kalerkantho

শনিবার । ১৮ জানুয়ারি ২০২০। ৪ মাঘ ১৪২৬। ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

দিল্লিতে পরপর গাড়ি-বাসে আগুন, গুয়াহাটিতে নিহত আরো দুই

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২০:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দিল্লিতে পরপর গাড়ি-বাসে আগুন, গুয়াহাটিতে নিহত আরো দুই

ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে রণক্ষেত্রে রূপ নিয়েছে দিল্লি। পরপর বাসে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। এরপর ভাঙচুরও চালানো হয়। বিক্ষোভে যোগ দেন জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ার শিক্ষার্থীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায় পুলিশ। 

অন্যদিকে গুয়াহাটির বিক্ষোভে গুলিবিদ্ধ আরো দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে আসামে নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হলো মোট চারজনের।

গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজের সুপার রমেন তালুকদার জানান, শনিবার রাতেই একজন গুলিবিদ্ধের মৃত্যু হয়। আরেকজনের মৃত্যু হয় রবিবার সকালে। আজ মুম্বাইয়ে নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে সামিল হন বলিউডের চিত্রনির্মাতা মহেশ ভাট। 

মহেশ বলেন, এই দেশটা যে সবার, সেই বার্তা দেওয়ার সময় এসেছে। সবাইকে জোটবদ্ধ হতে হবে।

বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভের মাঝেই আজ অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে রাজধানী। দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লির মথুরা রোড এলাকায় পরপর গাড়ি ও বাসে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। আগুন নেভাতে ঘটনাস্থলে যায় দমকলের চারটি ইঞ্জিন। বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দিতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে।

জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ার ছাত্ররা বিক্ষোভে অংশ নিলেও তারা বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দেয়, আমাদের প্রতিবাদ যাতে অহিংস ও শান্তিপূর্ণ থাকে আমরা বরাবর সেই চেষ্টা করি। এ ঘটনার পর ডিএনডি থেকে মহারানিবাগ ফ্লাইওভার ও কালিন্দী কুঞ্জ যাওয়ার পথে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। 

বিলের প্রতিবাদে সুখদেব বিহার, জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া, ওখলা বিহার ও যশোলা বিহার শাহিন বাগ মেট্রো স্টেশনের প্রবেশ ও প্রস্থানদ্বার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। দিল্লি মেট্রোর পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, আপাতত এই স্টেশনগুলোতে ট্রেন দাঁড়াবে না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা