kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

তালা ভেঙে কার্যালয়ে ঢুকলেন ডাকসু ভিপি নুর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তালা ভেঙে কার্যালয়ে ঢুকলেন ডাকসু ভিপি নুর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সহসভাপতি নুরুল হক নুরের অফিস কক্ষে তালা দিয়েছে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্মের সংগঠন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশ। একই সঙ্গে ভিপি নুরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে তাঁর কুশপুত্তলিকা পুড়িয়েছে সংগঠনটি। পরে অবশ্য তালা ভেঙে নিজ কার্যালয়ে ঢুকেছেন ভিপি নুর।

গতকাল বুধবার সকাল ১১টার দিকে ডাকসুর অফিস কক্ষে তালা লাগায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশ। এই অংশের নেতৃত্বে রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আ ক ম জামাল উদ্দীন। প্রায় ছয় ঘণ্টা পর বিকেল ৫টার দিকে তালা ভেঙে কক্ষে প্রবেশ করেন নুর।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ভিপি নুরকে দুর্নীতিবাজ আখ্যা দিয়ে তাঁর পদত্যাগ ও গ্রেপ্তারের দাবিতে সকাল ১০টায় মানববন্ধন করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। নূরের পদত্যাগ দাবিতে তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ৪৮ ঘণ্টার সময় বেঁধে দেয়। এ সময় মঞ্চের পক্ষ থেকে তাঁর গ্রেপ্তারও দাবি করা হয়।

মঞ্চের আহ্বায়ক অধ্যাপক আ ক ম জামাল উদ্দিন বলেন, ডাকসুর ইতিহাসে এ ধরনের ঘটনা নজিরবিহীন। তাই আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে নুরকে ডাকসু থেকে বহিষ্কার করতে হবে। অন্যথায় ভিসিকে স্মারকলিপি দেব।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে ভিপি নুরের একটি অডিও ক্লিপ প্রকাশ হয়। অডিওতে ডাকসু ভিপিকে এক ব্যক্তির সঙ্গে ব্যাবসায়িক কথাবার্তা বলতে শোনা যায়। এ ছাড়া প্রবাসে থাকা এক বাংলাদেশির সঙ্গে টেলিফোনে অর্থ দেওয়ার প্রস্তাব নিয়ে কথা বলতে শোনা যায়। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে নুরকে দুর্নীতিবাজ আখ্যা দিয়ে তাঁর কার্যালয়ে তালা লাগায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

এদিকে প্রকাশ হওয়া অডিও ক্লিপের ব্যাপারে ভিপি নুর বলেন, এটি তাঁর পারিবারিক ব্যাবসায়িক আলাপ। তিনি বলেছেন, ফোনালাপটি তাঁর ভাইয়ের সঙ্গে ছিল। এটাকে বিকৃতভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। পুরো কথা না শুনিয়ে কিছু অংশ কেটে প্রচার করা হয়েছে। এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ও উকিল নোটিশ পাঠাবেন বলে জানান তিনি। এ ছাড়া তাঁর কক্ষের তালা খুলতে প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানীর কাছে অভিযোগ করলেও তিনি ব্যবস্থা না নেওয়ায় নিজেরাই তালা ভেঙে কার্যালয়ে প্রবেশ করেন বলে জানান তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা