kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জানুয়ারি ২০২০। ১৪ মাঘ ১৪২৬। ২ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

সংখ্যাতত্ত্ব

১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৬৫০

নির্বাচনে পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমন্সের আসনসংখ্যা ৬৫০টি। এর মধ্যে ৫৩৩টি ইংল্যান্ডে, ৫৯টি স্কটল্যান্ডে, ৪০টি ওয়েলসে এবং ১৮টি নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে। ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি প্রার্থী দিয়েছে ৬৩৫টি আসনে। ৬৩১টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টি।

 

৭০

এ কয়েকটি আসন ২০১৭ সালের নির্বাচনে প্রতিযোগী দলগুলোর মধ্যে হাতবদল হয়। অর্থাৎ, মোট আসনের ১১ শতাংশ। ইলেক্টোরাল রিফর্ম সোসাইটির তথ্য মতে, গত কয়েকটি নির্বাচনে এই হার কমছে।

 

৩৩২১

আজকের নির্বাচনে তিন হাজার ৩২১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। তাঁদের মধ্যে নারী প্রার্থী আছেন ১১২৪ জন। স্বতন্ত্র প্রার্থী আছেন ২২৭ জন।

 

১২

একটি আসনে সর্বোচ্চ প্রার্থীর সংখ্যা এটি। আক্সব্রিজ-সাউথ রাইস্লিপ নামের ওই আসনটির বর্তমান এমপি প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, যিনি কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থী।

 

৫০৩৪

ভোটের হিসাবে জনসনের জয়ের ব্যবধান। ১৯২৪ সালের পর যুক্তরাজ্যের কোনো প্রধানমন্ত্রী এত অল্প ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেননি।

 

সবচেয়ে কম ভোটের ব্যবধানে জয়ের নজির। এই নজিরের মালিক স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির এমপি স্টিফেন গেথিনসের। তিনি ফিফে নর্থ ইস্ট আসনের প্রার্থী।

 

৪০০০০+

এইএর তথ্য অনুযায়ী, এবারের নির্বাচনে ৪০ হাজারের বেশি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলবে। ২০১৫ সালের নির্বাচনে এই সংখ্যা ছিল ৪০ হাজার ১০০।

 

৩২৬

এটাকে ‘ম্যাজিক নাম্বার’ বলা হয়। কোনো দল সরকার গঠন করতে চাইলে ন্যূনতম ৩২৬টি আসন পেতেই হবে।

 

৩১৭

২০১৭ সালের নির্বাচনে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভদের আসনসংখ্যা।

 

৫৯

ব্রেক্সিট প্রশ্নে দ্বিতীয় আরেকটি গণভোটের পক্ষের দলগুলোর কথিত জোটের আসনসংখ্যা এটি। লেবার এবং এসএনপি দ্বিতীয় গণভোটের পক্ষে থাকলেও তাঁরা এই জোটে নেই। 

 

১০

এবার ১০টি আসনে তরুণ প্রার্থী রয়েছেন। প্রার্থী হওয়ার সর্বনিম্ন বয়স ১৮ বছর।

 

৫০০

প্রত্যেক প্রার্থীকে ৫০০ পাউন্ড করে জমা দিতে হয়। নির্বাচনে ৫ শতাংশ ভোট পেলেই ওই অর্থ প্রার্থীকে ফেরত দেওয়া হয়।

 

৮৭০০

নির্বাচনী ব্যয়ের সর্বোচ্চ সীমা। পাঁচ সপ্তাহের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় একজন প্রার্থী আট হাজার ৭০০ পাউন্ডের বেশি খরচ করতে পারবেন না। এর বাইরেও কিছু অর্থ খরচের সুযোগ রয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা