kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জুন ২০২২ । ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

শেবাগের খোঁচা খেয়েও রাগ করলেন না শোয়েব

অনলাইন ডেস্ক   

২০ মে, ২০২২ ১৯:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেবাগের খোঁচা খেয়েও রাগ করলেন না শোয়েব

১৯৯৯ সালে পাকিস্তানের স্পিডস্টার শোয়েব আখতারের বোলিং অ্যাকশন নিষিদ্ধ করেছিল আইসিসি। শোয়েব নাকি হাত ভেঙে বল করতেন- এমন অভিযোগ উঠেছিল।  তবে মাসখানেক পরেই তার অ্যাকশন সন্দেহমুক্ত হলে তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে আসেন। এত বছর পর বিষয়টি আবারও আলোচনায় উঠে আসল ভারতের সাবেক ওপেনার বীরেন্দ্র শেবাগের সৌজন্যে।

বিজ্ঞাপন

এই বিধ্বংসী ওপেনারের অভিযোগ, মাঝেমধ্যেই নাকি হাত ভেঙে বল করতেন শোয়েব।

ভারতীয় এক টিভি অনুষ্ঠানে কথোপকথনে শেবাগ বলেন, 'শোয়েব জানে সে কনুই ভেঙে বল করত। মাঝেমধ্যে চাক করত। তা না হলে আইসিসি তাকে কেন নিষিদ্ধ করবে? ব্রেট লির হাত সোজা নামত, ফলে তার বল ধরতে পারা সহজ ছিল। কিন্তু শোয়েবের ক্ষেত্রে কখনো বোঝা যেত না হাত কোথায় এবং বল কেভাবে আসবে। আমি কখনোই ব্রেট লিকে ভয় পেতাম না। কিন্তু শোয়েবকে বিশ্বাস করা ছিল কঠিন। তাকে দুটি চার মারলে জবাবে একটা বিমার কিংবা পায়ের পাতা লক্ষ্য করে ইয়র্কার মেরে দিত!'

শেবাগের এই মন্তব্য নিয়ে স্পোর্টসকিডাকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় 'রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস'খ্যাত শোয়েব বলেন, 'আমি আশা করব এসব ব্যাপার নিয়ে সে কথা বলা থেকে বিরত থাকবে। শেবাগ যদি আইসিসি বা আইনের চেয়ে বেশি বোঝে, তাহলে তার মত মেনে নেব। এটা তার মত এবং আমি এ ব্যাপারে কিছু বলব না। শেবাগকে দেওয়া আমার জবাব তার চেয়ে ভিন্ন হবে। আমার মতে বীরেন্দর শেবাগ বিশ্বের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। '

শেবাগকে শুভকামনা জানিয়ে শোয়েব আরও বলেন, 'আমি সব সময় ভেবেছি, সে ম্যাচ জেতানো খেলোয়াড় এবং যখনই ভারতের হয়ে খেলেছে, দলঅন্তঃপ্রাণ ছিল। এই খেলার সেরা ওপেনারদের একজন সে। জীবনের এমন এক সময়ে এসেছি, যেখানে কী বলছি তা ভাবতে হয়। আমি তার সাক্ষাৎকার দেখিনি। আমি জানি না যখন সে এটা বলেছে, তখন আসলেই এটা বোঝাতে চেয়েছে নাকি মজা করেছে। সে আমার কাছের বন্ধুদের একজন। এমন কিছু বলায় তাকে দোষ দেব না। তার জন্য শুভ কামনা। '



সাতদিনের সেরা