kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

করোনা পরীক্ষার বুথে ভিড় এক দিনে শনাক্ত ৯৫০০

লায়েকুজ্জামান, মোবারক আজাদ   

২০ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনা পরীক্ষার বুথে ভিড় এক দিনে শনাক্ত ৯৫০০

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা আবারও লাফিয়ে বাড়ছে। গতকাল বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৯ হাজার ৫০০ জন আক্রান্ত হয়েছে। এ সময়ে মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। এই পরিস্থিতিতে নমুনা পরীক্ষার জন্য কেন্দ্রগুলোতে মানুষের ভিড় বাড়ছে।

বিজ্ঞাপন

গতকাল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাজধানীর কভিড-১৯ নমুনা সংগ্রহের কয়েকটি বুথ ঘুরে দেখা যায়, জ্বর-সর্দি-কাশিতে ভুগতে থাকা মৃদু উপসর্গ নিয়ে করোনা পরীক্ষা করাতে এসেছে বহু মানুষ। অনেকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তারা টিকা নেয়নি। প্রথমবারের মতো নমুনা দিতে এসেছে। কোনো কোনো বুথে ছিল বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি। নমুনা দেওয়ার প্রক্রিয়া না জেনেই বুথে এসেছে কেউ কেউ। তাদের বাসায় ফিরে যেতে দেখা গেছে। এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে প্রতিদিনই নমুনা সংগ্রহ বাড়ছে বলে জানান সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

দুপুরে রাজধানীর মিরপুর ১৩ নম্বরের বাংলাদেশ ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক মেডিক্যাল কলেজ কভিড পরীক্ষাকেন্দ্রে কথা হয় সলিমউল্লাহ জমাদারের (২৪) সঙ্গে। তিনি থাকেন মিরপুরের কাফরুলে। প্রথমবারের মতো করোনা পরীক্ষা করাতে এসেছেন। আগে কেন পরীক্ষা করাননি এবং টিকা নেননি, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি তো অসুস্থ হইনি, তাই এসব করা হয়নি। এখন কিছুটা অসুস্থ, শরীরে জ্বর-জ্বর ভাব, সর্দি-কাশি আছে। এ জন্য বউয়ের যন্ত্রণায় পরীক্ষা করাতে এসেছি। ’ এই কেন্দ্রে কভিড পরীক্ষা করছে বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকের একটি দল। কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা নাহিম পারভেজ জানান, এই কেন্দ্রে প্রতিদিন ১৭০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা সংগ্রহ শুরু হয় সকাল ১১টা থেকে। যারা অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করেছে, তাদের মধ্য থেকে নমুনা নেওয়া হয় ১০০ জনের এবং অফলাইন মানে যারা রেজিস্ট্রেশন করেনি বা করতে পারে না, তাদের মধ্য থেকে ৭০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

সকাল সাড়ে ১১টায় দেখা যায়, নমুনা দেওয়ার জন্য দুটি লাইনে দাঁড়িয়ে আছে লোকজন। অনলাইন ও অফলাইন—দুটি লাইন করা হয়েছে। অফলাইনে তখন ২৮ জন দাঁড়িয়ে। জিজ্ঞেস করে জানা যায়, অফলাইনের ২৮ জনের মধ্যে ২০ জনই প্রথম পরীক্ষা করাতে এসেছে। তাদের বেশির ভাগের জবাব, ‘কিভাবে রেজিস্ট্রেশন করা যায় আমরা তা জানি না। সে কারণ পরীক্ষা করা হয়নি। ’

অন্যদিকে রেজিস্ট্রেশন করে নমুনা পরীক্ষা করাতে আসা সাবিরুল আহসান বলেন, ‘আমিও প্রথম পরীক্ষা করাতে এলাম। অলসতার কারণে আগে পরীক্ষা করাইনি। এ ছাড়া কখনো শরীর খারাপ করেনি। এখন জ্বর, তাই এসেছি। ’

 



সাতদিনের সেরা