kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

জ্ঞা ন মূ ল ক প্র শ্ন

ষষ্ঠ শ্রেণি - বিজ্ঞান

মো. মিকাইল ইসলাম নিয়ন, সহকারী শিক্ষক, ঝিনুক মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, চুয়াডাঙ্গা সদর চুয়াডাঙ্গা

৩ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



ষষ্ঠ শ্রেণি - বিজ্ঞান

অঙ্কন : মাসুম

অষ্টম অধ্যায়

মিশ্রণ

১।        মিশ্রণ কী?

            উত্তর : বিভিন্ন পদার্থের সংমিশ্রণে যা পাওয়া যায় তাই মিশ্রণ।

২।         অসমসত্ব মিশ্রণ কী?

            উত্তর : যেসব মিশ্রণে উপাদানগুলো সুষমভাবে বণ্টিত থাকে না এবং একটি উপাদান থেকে আরেকটি সহজে আলাদা করা যায় তাকে অসমসত্ব মিশ্রণ বলে।

৩।        পানিতে দ্রবীভূত অক্সিজেন কোন ধরনের দ্রবণ?

            উত্তর : পানিতে দ্রবীভূত অক্সিজেন তরল-গ্যাস দ্রবণ।

৪।        দ্রব কী?

            উত্তর : দ্রবণ তৈরি করার সময় যে পদার্থটি দ্রাবকে দ্রবীভূত হয় তাকে দ্রব বলে।

৫।        সাসপেনশন কী?

            উত্তর : সাসপেনশন হলো এমন একটি মিশ্রণ, যা রেখে দিলে উপাদানসমূহ আংশিকভাবে আলাদা হয়ে যায়।

৬।        নাইট্রোজেন ও অক্সিজেনের মিশ্রণ কী ধরনের দ্রবণ?

            উত্তর : নাইট্রোজেন ও অক্সিজেনের মিশ্রণ গ্যাসীয় দ্রবণ।

৭।        পাতলা দ্রবণ কাকে বলে?

            উত্তর : যে দ্রবণে অপেক্ষাকৃত দ্রবের পরিমাণ কম বা দ্রাবকের পরিমাণ বেশি থাকে তাকে পাতলা দ্রবণ বলে।

৮।       সমসত্ব মিশ্রণ কাকে বলে?

            উত্তর : যেসব মিশ্রণের উপাদানগুলো সুষমভাবে বণ্টিত থাকে এবং একটিকে অন্যটি থেকে সহজে আলাদা করা যায় না তাদের সমসত্ব মিশ্রণ বলে।

৯।        পরিস্রাবণ কী?

            উত্তর : ভাসমান কঠিন অদ্রবণীয় পদার্থকে তরল পদার্থ থেকে ছেঁকে পৃথক করার পদ্ধতিই হলো পরিস্রাবণ।

১০।      সম্পৃক্ত দ্রবণ কাকে বলে?

            উত্তর : নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় একটি নির্দিষ্ট পরিমাপের দ্রাবক সর্বোচ্চ যে পরিমাণ দ্রব দ্রবীভূত করতে পারে, সেই পরিমাণ দ্রব দ্রবীভূত থাকলে প্রাপ্ত দ্রবণকে সম্পৃক্ত দ্রবণ বলে।

১১।      লবণাক্ত পানি থেকে বিশুদ্ধ পানি প্রস্তুত করার পদ্ধতি কোনটি?

            উত্তর : লবণাক্ত পানি থেকে বিশুদ্ধ পানি প্রস্তুত করার নাম পাতন পদ্ধতি।

১২।      কোন পদ্ধতিতে লবণ উৎপাদন করা হয়?

            উত্তর : বাষ্পীভবন পদ্ধতিতে লবণ উৎপাদন করা হয়।

১৩। তরল-তরল দ্রবণ কাকে বলে?

            উত্তর : যে দ্রবণের দ্রব ও দ্রাবক উভয়ই তরল, সে দ্রবণকে তরল-তরল দ্রবণ বলে।

১৪।      দ্রবণ ও মিশ্রণের মূল পার্থক্য কী?

