kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ কার্তিক ১৪২৭। ২২ অক্টোবর ২০২০। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দুর্ঘটনা

অ্যাম্বুল্যান্সে লাশ নিয়ে ফেরার পথে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ৬

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল   

১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অ্যাম্বুল্যান্সে লাশ নিয়ে ফেরার পথে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ৬

ঢাকা থেকে অ্যাম্বুল্যান্সে করে নবজাতকের লাশ নিয়ে ঝালকাঠিতে ফিরছিলেন মা-বাবাসহ স্বজনরা। তাঁদেরও লাশ হতে হলো সড়ক দুর্ঘটনায়। মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটেছে গতকাল বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বরিশালের উজিরপুর উপজেলার আটিপাড়া এলাকায় ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে। কাভার্ড ভ্যান ও বাসের সঙ্গে অ্যাম্বুল্যান্সের ত্রিমুখী সংঘর্ষে অ্যাম্বুল্যান্সের চালকসহ ছয়জন নিহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন মৃত নবজাতকের বাবা আরিফুর রহমান, মা শিউলি বেগম, দাদি কোহিনুর বেগম, চাচা কাইউম হোসেন এবং অ্যাম্বুল্যান্সের চালক আলমগীর কবির। যাত্রীরা সবাই ঝালকাঠির বাউকাঠি গ্রামের বাসিন্দা। চালক আলমগীর কুমিল্লা জেলার বাসিন্দা। দুর্ঘটনায় নিহত আরেকজনের পরিচয় জানা যায়নি।

বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় পৌঁছানোর পর কাভার্ড ভ্যান ও বাসের সঙ্গে অ্যাম্বুল্যান্সটির ত্রিমুখী সংঘর্ষ ঘটে। এতে অ্যাম্বুল্যান্সের চালকসহ ছয়জনই নিহত হন। তাঁদের মধ্যে একজন নারী। বিকেল ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

উজিরপুর থানার ওসি জিয়াউল আহসান জানান, নিহতদের মধ্যে অ্যাম্বুল্যান্সের চালক আলমগীর কবিরের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। তিনি কুমিল্লার বাসিন্দা। অন্যদের পরিচয় উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, প্রথমে ঢাকামুখী একটি কাভার্ড ভ্যানের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় অ্যাম্বুল্যান্সটির। এরপর কাভার্ড ভ্যানের পেছনে থাকা জিএম পরিবহনের একটি বাস ধাক্কা দেয়। এতে দুমড়েমুচড়ে যায় অ্যাম্বুল্যান্সটি। এতে চালক ও পাঁচ যাত্রী ভেতরে আটকা পড়েন। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এক ঘণ্টার চেষ্টায় অ্যাম্বুল্যান্স কেটে তাঁদের উদ্ধার করেন। এ সময় পাঁচজনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায় এবং নারী যাত্রী মুমূর্ষু অবস্থায় ছিলেন। তাঁকে উদ্ধার করে উজিরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান।

এদিকে নীলফামারী সদরের কচুকাটা বাজারের কাছে গতকাল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেল আরোহী জুয়েল ইসলাম (২৮) নিহত হয়েছেন। তিনি জলঢাকা পৌরসভার বগুলাগাড়ি চৌধুরীপাড়া গ্রামের মৃত আশরাফ আলীর ছেলে।

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলায় গতকাল মাটিবাহী একটি ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মোটরসাইকেল আরোহী মো. বকুল ইসলাম (৩৩) নিহত হয়েছেন। ময়মনসিংহের ভালুকায় কাভার্ড ভ্যানের চাপায় আবদুল খালেক (৮০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গতকাল বিকেলে উপজেলার হবিরবাড়ি ইউনিয়নের সিডস্টোর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আবুল খালেকের বাড়ি হবিরবাড়ির জামতলা সাইনবোর্ড এলাকায়।

সীতাকুণ্ডে গতকাল মহাসড়ক পার হওয়ার সময় ট্রাকের ধাক্কায় নিহত হয়েছেন ট্রাকের হেলপার সাইফুল ইসলাম (৩০)।

মেহেরপুর সদর ও গাংনীতে পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে স্কুলছাত্রসহ দুজন। নিহতরা হলো গাংনী উপজেলার বকুল হোসেন এবং সদর উপজেলার স্কুলছাত্র তানভীর হোসেন।

[প্রতিবেদনে তথ্য দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধিরা]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা