kalerkantho

শুক্রবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৭ নভেম্বর ২০২০। ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

'সরকারের দুর্নীতির কারণে দেশে ধনী-গরিবের বৈষম্য বেড়ে যাচ্ছে'

অনলাইন ডেস্ক   

২১ অক্টোবর, ২০২০ ১২:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'সরকারের দুর্নীতির কারণে দেশে ধনী-গরিবের বৈষম্য বেড়ে যাচ্ছে'

ছবি: সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল।

মেগাপ্রজেক্টগুলোতে মেগাদুর্নীতি চলছে দাবি করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকারের দুর্নীতির কারণে দেশে ধনী-গরিবের বৈষম্য দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে।

বুধবার (২১ অক্টোবর) সকালে ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, একটি ওয়ার্ড পর্যায়ে প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারি হওয়ার জন্য সরকারি দলের লোকেরা দু-তিন লাখ টাকা খরচ করছে। এ থেকেই বোঝা যায় এ পদ কত আকর্ষণীয় ও লোভনীয়। কারণ দুস্থ মানুষের টাকা তারা নিজেরাই নিয়ে নিচ্ছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশ এখন গোয়েন্দাদের পর্যবেক্ষণেই চলছে। এ পর্যবেক্ষণ ছড়িয়ে পড়েছে তৃণমূল পর্যায়েও। চাকরির ক্ষেত্রেও এখন গোয়েন্দা ব্যবহার করা হয়। যদি এতটুকুও বিএনপির সঙ্গে সম্পৃক্ততা পাওয়া যায় তাহলে তার আর চাকরি হয় না।

১৯৭১-৭৫ সময়কালীন সরকারের পটভূমি তুলে ধরে মির্জা ফখরুল বলেন, তখন আওয়ামী লীগের নেতাদের কাছে যাওয়া যেত, বিচার পাওয়া যেত। কিন্তু এখন কারো কাছে যাওয়াও যায় না, বিচারও পাওয়া যায় না।

তিনি বলেন, ধর্ষণবিরোধী আন্দোলন একটি নৈতিকতার আন্দোলন। এতে আমাদের সমর্থন রয়েছে। আমরাও সারা দেশে আন্দোলন করেছি। এখন যারা প্রতিবাদ করছে, তাদেরকে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা মারধর করছে। এটা কোনো সরকারের কর্মকাণ্ড হতে পারে না।

এ সময় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমিন, দপ্তর সম্পাদক মামুনুর রশীদ, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব হোসেন তুহিনসহ অন্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা