kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ২৬ মে ২০২২ । ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৪ শাওয়াল ১৪৪

আ. লীগের প্রার্থী রিফাত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আ. লীগের প্রার্থী রিফাত

আরফানুল হক রিফাত

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে নৌকা পেলেন কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় তাঁকে দলের প্রার্থী মনোনীত করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

মনোনয়ন বোর্ডের সভায় তিনটি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ছয়টি পৌরসভার মেয়র এবং ১৩৮টি ইউনিয়নে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।

বিজ্ঞাপন

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়ন পাওয়া আরফানুল হক রিফাত ছাড়া আরো ১৩ জন দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছিলেন। এঁরা হলেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ও কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি আঞ্জুম সুলতানা সীমা, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম সিকদার, মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক নুর উর রহমান মাহমুদ তানিম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কবিরুল ইসলাম শিকদার, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান মিঠু, আওয়ামী লীগ নেতা শ্যামল চন্দ্র ভট্টাচার্য, মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ওমর ফারুক, আওয়ামী লীগ নেতা ও প্রয়াত অধ্যক্ষ আফজল খানের ছেলে মাসুদ পারভেজ খান ইমরান, আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন, কাজী ফারুক আহমেদ, মাহবুবুর রহমান, মো. শফিউর রহমান ও মো. শাহজাহান।

আওয়ামী লীগের সূত্রগুলো জানায়, মনোনয়ন বোর্ডের সভায় কুমিল্লা স্থানীয় রাজনীতিতে দলীয় কোন্দল, প্রার্থীদের যোগ্যতা ও গ্রহণযোগ্যতাসহ নানা বিষয় বিশ্লেষণ করে আরফানুল হক রিফাতকে দলের প্রার্থী করা হয়।

আগামী ১৫ জুন কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৭ মে, যাচাই-বাছাই ১৯ মে, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৬ মে।

সিটি করপোরেশনকে দলীয় কার্যালয় বানাব না : রিফাত

কালের কণ্ঠের কুমিল্লা প্রতিনিধি জানান, কুসিক নির্বাচনে আরফানুল হক রিফাত নৌকার মাঝি হওয়ায় নগরজুড়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আনন্দ-উল্লাস করছেন। প্রার্থী ঘোষিত হওয়ার পর রিফাত কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমি আবেগাপ্লুত, আমি মনে হয় কথা বলার ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। নেত্রী আমাকে নৌকা দিয়েছেন, আমি বিজয়ী হয়ে সেই নৌকা নেত্রীকে উপহার দিতে চাই। ’

রিফাত আরো বলেন, ‘অতীতে সিটি করপোরেশনকে দলীয় কার্যালয় বানানো হয়েছে। তবে আমি নির্বাচিত হলে সিটি করপোরেশনকে দলীয় কার্যালয় বানাব না। সিটি করপোরেশন থাকবে নগরবাসীর জন্য উন্মুক্ত। নগরবাসীর জন্য সেবার দরজা সব সময় খোলা থাকবে। আশা করছি, আগামী ১৫ জুনের নির্বাচনে কুমিল্লার মানুষ উন্নয়নের স্বার্থে আমাকেই বেছে নেবে। ’

রিফাত বলেন, ‘আমি কৃতজ্ঞ আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপির প্রতি, তিনি আমার সব দায়িত্ব নিয়েছেন। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে কুমিল্লা নগরীতে বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগকে আরো শক্তিশালী করব। ’



সাতদিনের সেরা