kalerkantho

সোমবার । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৭ মে ২০২১। ০৪ শাওয়াল ১৪৪

ড. গ্রিনের স্বাস্থ্যকর ইফতারি

স্বাস্থ্যজনিত সমস্যা তৈরি করে ডাক্তারের কাছে দৌড়ানো যে আসলে সুখকর নয়, এই বোধ থেকেই মিশা মাহজাবিন নিজের করপোরেট ক্যারিয়ারে ইতি টেনে শুরু করেছিলেন হেলদি বেঙ্গল নামের প্রতিষ্ঠান। প্রতিরোধমূলক স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি এবং মানসিক স্বাস্থ্য ও শারীরিক সুস্থতা সম্পৃক্ত সেবা প্রদান করে হেলদি বেঙ্গল। এরই অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ড. গ্রিন। ওজন নিয়ন্ত্রণ বা বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা প্রতিরোধে ড. গ্রিন-এর খাবার এরই মধ্যে হয়ে উঠেছে পরিচিত। ভোক্তার সুবিধার্থে পুষ্টিবিদের পরামর্শমতো ক্যালরি কাউন্টও দিয়ে দেন তাঁরা। বর্তমানে সালাদ, স্যুপসহ প্রায় ২০ রকমের খাবার সরবরাহ করে এ প্রতিষ্ঠান। ড. গ্রিনের বিশেষত্ত্ব হচ্ছে নিজস্ব সালাদ ড্রেসিং। কেউ চাইলে আলাদাভাবে ড্রেসিং কিনে বাড়িতেই প্রতিদিন স্বাস্থ্যকর সালাদ উপভোগ করতে পারেন। এবার রমজানে ড. গ্রিনের হেঁশেল থেকে থাকছে কিছু স্বাস্থ্যকর ইফতারি। রেসিপি দিয়েছেন মিশা মাহজাবিন

১৯ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৬ মিনিটে



ড. গ্রিনের স্বাস্থ্যকর ইফতারি

তরমুজ-চিয়া  শরবত

 

তরমুজ এই রমজানে শুধু সহজলভ্যই নয়, অত্যন্ত দরকারিও বটে। ফল বা শরবত দুভাবেই অনবদ্য তরমুজ।

উপকরণ

তরমুজ ১৫০ গ্রাম টুকরা করা, তরমুজের খোসার নিচের শাঁসের রস ১০০ গ্রাম, বিচি ছাড়ানো খেজুর ১টি, বিট লবণ সামান্য, পুদিনা পাতা কয়েকটি, চিয়া সিড ৫০ গ্রাম (চিয়া না থাকলে তোকমা ব্যবহার করতে পারেন)।

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   তরমুজের খোসার নিচের শাঁসের রস তৈরি করতে প্রথমে সবুজ খোসা এবং এর নিচের আধা ইঞ্চি পর্যন্ত শাঁস ফেলে দিন। এর নিচ থেকে লাল অংশ পর্যন্ত শাঁস ছোট ছোট টুকরা করে কেটে নিন। এবার ভালো করে ব্লেন্ড করুন। সম্পূর্ণ তরল হয়ে গেলে পাতলা পরিষ্কার কাপড়ে ছেকে নিন। এই রস একটু মাটি মাটি গন্ধ ও হালকা ঘনত্ব যোগ করে। এমন স্বাদ আপনার পছন্দ না হলে এর বদলে প্রয়োজনমাফিক পানি ব্যবহার করতে পারেন।

২.   এবার চিয়া সিড বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন।

৩.   শরবতের ঘনত্ব কমাতে চাইলে ছেকে নিন। তবে এতে পুষ্টিগুণ কিছুটা কমে যায়।

৪.   শরবত ফ্রিজে রেখে দিন। পরিবেশনের আগে ওপরে চিয়া সিড ছড়িয়ে দিন।

 

তরমুজের খোসার বড়া

উপকরণ

তরমুজের খোসার নিচের শাঁসের কুচি ১ কাপ, আলু কুচি আধাকাপ, গাজর কুচি আধাকাপ, ওটস গুঁড়া ১ কাপ (ওটস না থাকলে ময়দা), ডিম ১টি, কাঁচা মরিচ ২টি বা স্বাদমতো, পেঁয়াজ ২টি, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, লাল মরিচের গুঁড়া আধা চা চামচ, বেকিং পাউডার আধা চা চামচ, লবণ স্বাদমতো, ধনিয়া পাতা প্রয়োজনমতো, গোলমরিচের গুঁড়া সামান্য।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. সব কিছু একসঙ্গে ভালো করে মেখে নিন।

২. পছন্দমতো আকারে ডুবো তেলে ভেজে নিন।

৩. ভাজা হয়ে গেলে ভালো করে তেল ঝরিয়ে উঠিয়ে নিন।

৪. বাসায় এয়ার ফ্রাইয়ার বা বেকিং ওভেন থাকলে বেকও করে নিতে পারেন।

৫. এরপর গরম গরম পরিবেশন করুন।

বাঁধাকপি ও মুরগির স্যুপ

উপকরণ

মুরগির স্টক ৫০০ গ্রাম, সিদ্ধ করা মুরগি ১৫০ গ্রাম, বাঁধাকপি কুচি ১ কাপ, রসুন কুচি ৩ কোয়া, লবণ পরিমাণমতো, গোলমরিচ গুঁড়া স্বাদমতো, অলিভ অয়েল ২ টেবিল চামচ। 

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   প্রথমে মুরগির স্টক তৈরি করে নিন। স্টক বানানোর সহজ উপায় হচ্ছে একটা গোটা মুরগি প্রেসার কুকারে দিন। প্রেসার কুকারে পানি নিন, যাতে মুরগি ডুবে থাকে। এরপর এতে আদা টুকরা, সামান্য লবণ ও হলুদ গুঁড়া দিন। মুরগি ভালোমতো সিদ্ধ হয়ে গেলে পানি ছেকে নিন। ব্যস, পেয়ে গেলেন চিকেন স্টক। এভাবে স্টক বানিয়ে ডিপ ফ্রিজে রেখে দিলে যেকোনো সময় স্যুপ তৈরি করা সহজ হয়।

২.   সিদ্ধ করা মুরগি থেকে মাংস আলাদা করে নিয়ে ছোট ছোট টুকরা করুন।

৩.   পাত্রে অলিভ অয়েল গরম করে রসুন কুচি দিন। 

৪.   রসুন লাল হয়ে এলে সিদ্ধ হওয়া মুরগির মাংস দিয়ে মিনিটখানেক নেড়ে এক পাশে সরিয়ে রাখুন। এরপর বাঁধাকপি কুচি দিয়ে নাড়ুন। বাঁধাকপি বেশি নরম খেতে চান, নাকি কচকচে রাখতে চান তার ওপর নির্ভর করে চুলায় রাখুন।

৫.   আপনার পছন্দমতো পর্যায়ে পৌঁছলে এবার অল্প অল্প করে চিকেন স্টক দিতে থাকুন এবং নাড়ুন। পছন্দমতো লবণ, গোলমরিচ গুঁড়া দিন। ঝাল করতে চাইলে কাঁচা মরিচ ফালি করে দিতে পারেন।

৬.   ব্যস, কোনো রকম কর্নফ্লাওয়ার ছাড়াই তৈরি হয়ে গেল মজাদার স্যুপ। শুধু ইফতারে নয়, রাতের খাবারেও এই হালকা স্যুপ হতে পারে অনবদ্য। যাঁরা ওজন কমাতে চাইছেন, তাঁদের জন্য মাস্ট হ্যাভ।

রংধনু সালাদ

সালাদ মানেই শুধু শসা, গাজর ও টমেটো চাক চাক করে কাটা, তা নয়। সুস্বাস্থ্য ও সুন্দর ত্বকের জন্য কাঁচা সবজির সালাদ অনবদ্য। সঙ্গে পরিমাণমতো আমিষের সমন্বয়ে এটা হতে পারে সঠিকভাবে ওজন নিয়ন্ত্রণের যন্ত্র। আর সালাদে যত রং, তত বেশি পুষ্টিগুণ।

সালাদের উপকরণ

সাদা বাঁধাকপি আধাকাপ, লাল বাঁধাকপি আধাকাপ, শসা আধাকাপ, কাঁচা পেঁপে আধাকাপ, মিষ্টি ভুট্টা আধাকাপ, টমেটো আধাকাপের একটু কম, বিট এক টেবিল চামচ, গাজর আধাকাপ, লেটুস পাতা ১ কাপ, মুরগি ৫০০ গ্রাম।

মুরগির মাংস তৈরির উপকরণ

হাড় ছাড়া মুরগি ৫০০ গ্রাম, লবণ স্বাদমতো, গোলমরিচ গুঁড়া স্বাদমতো, পেঁয়াজ কুচি ২টি, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, তেল ৭৫ গ্রাম, ক্যাপসিকাম কুচি ১টি, সস ১০০ গ্রাম।

যেভাবে তৈরি করবেন

১.   একটি পাত্রে ছোট টুকরা করা মাংস, লবণ, গোলমরিচ গুঁড়া, জিরার গুঁড়া, সস, ২৫ গ্রাম তেল একসঙ্গে ভালো করে মাখিয়ে মেরিনেটের জন্য কিছুক্ষণ রেখে দিন।

২.   সবজি কাটার আগে ভালো করে ধুয়ে নিন এবং লবণ পানিতে আধাঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। এরপর আবার ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন।

৩.   পছন্দমতো আকারে সবজি কেটে নিন।

৪.   ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজ দিন। পেঁয়াজ একটু বাদামি হয়ে এলে বাটা মসলা দিয়ে কষিয়ে মাখানো মাংস দিন। ভালো করে ভেজে নিন। মাংস প্রায় হয়ে এলে ক্যাপসিকাম কুচি দিন। ক্যাপসিকাম মাংসে আলাদা গন্ধ যোগ করে। চাইলে বাদও দিতে পারেন।

৫.   এবার রান্না করা মুরগির মাংস এবং কাটা সালাদ একসঙ্গে মিশিয়ে পরিবেশন করুন। চাইলে স্বাদ বাড়াতে এবং হজমের সুবিধার্থে সালাদ ড্রেসিং যোগ করতে পারেন। তবে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন ড্রেসিংয়ে যাতে সয়াবিন তেল, সাদা চিনি, কেমিক্যাল, বাড়তি রং বা কোনো প্রিজারভেটিভ না থাকে। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে।

একটি সহজ ড্রেসিং রেসিপি

মেয়-দইয়ের ড্রেসিং

মেয়নেজ আধাকাপ, টক দই ১ কাপ, ভিনেগার আধাকাপ, মধু ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া, লালমরিচ গুঁড়া, পুদিনা পাতা কুচি, লবণ স্বাদমতো।

যেভাবে তৈরি করবেন

সব কিছু একসঙ্গে ভালোভাবে মিশিয়ে একটি কাচের পাত্রে ভরে ফ্রিজে রেখে দিন। সালাদ খাবার সময় বের করে যোগ করুন। একজনের সালাদে ২৫-৩০ গ্রাম সালাদ ড্রেসিংই যথেষ্ট।