kalerkantho

বুধবার । ১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ এপ্রিল ২০২১। ১ রমজান ১৪৪২

জনসনের টিকা অনুমোদনের সুপারিশ যুক্তরাষ্ট্রে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জনসনের টিকা অনুমোদনের সুপারিশ যুক্তরাষ্ট্রে

ফাইজার ও মডার্নার পর যুক্তরাষ্ট্র এবার তৃতীয় টিকা হিসেবে জনসন অ্যান্ড জনসনের করোনা প্রতিষেধকের অনুমোদন দিতে যাচ্ছে। গত শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের একটি স্বতন্ত্র বিশেষজ্ঞ প্যানেল এক ডোজের জনসনের টিকা জরুরি ব্যবহারের জন্য সুপারিশ করেছে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ) টিকাটি ব্যবহারের অনুমোদন দেবে।

জনসনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত শুক্রবার টিকাটি নিয়ে পর্যালোচনায় বসে এফডিএ গঠিত ২২ সদস্যের উপদেষ্টা কমিটি। এ কমিটিতে শীর্ষস্থানীয় বিজ্ঞানীদের পাশাপাশি ভোক্তা ও শিল্প প্রতিনিধিরাও আছেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, ‘যদি এফডিএ নতুন টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দেয় এবং জনসন অ্যান্ড জনসন যাতে দ্রুত এটি উৎপাদন করতে পারে, সে ব্যাপারে আমাদের পরিকল্পনা আছে।’

মার্কিন প্রশাসনের কর্মকর্তাদের প্রত্যাশা, অনুমোদন মিললে আগামী সপ্তাহে তিন থেকে চার মিলিয়ন ডোজ টিকা পাওয়া যাবে।

করোনার একাধিক ধরনের বিরুদ্ধে কাজ করা জনসনের টিকা ৬৬ শতাংশ কার্যকর বলে এর আগে জানিয়েছিল উৎপাদক প্রতিষ্ঠান। তবে যুক্তরাষ্ট্রের ভেতরে এই হার ৭২ শতাংশ।

ব্রাজিল-নিউজিল্যান্ডে ফের কড়াকড়ি

এদিকে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে সংক্রমণ ও প্রাণহানি বেড়ে যাওয়ায় নতুন করে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। চার কোটি মানুষের রাজ্য সাও পাওলোতে রাত ৮টার পর বার ও রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। দক্ষিণ-পূর্ব রাজ্য প্যারানাতে রাত্রিকালীন কারফিউ জারি করা হয়েছে।

অন্যদিকে করোনার রোগী শনাক্ত হতে থাকায় নিউজিল্যান্ডের বৃহৎ শহর অকল্যান্ডে লকডাউন জারি করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন। দুই সপ্তাহ আগেই তিন দিনের জন্য শহরটি অবরুদ্ধ করা হয়েছিল। দেশটির প্রধানমন্ত্রী বলছেন, শনিবার এমন একজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে, যিনি কোনো কভিড রোগীর সংস্পর্শে যাননি। অধিকতর সতর্কতার অংশ হিসেবে লকডাউন পালন করা হচ্ছে।

আর প্রতিবেশী ভারতের মহারাষ্ট্র, কেরালাসহ কয়েকটি রাজ্যে হঠাৎ করে করোনা সংক্রমণ বাড়তে শুরু করছে। কয়েক মাস ধরে করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হওয়ায় এসব অঞ্চলের মানুষ স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে শুরু করেছিল। এরই মধ্যে সংক্রমণ বাড়ায় নতুন করে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

সূত্র : রয়টার্স, এএফপি।

মন্তব্য