kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ২৬  মে ২০২০। ২ শাওয়াল ১৪৪১

চঞ্চল চৌধুরী ও শুদ্ধ’র দিনরাত্রি

৩০ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চঞ্চল চৌধুরী ও শুদ্ধ’র দিনরাত্রি

আমার কাজ আর শুভর স্কুল দুটিই বন্ধ বলে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর চাপ নেই। সকালে একটু দেরি করেই উঠি। নাশতা করে আমি টিভিতে খবর দেখতে বসি। ও বসে পড়তে। আমি কখনোই শুভকে পড়াশোনার ব্যাপারে জোর করি না। বরং জোর দিই সামাজিক শিক্ষার ওপর। পড়াশোনার প্রয়োজনীয়তা ওকে বুঝিয়ে দিয়েছি। ও নিজের গরজেই যতটুকু দরকার পড়ে নেয়। নাশতার পরে হয়তো খানিকক্ষণ পড়াশোনা করে। আর সন্ধ্যায় আরেকবার বসে। বিকেলে দুজনে মিলে ঘরের মধ্যেই খেলাধুলা করি। সময়মতো খাওয়াদাওয়া করি। বাকি সময়টা কাটাই দুজনে মিলে মজা করে। কখনো দুজনে মিলে গান-বাজনা করি। কখনো আবৃত্তি করি, ছবি দেখি। বিশেষ করে রাতে। কখনো শুভ আমার সাক্ষাত্কার নেয়। আবার কখনো দুজনে মিলে ভিডিও বানাই। ফেসবুকে পোস্ট করি। একসঙ্গে লুডু খেলি। মাঝেমধ্যে ওকে নানা বিষয় নিয়ে লিখতে দিই। কখনো ও অন্য ঘরে থেকে আমাকে মেসেজ পাঠায় কিংবা অদ্ভুত কিছু করে আমাকে চমকে দেয়। কখনো আমি ওকে চমকে দিই। আসলে আমাদের সম্পর্কটা সত্যিকারের বন্ধুর মতো। নানা বিষয় নিয়ে দুজনে আলোচনাও করি। সারাক্ষণ টিভিতে করোনা নিয়ে খবর দেখা হয়। সেগুলো শুভও দেখে। ফলে ওর ভেতরেও এটা সচেতনতা সৃষ্টি হচ্ছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা