kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩০ আষাঢ় ১৪২৭। ১৪ জুলাই ২০২০। ২২ জিলকদ ১৪৪১

ইনজুরি আর ভয় পাই না : সাইফউদ্দিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৯:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইনজুরি আর ভয় পাই না : সাইফউদ্দিন

২০২৩ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তারকা হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে অল-রাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে। কিন্তু ইনজুরির কারণে বেশ কিছু দিন তাকে থাকতে হয়েছে মাঠের বাইরে। পিঠের ব্যাথার কারণে দীর্ঘ সময় মাঠের বাইরে কাটানোর পর আরো নতুন উদ্যমে মাঠে ফেরার আশা ব্যক্ত করেছেন তিনি। ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করতে করতে এই তরুণ তারকা নিজেকে মানিয়েও নিয়েছেন। এখন তার মাঝে আর হতাশা কাজ করে না।

বাংলাদেশে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে ফের আন্তর্জাতিক ম্যাচে ফিরতে যাচ্ছেন এই অল-রাউন্ডার। ব্যাটিং ও বোলিং দক্ষতা দিয়ে সাইফউদ্দিন বাংলাদেশের খুবই গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। এই মুহুর্তে তিনিই বাংলাদেশের একমাত্র সিম বোলিং অল রাউন্ডার। যে কারণে দলে তার কদরও অন্য রকম। এই কারণে টিম ম্যানেজমেন্টও চায় যত দ্রুত সম্ভব তিনি যেন ছন্দ ফিরে পান। সাইফউদ্দিনও চান নিজের এই প্রত্যাবর্তনকে স্মরনীয় করে রাখতে।

বাংলাদেশ দলের এই অল-রাউন্ডার আজ বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেন, 'দীর্ঘদিন পর মাঠে ফেরার চাপ না নিয়ে এই ম্যাচটি আমার উপভোগ করা দরকার। গত পাঁচ মাস আমি দলের বাইরে ছিলাম। এর আগে বাজে পারফর্মেন্সের কারণে দীর্ঘ আট মাস বাইরে কাটিয়েছি। এখন দলে আসা-যাওয়ায় অভ্যস্ত হয়ে গেছি। আশা করি এবারের প্রত্যাবর্তনকে স্মরনীয় করে রাখতে পারব।'

জিম্বাবুয়েকে তিন ম্যাচেই হারিয়ে ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইট ওয়াশ করতে চান সাইফউদ্দিন। তিনি বলেন, 'আমরা তাদের চেয়ে অনেক বেশী এগিয়ে গেছি। তাই জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করা সম্ভব। টেস্ট ক্রিকেটেও আমরা ভালো পারফর্ম করেছি। ওয়ানডে ক্রিকেটেও সেটি করতে হবে। তাদেরকে হোয়াইটওয়াশ করার অতীত অভিজ্ঞতাও আমাদের আছে। তবে এর নাম ক্রিকেট, এখানে কোন কিছুরই নিশ্চয়তা দেয়া যায় না।'

পূর্ণ শক্তি দিয়ে খেললে ফের ইনজুরিতে পড়ার আশংকা থাকা সত্বেও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সামর্থ্যের শতভাগ দিয়ে খেলতে চান বাংলাদেশ দলের এই অল রাউন্ডার। তিনি বলেন, 'কোনো খেলোয়াড়ের ক্ষেত্রেই ইনজুরিতে না পড়ার নিশ্চয়তা কেউ দিতে পারে না। পিঠের ব্যাথার কারণে আমি পুনর্বাসনে ছিলাম। কিন্তু আপনি হ্যামস্ট্রিং, হাঁটু কিংবা কুচকির ইনজুরিতেও পড়তে পারেন। তাই আমি ইনজুরি নিয়ে ভয় পাই না। এখন আমি পুনর্বাসনেও অভ্যস্ত হয়ে গেছি।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা