kalerkantho

বুধবার ।  ১৮ মে ২০২২ । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩  

সবিশেষ

যে কারণে বিখ্যাত কলারওয়ালি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যে কারণে বিখ্যাত কলারওয়ালি

গলায় ‘রেডিও কলার’ পরানো হয়েছিল বলেই তার নাম কলারওয়ালি, সেটি সত্য। তাই বলে এটিই তার বিখ্যাত হওয়ার একমাত্র কারণ নয়। বাঘিনী হিসেবে তার আকার, শক্তিমত্তা আর ২৯টি শাবকের জন্ম দেওয়া—এসব কারণেও বিখ্যাত হয়ে ওঠে ভারতের কলারওয়ালি।

দেশটির ‘সুপার মম’ খ্যাত অন্যতম বিখ্যাত বাঘ কলারওয়ালি গত শনিবার ১৬ বছর বয়সে মারা যায়।

বিজ্ঞাপন

বার্ধক্যজনিত কারণে বাঘটির মৃত্যু হয়। এর জন্ম হয় ২০০৫ সালে। বাঘটির আরেক নাম টি-১৫। ভারতের বন্য প্রাণী প্রেমীরা তাকে স্নেহের সঙ্গে ‘মাতরম’ বা ‘শ্রদ্ধেয় মা’ বলে আসছে। বড় মাতা নামে পরিচিত তার মা-ও ছিল বিখ্যাত বাঘিনী। কলারওয়ালির বাবার নাম টি১।

মধ্য প্রদেশ রাজ্যের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত পেঞ্চ টাইগার রিজার্ভে এই কলারওয়ালি জীবদ্দশার ১১ বছরে আট দফায় ২৯টি শাবকের জন্ম দেয়। তার ২৯টি শাবকের মধ্যে ২৫টিই বেঁচে যায়, ভারতে এবং সম্ভবত বিশ্বের মধ্যে এটি একটি রেকর্ড। ওই শাবকগুলোকে ‘উন্নত’ উত্তরাধিকার বলে অভিহিত করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিবিসির ওয়াইল্ডলাইফ ডকুমেন্টারি ‘স্পাই ইন দ্য জাঙ্গল’ এই কলারওয়ালিকে নিয়ে নির্মিত হয়। ওই ডকুমেন্টারির জন্যই বিখ্যাত হয়ে ওঠে সে। ওই তথ্যচিত্রের জন্য এই বাঘিনীর অবস্থান জানতে গলায় পরানো হয়েছিল ‘রেডিও কলার’। তার আবাসস্থলের ভাগ্য পরিবর্তনে বড় ভূমিকা রেখেছে সে।

প্রকৃতিবিদ প্রবীর পাতিল বলেন, কলারওয়ালির জন্মের আগে ওই পার্কে বাঘের দেখা পাওয়া বিরল ঘটনা ছিল। শিগগিরই সেটি বাঘের অভয়ারণ্যে পরিণত হতে যাচ্ছে। প্রবীর পাতিল বলেন, বিবিসির তথ্যচিত্রটির কারণে পার্কটিতে দর্শনার্থীদের ভিড় বেড়ে যায়।

বিশ্বের মোট বাঘের ৭০ শতাংশের বেশির বাস ভারতে। এ সংখ্যা হ্রাস পেয়েছিল। সূত্র : বিবিসি

 

 



সাতদিনের সেরা