            উত্তর : দ্রবণ ও মিশ্রণের মূল পার্থক্য হলো—মিশ্রণ সমসত্ব ও অসমসত্ব উভয়ই হতে পারে, কিন্তু দ্রবণ শুধু সমসত্ব ধরনের হয়।

১৫।      দ্রবণীয়তা বলতে কী বোঝায়?

            উত্তর : কোনো নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় ১০০ গ্রাম দ্রাবক নিয়ে কোনো দ্রবের সম্পৃক্ত দ্রবণ তৈরি করতে যতটুকু দ্রবের প্রয়োজন হয় তাকে ওই দ্রাবকে দ্রবের দ্রবণীয়তা বলে।

১৬।     তরল-গ্যাস দ্রবণ কী?

            উত্তর : যে সমস্ত দ্রবণে তরল দ্রাবকে গ্যাসীয় পদার্থ দ্রব হিসেবে দ্রবীভূত থাকে তাকে তরল-গ্যাস দ্রবণ বলে।

১৭।      দ্রাবক কাকে বলে?

            উত্তর : দ্রবণে সাধারণত যে উপাদান বেশি পরিমাণে থাকে, তাকে দ্রাবক বলে।

১৮।     কলয়েড কী?

            উত্তর : যে ধরনের মিশ্রণে অতিক্ষুদ্র বস্তুকণা অপর বস্তুকণার মাঝে ভাসমান অবস্থায় থাকে এবং একে রেখে দিলে কখনোই কোনো তলানি পড়ে না তাকে কলয়েড বলে।

১৯।      অসম্পৃক্ত দ্রবণ কাকে বলে?

            উত্তর : কোনো দ্রবণে একটি দ্রবের দ্রবণীয়তা অপেক্ষা কম দ্রব দ্রবীভূত থাকলে যে দ্রবণ উৎপন্ন হয়,তাকে অসম্পৃক্ত দ্রবণ বলে।

২০।      দুধ কী জাতীয় পদার্থ?

            উত্তর : দুধ কলয়েড জাতীয় পদার্থ।

২১।      জলীয় দ্রবণ কী?

            উত্তর : যেসব দ্রবণে দ্রাবক হিসেবে পানি থাকে সেসব দ্রবণকে জলীয় দ্রবণ বলে।

২২।       ফলের রস কোন প্রকারের মিশ্রণ?

            উত্তর : ফলের রস সমসত্ব মিশ্রণ।

২৩।      দুধে পানি কোন দশা?

            উত্তর : দুধে পানি অবিচ্ছিন্ন দশা।

২৪।      কলয়েডে বিদ্যমান কণাগুলোর আকার কত?

            উত্তর : কলয়েডে বিদ্যমান কণাগুলোর আকার ১-১০০০ ন্যানোমিটার।

২৫। ঘন দ্রবণ কাকে বলে?

            উত্তর : যে দ্রবণে দ্রবের পরিমাণ বেশি কিংবা দ্রাবকের পরিমাণ কম থাকে, সে দ্রবণকে ঘন দ্রবণ বলে।

২৬। সাসপেনশনে বিদ্যমান কণাগুলোর আকার কত?

            উত্তর : সাসপেনশনে বিদ্যমান কণাগুলোর আকার ১ মাইক্রোমিটার বা তার বেশি।

২৭। অবিচ্ছিন্ন দশা কাকে বলে?

            উত্তর : কলয়েডে যেটি প্রধান উপাদান বা পরিমাণে বেশি থাকে তাকে অবিচ্ছিন্ন দশা বলে।

২৮।     বাষ্পীভবন কাকে বলে?

            উত্তর : তাপের প্রভাবে তরল পদার্থকে বাষ্পে পরিণত করার প্রক্রিয়াকে বাষ্পীভবন বলে।

২৯। অ্যাসিটিক এসিড ও পানির মিশ্রণ কোন ধরনের দ্রবণ?

            উত্তর : অ্যাসিটিক এসিড ও পানির মিশ্রণ তরল-তরল দ্রবণ।



সাতদিনের সেরা