kalerkantho

শনিবার । ২০ আগস্ট ২০২২ । ৫ ভাদ্র ১৪২৯ । ২১ মহররম ১৪৪৪

নারায়ণগঞ্জ

মা ও শিশুপুত্রকে গলা কেটে হত্যা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৪ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



মা ও শিশুপুত্রকে গলা কেটে হত্যা

হত্যার শিকার রাজিয়া সুলতানা ও তাঁর ছেলে তালহা। —ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে এক মা ও তাঁর শিশুপুত্রকে গলা কেটে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার দিবাগত রাতে উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের উজান গোপীন্দী পশ্চিমপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অন্যদিকে গতকাল রবিবার জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ‘মায়ের হাতে’ খুন হয়েছে এক শিশুকন্যা। সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে পুকুরঘাট নিয়ে বিরোধের জেরে নাজিবুল ইসলাম (৪০) নামের এক ব্যক্তিকে তাঁর চাচাতো ভাই কুপিয়ে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বিজ্ঞাপন

রাঙামাটির লংগদুতে এক নারীর গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো বিস্তারিত—

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের উজান গোপীন্দী পশ্চিমপাড়া এলাকায় শনিবার দিবাগত রাতে মৃত আউয়াল কাজীর স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা (৩৮) ও তাঁর শিশুপুত্র তালহাকে (৮) গলা কেটে হত্যা করা হয়। পুলিশ গতকাল সকালে রাজিয়ার বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে।

নারায়ণগঞ্জের ‘গ’ সার্কেল সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আবির হোসেন ও সিআইডির বিশেষজ্ঞ টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পুলিশ হত্যার সঙ্গে জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সকালে পাশের বাড়ির আশ্রাফুল গাজীর স্ত্রী জান্নাতি বেগম (১৮) রাজিয়ার বাড়িতে যান। তিনি রাজিয়াকে ডাকাডাকি করে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে বারান্দার গেট ও ঘরের দরজা খোলা পেয়ে ঘরে গিয়ে মা ও ছেলের রক্তাক্ত মৃতদেহ দেখে চিৎকার দেন। তাঁর চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে থানা-পুলিশকে খবর দেয়।

থানা-পুলিশ ও সিআইডির টিম হত্যার বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ ও লাশ উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

রাজিয়ার ভাই খন্দকার মনিরুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে জানান, রাজিয়ার স্বামী কয়েক বছর আগে মারা যান। ছেলেকে নিয়ে স্বামীর বাড়িতেই থাকতেন রাজিয়া। তালহা মনোহরদী মডেল স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র বলে তিনি জানান। তিনি আরো জানান, সকালে এসে তাঁরা ঘরের স্টিলের আলমারি খোলা ও মালামাল তছনছ করা অবস্থায় দেখতে পান।

রাজিয়ার বোন খন্দকার ফারহানা সুলতানা বলেন, ‘আমার বোনের কোনো শত্রু আছে বলে আমাদের জানা নেই। ’

আড়াইহাজার থানার ওসি আজিজুল হক হাওলাদার গতকাল বিকেল ৫টার দিকে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মামলা দায়েরের জন্য এখন পর্যন্ত কেউ থানায় আসেনি। তবে রাতে মামলা হবে। ’ তিনি জানান, ঘটনার পর পুলিশ ও সিআইডির টিম হত্যার বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছে। মা ও ছেলেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করা হয়েছে বলে তিনি জানান। হত্যার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশের কয়েকটি দল কাজ করছে বলে তিনি জানান।

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি জানান, সরিষাবাড়ীর ভাটারা ইউনিয়নের কুটুরিয়া মধ্যপাড়া এলাকায় গতকাল সকালে ‘মায়ের হাতে’ খুন হয়েছে মোহনা নামের সাত বছরের এক শিশু। মোহনা স্থানীয় চন্দপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মোহনার মা বেদেনা বেগম (২৫) মানসিক ভারসাম্যহীন এবং বাবা মোহাম্মদ আলী সৌদিপ্রবাসী। গতকাল সকালে বেদেনা তাঁর মেয়েকে ঘরে ডেকে নিয়ে গলা টিপে ধরেন। পরে শিল দিয়ে মাথায় আঘাত করে হত্যা করেন। পরে নিজেই প্রতিবেশীদের ডেকে হত্যার কথা স্বীকার করেন। এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার এসআই মুর্শেদ আলী কালের কণ্ঠকে জানান, পুলিশ মা বেদনাকে গ্রেপ্তার করেছে। মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলায় পুকুরঘাটের দখল নিয়ে বিরোধের জেরে নাজিবুল ইসলামকে (৪০) তাঁর চাচাতো ভাই কুপিয়ে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল দুপুরে পূর্ববীরগাঁও ইউনিয়নের বীরগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নাজিবুল ওই গ্রামের তকলিব উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বাড়ির পুকুরঘাট নিয়ে নাজিবুলের সঙ্গে তাঁর চাচাতো ভাই সেবুল মিয়ার বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে সকালে দুই ভাইয়ের স্ত্রীদের মধ্যে ঝগড়া হয়। ঝগড়ায় দুই পরিবারের লোকজনই জড়ায়। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে দুপুরে সেবুল মিয়া ধারালো রামদা দিয়ে নাজিবুলকে এলোপাতাড়ি কোপান। স্বজনরা তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় কৈতক হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

শান্তিগঞ্জ থানার ওসি খালিদ বলেন, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

রাঙামাটি প্রতিনিধি জানান, রাঙামাটির লংগদু উপজেলার আটারকছড়া এলাকায় ফেন্সি চাকমার (৩৫) গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সকালে আটারকছড়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড দক্ষিণ উল্টোছড়ি গ্রামের বাড়ি থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। ফেন্সি চাকমা ইউনিসেফ পরিচালিত পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চল টেকসই সামাজিক সেবা উন্নয়ন প্রকল্পের আওতাধীন পাড়া কেন্দ্রের ওই এলাকার পাড়া কর্মী।

টেকসই সামাজিক সেবা প্রকল্পের লংগদু উপজেলার সহকারী প্রকল্প ব্যবস্থাপক পূর্ণ মঙ্গল চাকমা বলেন, ‘ফেন্সি চাকমা রাঙামাটি সদরে বন্দুকভাঙ্গা ইউনিয়নের দেবদাস চাকমা ও স্বর্ণলতা চাকমার মেয়ে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে আটারকছড়ার দক্ষিণ উল্টোছড়ি গ্রামে বসবাস করছিলেন এবং ওই এলাকায় পাড়া কর্মী হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। যতুটুকু জেনেছি তাঁর ডিভোর্স হয়ে গেছে এবং তিনি বাসায় একাই থাকতেন। ’

লংগদু থানার ওসি আরিফুল আমিন জানান, ফেন্সিকে সম্ভবত গত শুক্রবার রাতে হত্যা করা হয়েছে। তাঁর গলায় ও মুখে আঘাতের চিহ্ন আছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাঙামাটি পাঠানো হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের বাড়িতে শিশুপুত্রসহ হত্যার শিকার রাজিয়া সুলতানার স্বজনদের আহাজারি। গতকাল তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ



সাতদিনের সেরা