kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৮ জুলাই ২০১৯। ৩ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৪ জিলকদ ১৪৪০

বরগুনার মতো ঘটনা চাঁপাইনবাবগঞ্জে

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর টনক নড়ল পুলিশের

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ   

৬ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর টনক নড়ল পুলিশের

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে দিনেদুপুরে দা দিয়ে প্রতিপক্ষকে কোপাতে উদ্যত হয় আজিরুল ইসলাম (ইনসেটে)। ছবি : কালের কণ্ঠ

বরগুনায় দিনদুপুরে স্ত্রীর সামনে এক তরুণকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছে গোটা প্রশাসনকে। শোকের পাশাপাশি খুনিদের বিরুদ্ধে নানা মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সারা দেশের মানুষ। একই ধরনের ঘটনা ঘটতে পারত চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জেও। শেষ পর্যন্ত স্থানীয় সাধারণ মানুষের বাধার মুখে আরেকটি ভয়ংকর ঘটনা এড়ানো সম্ভব হয়েছে। তবে অভিযোগ সত্ত্বেও এ বিষয়ে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের টনক নড়েছে দেরিতে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর জেলা পুলিশের নির্দেশে গ্রেপ্তার করা হয়েছে হামলাকারীকে।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, শিবগঞ্জ পৌরসভার সেলিমাবাদ গ্রামের ফাইজুদ্দিনের ছেলে আজিরুল ইসলাম জমির সীমানাবিরোধকে কেন্দ্র করে গত ১ জুলাই একই এলাকার মোজাহার শেখকে আক্রমণ করতে হাতে হাঁসুয়া নিয়ে কয়েক দফা এগোতে থাকে। এ সময় এলাকার লোকজন তাকে নিবৃত্ত করে।

এদিকে বিষয়টি থানার পুলিশকে লিখিতভাবে জানানোর পরও বিগত চার দিন এ নিয়ে পুলিশের কোনো তৎপরতা ছিল না। এরই মধ্যে ওই ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। বিষয়টি নজরে আসে জেলা পুলিশ প্রশাসনের। শেষে জেলা পুলিশের নির্দেশনা পেয়ে তৎপর হয় থানার পুলিশ। গতকাল শুক্রবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে আক্রমণকারী আজিরুলকে।

মোজাহারের ভাই শাজাহান আলী গতকাল বলেন, ‘জমিজমার সীমানা নিয়ে বিরোধ সালিসের মাধ্যমে নিষ্পত্তির জন্য পৌরসভায় আবেদন করলে প্রতিপক্ষ আজিরুল ক্ষিপ্ত হয়ে ১ জুলাই বিকেলে প্রকাশ্যে আমার ভাইকে হত্যার চেষ্টা চালায়। ওই দিনই শিবগঞ্জ থানার পুলিশের উপপরিদর্শক সিরাজুল ইসলামকে বিষয়টি জানাই এবং তাঁর হাতে লিখিত অভিযোগ তুলে দিই। বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য তিনি দুই পক্ষকে পৌরসভায় ডাকলেও প্রতিপক্ষের কেউ হাজির হয়নি। এদিকে পুনরায় হামলার শঙ্কায় আজিরুলসহ জড়িত কয়েকজনের বিরুদ্ধে ১ জুলাই লিখিত অভিযোগ ও ৩ জুলাই জিডি করলেও শিবগঞ্জ থানার পুলিশের কোনো তৎপরতা দেখিনি। যা হোক, শেষ পর্যন্ত হামলাকারী ধরা পড়েছে।’ তিনি আরো বলেন, পুনরায় হামলার ভয়ে আমরা স্বচ্ছন্দে চলাফেরা করতে পারছি না। আজিরুলের সহযোগী কয়েকজন মাদকসেবী আমাদের ওপর হামলা চালানোর তৎপরতা চালাচ্ছে।’

শিবগঞ্জ থানা ও জেলা পুলিশ প্রশাসন আজিরুলকে আটকের কথা স্বীকার করেছে। শিবগঞ্জ থানার পুলিশের উপপরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম জানান, হামলার চেষ্টাকারী আজিরুলকে গতকাল দুপুরে তার বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। এ সময় কয়েকটি দেশীয় অস্ত্রও উদ্ধার করা হয়েছে।

মন্তব্য