kalerkantho

বুধবার । ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩ জুন ২০২০। ১০ শাওয়াল ১৪৪১

সবিশেষ

করোনায় নারীর চেয়ে পুরুষের মৃত্যু কেন বেশি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনায় নারীর চেয়ে পুরুষের মৃত্যু কেন বেশি

নতুন এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, করোনাভাইরাসে বিশ্বে নারীর চেয়ে পুরুষের আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার প্রায় দ্বিগুণ। কিন্তু কেন? এর কারণ হিসেবে কোনো কোনো গবেষক নারীর চেয়ে পুরুষদের বেশি পরিমাণে ধূমপান ও মদ্যপান এবং রুগ্ণ স্বাস্থ্যকে দায়ী করেছেন। আবার কারো কারো মতে, পুরুষদের মধ্যে হৃদেরাগ ও ডায়াবেটিসের হার বেশি হওয়ায় তারা নারীদের চেয়ে বেশি করোনাঝুঁকিতে রয়েছে। 

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইতালির ন্যাশনাল হেলথ ইনস্টিটিউটের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের ৭০ শতাংশই পুরুষ, ৩০ শতাংশ নারী আর মৃতদের মধ্যে ৬০ শতাংশ পুরুষ, ৪০ শতাংশ নারী। তবে দক্ষিণ কোরিয়ায় পুরুষের চেয়ে নারীদের আক্রান্তের হার বেশি; মৃত্যুর হারে পুরুষ এগিয়ে, মৃতের তালিকায় ৫৪ শতাংশই পুরুষ। যুক্তরাষ্ট্র এসংক্রান্ত কোনো তথ্য এখনো প্রকাশ করেনি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গবেষকরাও বলেছেন, করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে নারীদের চেয়ে পুরুষদের মৃত্যুঝুঁকি বেশি।

‘বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে, করোনায় নারীদের তুলনায় পুরুষদের মৃত্যুর আশঙ্কা বেশি’—এই শিরোনামে যুক্তরাজ্যের দ্য টেলিগ্রাফ সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে বলেছে, যারা নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে তাদের মধ্যে ৪.৭ শতাংশ পুরুষের জন্য ভাইরাসটি ভয়ংকর। সেই তুলনায় এটি ভয়ংকর ২.৮ শতাংশ নারীর জন্য।

‘কেন করোনাভাইরাস নারীদের তুলনায় পুরুষদের জন্য বেশি ভয়ংকর’—এই শিরোনামে যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইতালির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে ১২ মার্চ পর্যন্ত পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি নারীদের তুলনায় কভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি পুরুষদের মধ্যে ৭৫ শতাংশের মারা যাওয়ার ঝুঁকি বেশি। চীনে আক্রান্তদের মধ্যে ৬০ শতাংশ পুরুষ; আক্রান্তদের মধ্যে নারীর তুলনায় পুরুষের মৃত্যুর হার ৬৫ শতাংশ বেশি। 

তবে কেন করোনায় নারীদের চেয়ে পুরুষের মৃত্যুর হার বেশি, সেটির বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা এখনো বের করা যায়নি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। তাঁদের ধারণা, নারীর তুলনায় পুরুষের বেশি ধূমপান করা ও বেশি অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপনের কারণে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাচ্ছে। ধূমপান ফুসফুসকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। এ ছাড়া পুরুষের তুলনায় নারীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি হতে পারে বলেও জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এক গবেষণায় দেখা গেছে, চীনের প্রায় ৫০ শতাংশ পুরুষ ধূমপান করে আর নারীদের মধ্যে মাত্র ৩ শতাংশ ধূমপায়ী। ইতালিতেও প্রায় ৭০ লাখ পুরুষ এবং প্রায় ৪৫ লাখ নারী ধূমপান করে।

এখন পর্যন্ত বিশ্বে করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ইতালিতে। দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ বলেছে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের ৯৯ শতাংশেরই অন্যান্য রোগ ছিল; যার মধ্যে ৭৫ শতাংশই উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত ছিল।

ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের অধ্যাপক ও গ্লোবাল হেলথ ফিফটি ফিফটির সহপরিচালক সারাহ হকিস বলেন, প্রাপ্ত তথ্যে দেখা গেছে নারীদের চেয়ে পুরুষের মৃত্যুর হার বেশি। বেশির ভাগ সময়ই দেখা যায়, পুরুষদের এমন কিছু রোগ থাকে, যাতে এই ভাইরাসের সংক্রমণ বেশি ঝুঁকিতে ফেলে। এতে মৃত্যুও বাড়ে।

সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. লুইস অস্ত্রোসকি জিসনার বলেন, সার্স ও ইবোলার মতো করোনাভাইরাসেও পুরুষের মৃত্যু বেশি। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার কারণে এটি হতে পারে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা