kalerkantho

বুধবার । ১৭ জুলাই ২০১৯। ২ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৩ জিলকদ ১৪৪০

নতুন আঙ্গিকে ডিসি সম্মেলন শুরু রবিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নতুন আঙ্গিকে ডিসি সম্মেলন শুরু রবিবার

মাঠ প্রশাসনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তা, অর্থাৎ জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) নিয়ে সম্মেলন শুরু হচ্ছে আগামী রবিবার। এবারই প্রথম পাঁচ দিনব্যাপী ডিসি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। অন্যান্যবার ডিসিরা এই সম্মেলন উপলক্ষে কার্য অধিবেশন বাদে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক সাক্ষাৎ করতেন। এবারই প্রথমবারের মতো রাষ্ট্রের অন্য দুই বিভাগের প্রধান স্পিকার ও প্রধান বিচারপতির সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন।

মন্ত্রিপরিষদসচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম গতকাল বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ডিসি সম্মেলনের বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরে বলেন, এবারে মোট ২৪টি কার্য অধিবেশনে ৩৩৩টি প্রস্তাবের ওপর আলোচনা হবে। রবিবার সকাল ৯টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিসি সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন। এরপর সব কার্য অধিবেশন হবে সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে।

প্রতিবছর ডিসি সম্মেলনের মধ্য দিয়ে দেশের ৬৪ জেলার ডিসিদের সঙ্গে সরাসরি মতবিনিময় হয় নীতি-নির্ধারকদের। এতে একদিকে মাঠ প্রশাসনে কাজের জন্য কী কী করা দরকার তা জানেন নীতি-নির্ধারকরা, অন্যদিকে সরকারের নীতি-নির্ধারকরা কী চান সে বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা পান ডিসিরা।

শফিউল আলম বলেন, এবারের সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ ৫৪টি মন্ত্রণালয়-বিভাগ অংশ নেবে। কার্য অধিবেশনগুলোতে মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিনিধি হিসেবে মন্ত্রী, উপদেষ্টা, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী, জ্যেষ্ঠ সচিব ও সচিবরা উপস্থিত থাকবেন। তিনি জানান, এ বছর সবচেয়ে বেশি প্রস্তাব পাওয়া গেছে স্থানীয় সরকার বিভাগসংক্রান্ত। এরপর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ও ভূমি মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত প্রস্তাব বেশি পাওয়া গেছে।

এবারের সম্মেলনে ভূমি ব্যবস্থাপনা, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রম জোরদারকরণ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, ত্রাণ পুনর্বাসন কার্যক্রম, স্থানীয় পর্যায়ে কর্মসৃজন ও দারিদ্র্য বিমোচন কর্মসূচি বাস্তবায়ন, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচি বাস্তবায়ন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহার এবং ই-গভর্ন্যান্স, শিক্ষার মান উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ, স্বাস্থ্যসেবা ও পরিবার কল্যাণ, পরিবেশ সংরক্ষণ ও দূষণরোধ, ভৌত অবকাঠামোর উন্নয়ন এবং উন্নয়ন কার্যক্রমের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও সমন্বয়ের বিষয়গুলো মূল আলোচনায় থাকবে। গত বছর ডিসি সম্মেলনে নেওয়া সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে ৯২.৯০ শতাংশ বাস্তাবায়িত হয়েছে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

সম্মেলন চলার সময় বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বা বিভাগের মন্ত্রী, উপদেষ্টা, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদসচিব, সিনিয়র সচিব, সচিবরা বিভিন্ন অধিবেশনে উপস্থিত থেকে ডিসি ও বিভাগীয় কমিশনারদের দিকনির্দেশনা দেবেন। সব কার্য অধিবেশনে সভাপতিত্ব করবেন মন্ত্রিপরিষদসচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

মন্তব্য