kalerkantho

শনিবার । ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৬ জুন ২০২০। ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

পঞ্চম শ্রেণি

দ্বিতীয় অধ্যায় ব্রিটিশ শাসনের ৩০

পঞ্চম শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইয়ের দ্বিতীয় অধ্যায়ে ব্রিটিশ শাসন নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। ওই অধ্যায় থেকে ৩০টি প্রশ্নোত্তর দেওয়া হলো

১৪ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



১. ইস্ট ইন্ডিয়া কম্পানি কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়?

উত্তর : ১৬০০ সালে।

২. বাংলার শেষ স্বাধীন নবাব কে ছিলেন?

উত্তর : নবাব সিরাজউদ্দৌলা।

৩. সিরাজউদ্দৌলা কত সালে বাংলার নবাব হন?

উত্তর : ১৭৫৬ সালে।

৪. সিরাজউদ্দৌলা কত বছর বয়সে নবাব হন?

উত্তর : ২২ বছর বয়সে।

৫. সিরাজউদ্দৌলার শত্রু কারা ছিল?

উত্তর : ইংরেজ বণিক, তার পরিবার ও এ দেশীয় বণিকরা।

৬. ইংরেজরা ভারতে এসেছিল কেন?

উত্তর : বাণিজ্য পরিচালনার জন্য।

৭. মোগলরা বাংলাকে কী নামে ডাকত?

উত্তর : ‘যেকোনো জাতির স্বর্গ’ নামে ডাকত।

৮. পলাশীর যুদ্ধ কত সালে হয়েছিল?

উত্তর : ১৭৫৭ সালে।

৯. ইংরেজরা কত থেকে কত সাল পর্যন্ত বাংলা শাসন করেছিল?

উত্তর : ১৭৫৭ থেকে ১৯৪৭ সাল পর্যন্ত।

১০. পলাশীর যুদ্ধের পর কী হয়েছিল?

উত্তর : ইংরেজরা প্রায় ২০০ বছর ভারতবর্ষ শাসন করেছিল।

১১. নবাবের পরিবারের কে তাঁর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন?

উত্তর : তাঁর খালা ঘষেটি বেগম।

১২. ইস্ট ইন্ডিয়া কম্পানির প্রথম শাসনকর্তা কে ছিলেন?

উত্তর : রবার্ট ক্লাইভ।

১৩. কোন নীতির ফলে এ দেশের মানুষের মধ্যে জাতি-ধর্ম-বর্ণ বিভেদ সৃষ্টি হয়?

উত্তর : ‘ভাগ করো শাসন করো’ নীতি।

১৪. ছিয়াত্তরের মন্বন্তর দুর্ভিক্ষ বাংলা কত সালে হয়েছিল?

উত্তর : ১১৭৬ সালে।

১৫. ছিয়াত্তরের মন্বন্তর ইংরেজি কত সালে হয়েছিল?

উত্তর : ১৭৭০ সালে।

১৬. সিপাহিরা কত সালে ইংরেজদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে?

উত্তর : ১৮৫৭ সালে।

১৭. সিপাহিরা কেন বিদ্রোহ করেছিল?

উত্তর : কম্পানির নীতি ও শোষণের কারণে সিপাহিরা বিদ্রোহ করেছিল।

১৮. কম্পানির শাসন রদ হয় কত সালে?

উত্তর : ১৮৫৮ সালে।

১৯. কম্পানির শাসনের পর ভারতের শাসনভার কে নিজের হাতে তুলে নেন?

উত্তর : ব্রিটেনের রানি ভিক্টোরিয়া।

২০. বিদ্রোহী নেতা তিতুমীর তার বাঁশের কেল্লা কোথায় নির্মাণ করেছিলেন?

উত্তর : বারাসাতের কাছে নারকেলবাড়িয়া গ্রামে।

২১. তিতুমীর কত সালে ও কিভাবে নিহত হন?

উত্তর : ১৮৩১ সালে ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে।

২২. সিপাহি বিদ্রোহে পশ্চিম বাংলায় কে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন?

উত্তর : মঙ্গল পান্ডে।

২৩. সিপাহি বিদ্রোহের সময় বাঙালি সিপাহিদের ফাঁসি দেওয়া হয়েছিল কোথায়?

উত্তর : ঢাকার বাহাদুর শাহ পার্কে।

২৪. ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস কত সালে গঠিত হয়?

উত্তর : ১৮৮৫ সালে।

২৫. নারী জাগরণের অগ্রদূত কে?

উত্তর : বেগম রোকেয়া।

২৬. ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে সাহসী ও আত্মত্যাগী তিনজন কারা ছিলেন?

উত্তর : ক্ষুদিরাম বসু, প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার ও মাস্টারদা সূর্যসেন।

২৭. বঙ্গভঙ্গ কী?

উত্তর : ভারতবর্ষের জনগণের মধ্যে জাতীয় চেতনার প্রসার ঘটতে শুরু করলে ব্রিটিশরা তাদের ক্ষমতা নিয়ে চিন্তায় পড়ে যায়। এ কারণে ১৯০৫ সালে তারা সমগ্র বাংলা প্রদেশকে ভাগ করার সিদ্ধান্ত নেয়। একে বঙ্গভঙ্গ বলে। পরে ১৯১১ সালে এ সিদ্ধান্ত বাতিল হলে বাংলা আবার এক হয়ে যায়।

২৮. কত সালে ভারতবর্ষ ভাগ হয়ে ভারত ও পাকিস্তান রাষ্ট্রের জন্ম হয়?

উত্তর : ১৯৪৭ সালে।

২৯. ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের তৃতীয় ধাপের নেতৃত্বে থাকা দুজন নেতার নাম লেখো।

উত্তর : নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু ও শেরেবাংলা এ কে ফজলুল হক।

৩০. বাঙালির স্বাধিকার চেতনা বিকাশে কোন সাহিত্যিকরা বেশি ভূমিকা রেখেছিলেন?

উত্তর : রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, শরত্চন্দ্র চট্টোপাধ্যায় প্রমুখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা