kalerkantho

শুক্রবার । ৭ অক্টোবর ২০২২ । ২২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

করোনাভাইরাস

দেশে শিশুদের পরীক্ষামূলক টিকা ১১ আগস্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশে শিশুদের পরীক্ষামূলক টিকা ১১ আগস্ট

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে পাঁচ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের পরীক্ষামূলকভাবে টিকা দেওয়া হবে ১১ আগস্ট। এরপর ২৬ আগস্ট থেকে পুরোদমে শিশুদের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে।

রাজধানীর মহাখালীতে গতকাল রবিবার জাতীয় প্রতিষেধক ও সামাজিক চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানে (নিপসম) ‘বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ’ পালন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আজও পাঁচ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের জন্য ফাইজারের বিশেষভাবে তৈরি ১৫ লাখ টিকা এসেছে।

বিজ্ঞাপন

সব মিলিয়ে শিশুদের টিকাদানে আমরা পুরোপুরি প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি। ’

মন্ত্রী আরো বলেন, এখনো করোনায় দু-চারজন মারা যাচ্ছে। মৃতদের বেশির ভাগই করোনার টিকা নেয়নি। এখন টিকা না নিলে হাতে মজুদ টিকার মেয়াদ দ্রুতই শেষ হয়ে যাবে। মেয়াদ থাকতে দ্বিতীয় ডোজ টিকা না নিলে তারা পরে আর বুস্টার ডোজ নিতে পারবে না।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘আমরা টিকা প্রয়োগ কার্যক্রমে সফল হয়েছি। তাই সম্প্রতি জাতিসংঘের এক অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়েছি। সেখানে বিশ্ববাসীকে জানাতে হবে কিভাবে আমরা টিকা কার্যক্রম পরিচালনা করে সফল হয়েছি। ’ তিনি বলেন, ‘করোনার নতুন ঢেউ এলে করণীয় সম্পর্কেও বিশ্ববাসীকে জানাতে হবে আমাদের। আমরা কিভাবে কভিড মোকাবেলা করেছি, সেটি বিশ্ববাসীকে বলতে হবে। ’

মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘শিশুর মাতৃদুগ্ধ পানে বিশ্বে আমরা ভালো অবস্থানে রয়েছি। ৬০ থেকে ৭০ শতাংশ শিশু মাতৃদুগ্ধের আওতায় আছে। তবে দেশে এখনো বাড়িতে ডেলিভারি হয় ৪০ শতাংশ, সেটি আমাদের কমিয়ে আনতে হবে। ’

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব আনোয়ার হোসেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবির, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) সভাপতি অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান প্রমুখ।

 



সাতদিনের সেরা