kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ২৬ মে ২০২২ । ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৪ শাওয়াল ১৪৪

শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের শপথ

উপাচার্য পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আন্দোলন

সহায়তা করায় গ্রেপ্তার ৫ সাবেক শিক্ষার্থী

সিলেট অফিস ও শাবিপ্রবি প্রতিনিধি   

২৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



উপাচার্য পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আন্দোলন

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে গতকালও অনশন চালিয়ে যায় শিক্ষার্থীরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উপাচার্য (ভিসি) ফরিদ উদ্দিন আহমেদ পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার শপথ নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় তাঁরা এই শপথ নেন। এর আগে আন্দোলনরত অন্য শিক্ষার্থীরা আমরণ অনশন ভাঙতে অনশনকারীদের অনুরোধ করলেও তাঁরা সম্মত হননি।

উপাচার্যের বাসভবনের প্রধান ফটকের সামনে অনশনস্থলে আন্দোলনকারীদের একজন মোহাইমিনুল বাশার রাজ শপথ নেওয়ার আগে মাইকে অনশনকারীদের অনুরোধ করে বলেন, ‘আপনাদের এই দুর্বিষহ কষ্ট আমরা আর নিতে পারছি না।

বিজ্ঞাপন

এখানে এসে আমরা ট্রমায় পড়ে যাচ্ছি। এই ভিসির জন্য মরে যাওয়ার চেয়ে আমরা যদি সবাই মিলে আবার নতুন করে বেঁচে উঠি, তাহলে এই ভিসির বিরুদ্ধে আন্দোলন আরো জোরালোভাবে করে যেতে পারব। ’ তিনি আরো বলেন, ‘আমরা বুঝতে পারছি, কিন্তু এখানে যে বসে আছে সে বুঝতে পারছে না, যে কারণে আমরা আপনাদের আর ঝুঁকির মুখে পড়তে দিতে পারি না। ’

তবে বারবার অনুরোধ করলেও অনশনকারীরা অনশন ভাঙতে অস্বীকৃতি জানান। তাঁদের একজন বলেন, ‘আমি যখন ১৪৮ ঘণ্টা আগে এখানে আমরণ অনশনে বসেছিলাম, তখন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম এই ভিসির পতনের আগ পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাব। আমি মনে হয় আরো কিছুদিন অনশন চালিয়ে যেতে পারব। ’

শাবিপ্রবির প্রাক্তন পাঁচ শিক্ষার্থীকে পুলিশে হস্তান্তর : আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করা ও আইনসংগত কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন পাঁচ শিক্ষার্থীকে গতকাল রাজধানী ঢাকা থেকে আটক করে অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

পরে গতকাল তাঁদের সিলেটের জালালাবাদ থানায় হস্তান্তর করা হয়। তাঁরা হলেন টাঙ্গাইলের হাবিবুর রহমান খান (২৬), বগুড়ার শিবগঞ্জের রেজা নুর মুইন (৩১), খুলনার সোনাডাঙ্গার এ এফ এম নাজমুল সাকিব (৩২), ঢাকার মিরপুরের এ কে এম মারুফ হোসেন (২৭) ও কুমিল্লার মুরাদনগরের ফয়সাল আহমেদ (২৭)।  গতকাল সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন সিলেট মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) মো. আজবাহার আলী শেখ।

আটক হাবিবুর রহমান খানের বড় ভাই রিপন খান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমার ভাই রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত না। লেখাপড়া শেষ করে একটি ফার্মে চাকরি করে। দেশের বাইরে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। হাবিব উত্তরাতে থাকে।

‘বড় ভাই হিসেবে টাকা দিয়ে বিপদে’ : আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের খাবারের জন্য এক হাজার টাকা বিকাশে পাঠানোর অভিযোগে দুজনকে ঢাকা থেকে আটক করে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাঁরা হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্কিটেকচার বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থী রেজা নুর মুইন ও সিএসই বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী হাবিবুর রহমান স্বপন।

স্বজন ও সহপাঠীরা বলছেন, বড় ভাই হিসেবে আন্দোলনের সময় খাবারের জন্য তাঁরা বিকাশে টাকা দিয়েছেন। তবে পুলিশ তাঁদের উসকানিদাতা হিসেবে চিহ্নিত করেছে। টাকা দিয়ে তাঁরা বিপদে পড়েছেন।

দেখা করতে পারেননি শিক্ষক সমিতির নেতারা : অবরুদ্ধ উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে দেখতে এসে আন্দোলনকারীদের বাধার মুখে ফিরে গেছেন শাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির নেতারা। গতকাল দুপুর ১টায় খাবার নিয়ে উপাচার্যকে দেখতে আসেন তাঁরা। এ সময় উপাচার্য ভবনের প্রধান ফটকের কাছে তাঁদের বাধা দেন আন্দোলনকারীরা।

এ সময় শিক্ষক সমিতির সভাপতি তুলসী কুমার দাস বলেন, ‘উপাচার্য কয়েক দিন ধরে অসুস্থ। আমরা উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলাম। ’

টং দোকান বন্ধের অভিযোগ : বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের টং দোকানগুলো এবার বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে ছয়টি টং দোকান ও ফুড কোর্ট বন্ধ দেখা যায়। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, আন্দোলনকারীদের ওপর চাপ বাড়াতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

যোগাযোগ করা হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলমগীর কবীর এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান। তিনি কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রয়েছে। কেন টং দোকানগুলো বন্ধ—এটা আসলে আমার জানা নেই। ’

অনশনরতদের মেডিক্যাল সহায়তা সংকুচিত : আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের জন্য দেওয়া মেডিক্যাল সহায়তা বন্ধের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটায় জরুরি প্রেস ব্রিফিং করে এসব তথ্য জানান আন্দোলনকারীরা।

শিক্ষার্থীরা জানান, সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে যে মেডিক্যাল টিম ক্যাম্পাসে অনশনরত শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যসেবায় দেওয়া হয়েছিল, তা ফিরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

বিদ্যুত্সংযোগ চালু : উপাচার্যের বাসভবনের বিদ্যুত্সংযোগ ফিরিয়ে দিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার প্রায় ২৯ ঘণ্টা পর গত সোমবার দিবাগত রাত ১২টা ১০ মিনিটে পুনরায় বিদ্যুত্সংযোগ দেন তাঁরা।



সাতদিনের সেরা