kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

জনগণের বিরুদ্ধে চক্রান্ত, প্রয়োজন কঠোর ব্যবস্থা

সৈয়দ আবুল মকসুদ

২১ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জনগণের বিরুদ্ধে চক্রান্ত, প্রয়োজন কঠোর ব্যবস্থা

সুবিধাভোগী ষড়যন্ত্রকারী, মজুদদার ও মুনাফাখোরদের কোনো দল-মত-ধর্ম নেই। তারা সব সময়ই সরকারি দলের সমর্থকের ছদ্মবেশে থাকে। পেঁয়াজের পরে চাল ও লবণের দাম বাড়ার গুজব—এটাকে সরকার বলতে পারে বিরোধীদের কাজ। আসলে এটা জনবিরোধী মুনাফাখোরদের কারসাজি। এই কারসাজি রোধ করা সম্ভব, সরকার

যদি আন্তরিক হয়। বর্তমানে যেহেতু সরকারবিরোধী আন্দোলন নেই, তাই এ ধরনের জনবিরোধী কারসাজি থামানোর জন্য সরকারের গরজ কম। সেই সুযোগই খুঁজছে অসাধু ও সমাজবিরোধী ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট ও মজুদদাররা। এই চক্রান্ত সরকারের বিরুদ্ধে নয়, জনগণের বিরুদ্ধে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বিব্রত হবে সরকারই এবং দুর্ভোগ পোহাবে জনগণ, মুনাফা লুটে নেবে মুনাফাখোররা। তাই সরকারের উচিত হবে এদের কঠোর হস্তে দমন করা।

শুধু লবণ, পেঁয়াজ নয়, গুজব ছড়িয়ে গত কয়েক বছরে অনেক ঘটনা ঘটানো হয়েছে। ছেলেধরা আতঙ্ক ছড়িয়ে নির্দোষ মানুষকে পিটিয়ে মারা হয়েছে, ধর্মের অবমাননার কথা বলে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ছড়ানো হয়েছে, প্রাণহানি ঘটেছে। এসব হলো সমাজের সার্বিক অবক্ষয়ের প্রমাণ।

গুজবের এই বিপদ মোকাবেলায় শুধু সরকার নয়, সমাজের সব শ্রেণির শুভবোধসম্পন্ন মানুষের সক্রিয় ভূমিকাও দরকার।

লেখক : লেখক ও কলামিস্ট

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা