kalerkantho

শুক্রবার । ৩ বৈশাখ ১৪২৮। ১৬ এপ্রিল ২০২১। ৩ রমজান ১৪৪২

দাঁত

৬ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দাঁত

[সপ্তম শ্রেণির বিজ্ঞান বইয়ের দ্বিতীয় অধ্যায়ে দাঁতের উল্লেখ আছে]

দাঁত মেরুদণ্ডী প্রাণীদের মুখে অবস্থিত একটি শক্ত সাদা অঙ্গ। এটি খাদ্য কাটা ও চাবানোর কাজে বিশেষভাবে ব্যবহৃত হয়। বেশির ভাগ প্রাণীর দেহে দাঁতই হচ্ছে কঠিনতম অঙ্গ। অন্যান্য প্রাণীসহ মানুষের দাঁত দুইবার গজায়। শিশুকালে যে দাঁত গজায় তাকে বলে দুধদাঁত। মানুষের ওপরের চোয়ালে ১০টি এবং নিচের চোয়ালে ১০টি মিলে মোট ২০টি দুধদাঁত ওঠে। ১৮ বছরের মধ্যে এই দাঁত পড়ে স্থায়ী দাঁত ওঠে। একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের মুখগহ্বরে ওপরে ও নিচের চোয়ালে সাধারণত ১৬টি করে মোট ৩২টি দাঁত স্থায়ী থাকে।

আক্কেল দাঁতসহ স্থায়ী দাঁত মোট পাঁচ ধরনের হয়, যেমন—কর্তন দাঁত, ছেদন দাঁত, অগ্রপেষণ দাঁত, পেষণ দাঁত ও আক্কেল দাঁত। কর্তন দাঁত দিয়ে খাবার কেটে টুকরা করা হয়। ছেদন দাঁত খাবার ছেঁড়ার কাজে ব্যবহৃত হয়। অগ্রপেষণ ও পেষণ দাঁত দিয়ে খাদ্যবস্তু চর্বণ ও পেষণ উভয় কাজই করা হয়। মাড়ির সবচেয়ে পেছনের বা শেষের দাঁত দুটিকে আক্কেল দাঁত বলে। একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের আটটি কর্তন দাঁত, চারটি ছেদন দাঁত, আটটি অগ্রপেষণ দাঁত, আটটি পেষণ দাঁত এবং শূন্য থেকে চারটি আক্কেল দাঁত  থাকে। প্রতিটি দাঁতের তিনটি অংশ, যেমন—মুকুট, মূল ও গ্রীবা। মুকুট মাড়ির ওপরের অংশ, মূল মাড়ির ভেতরের অংশ এবং গ্রীবা দাঁতের মধ্যবর্তী অংশ।

দাঁতের বাইরের শক্ত আবরণকে বলে এনামেল। এনামেল ক্যালসিয়াম ফসফেট, ক্যালসিয়াম কার্বনেট ও ক্যালসিয়াম ক্লোরাইড দিয়ে গঠিত। দাঁতের ভেতরের স্তর, যা দাঁতের বেশির ভাগ স্থান জুড়ে বিদ্যমান, তাকে ডেন্টিন বলে। এর ভেতরের নরম অংশকে বলে দন্তমজ্জা। দন্তমজ্জায় স্নায়ু ও রক্তবাহী নালিকা থাকে। দাঁতের মূলের চারদিকে অবস্থিত পাতলা স্তরকে বলে সিমেন্ট। এটি এক ধরনের অস্থিসদৃশ আবরণ, যা দাঁতকে চোয়ালের সঙ্গে সংযুক্ত করে রাখে।

দাঁতের সুস্থতা অনেকাংশেই মুখ পরিষ্কার রাখা সংক্রান্ত নিয়মিত চর্চার ওপর নির্ভর করে। মুখ পরিষ্কার রাখার ফলে দাঁতের ক্ষয়রোগ, গিংগিভিটিজ, পিরিওডন্টাল রোগ, হ্যালিটোসিস বা মুখের দুর্গন্ধ এবং অন্যান্য দন্তজনিত সমস্যা থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। দাঁত পরিষ্কার রাখার উদ্দেশ্যই হচ্ছে দাঁতের আবরণে ও ফাঁকা জায়গায় অবস্থানরত ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াকে দূরে রাখা। দাঁত পরিষ্কার রাখার জন্য দন্ত চিকিৎসকরা প্রতিদিন দুই বেলা খাবার গ্রহণের পর দাঁত ব্রাশ করার পরামর্শ দেন।

 ইন্দ্রজিৎ মণ্ডল

মন্তব্য