেকে। দাবাকলমেও চারা করা যায়। একটু ভালো নার্সারিতে খোঁজ করলেই গুস্তাভিয়ার চারা পাওয়া যায়। অল্প জায়গায়ই গুস্তাভিয়া ভালো জন্মে। ফুলগাছটি রাখা চলে টবে বা ছাদের ওপর। গুস্তাভিয়া বাঁচতে পারে কম আলোতেও। উদ্ভিদবিজ্ঞানের ভাষায় ফুলটির নাম Gustavia augusta.



সাতদিনের সেরা