kalerkantho

শুক্রবার । ৭ কার্তিক ১৪২৭। ২৩ অক্টোবর ২০২০। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ওয়াসার এমডির মেয়াদ বাড়ানোর প্রক্রিয়া চ্যালেঞ্জ করে রিট

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ওয়াসার এমডির মেয়াদ বাড়ানোর প্রক্রিয়া চ্যালেঞ্জ করে রিট

ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে প্রকৌশলী তাকসিম এ খানকে আরো তিন বছরের জন্য নিয়োগ সুপারিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। রিট আবেদনে এই নিয়োগের সিদ্ধান্তের ওপর স্থগিতাদেশ চাওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ওয়াসা বোর্ডের সচিব কোন ক্ষমতাবলে বোর্ড সভার জন্য গত ১৭ সেপ্টেম্বর নোটিশ দিয়েছেন সে বিষয়ে দুই সপ্তাহের মধ্যে একটি প্রতিবেদন আদালতে দাখিলের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বাসিন্দা প্রকৌশলী খন্দকার মঞ্জুর মোরশেদের পক্ষে অ্যাডভোকেট তানভীর আহমেদ গতকাল বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে এই রিট আবেদন করেন। রিট আবেদনে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব, অতিরিক্ত সচিব (পানি সরবরাহ শাখা) এবং ঢাকা ওয়াসার (পক্ষে এমডি) সচিবকে বিবাদী করা হয়েছে। পরে অ্যাডভোকেট তানভীর আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওয়াসার যেকোনো সভা চেয়ারম্যান বা ভাইস চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে হতে হয়। কিন্তু গত ১৯ সেপ্টেম্বরের সভায় তা হয়নি। কারণ গত ১১ সেপ্টেম্বর ওয়াসার চেয়ারম্যান মারা গেছেন। আর ওয়াসায় কোনো ভাইস চেয়ারম্যান নেই। তাহলে সভাটা ডাকল কে?’ তিনি বলেন, ‘চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত এই সভা ডাকার বৈধতা নেই।’

তিনি বলেন, ‘ওয়াসার এমডি নিয়োগ দিতে হলে বিজ্ঞপ্তি দিতে হবে। এরপর একটি বাছাই কমিটি আবেদনগুলো বাছাই করবে। এরপর বোর্ড সুপারিশ করবে। কিন্তু এ ক্ষেত্রে দরখাস্ত আহ্বান করে কোনো বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়নি। বাছাই কমিটিও হয়নি। অথচ গত ১৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত ঢাকা ওয়াসার অনলাইন বোর্ড সভায় একটি প্রস্তাব পাশ হয়েছে।’

গত ১৭ সেপ্টেম্বর ঢাকা ওয়াসার সচিব প্রকৌশলী শারমিন হক আমীর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ১৯ সেপ্টেম্বর বোর্ড সভা আহ্বান করা হয়। এরপর নির্ধারিত দিন সন্ধ্যায় ওয়াসার বোর্ড সদস্য ও সরকারদলীয় সাবেক সংসদ সদস্য ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে অনলাইনে সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় এমডি হিসেবে তাকসিমের মেয়াদ আরো তিন বছর বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়।

প্রকৌশলী তাকসিম এ খানকে ২০০৯ সালে ঢাকা ওয়াসার এমডি পদে প্রথমবারের মতো নিয়োগ দেওয়া হয়। এরপর কয়েক দফা তার মেয়াদ বাড়ানো হয়। আগামী ১৪ অক্টোবর তার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। এ অবস্থায় তার মেয়াদ আবারও বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা