kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সরকারি গাড়ি যাতে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার না হয় : ভূমিমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৯:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকারি গাড়ি যাতে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার না হয় : ভূমিমন্ত্রী

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, সহকারী ভূমি কমিশনারদের ৬০টি গাড়ি দেওয়া হলো। গাড়ি দিলাম একটি উদ্দেশ্য নিয়ে। আমাদের উদ্দেশ্য কতটুকু সফল হচ্ছে তা দেখার জন্য। শুধু বাপের বাড়ি, শ্বশুরবাড়ি বা তেল বার্ন করার জন্য না। আপনাদের আরো বেশি কাজের প্রতি মনোযোগী হতে হবে এবং সাধারণ জ্ঞান দিয়ে কাজ করার চেষ্টা করবেন।

আজ রবিবার সচিবালয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মাঠ পর্যায়ের সহকারী কমিশনারদের (ভূমি) কাছে ডাবল কেবিন পিক-আপ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে এ কথা বলেন।

ভূমিমন্ত্রী বলেন, মাঠ থেকে যদি ভালো সুনাম হয় তাহলে ভূমি মন্ত্রণালয়ের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে। মাঠে এখনও আমার ইচ্ছা অনুযায়ী কাজ হচ্ছে না। আমি আশা করবো আপনারা আরো ভালো কাজ করবেন এবং আপনাদের নতুন নতুন কোনো আইডিয়া থাকলে অবশ্যই আমাকে জানাবেন।

সহকারী কমিশনারদের (এসিল্যান্ড) উদ্দেশ্যে ভূমিমন্ত্রী বলেন, কেবিন-পিকআপ দেওয়ার মূল কারণই হচ্ছে, আপনারা যেন আপনাদের আওতাধীন এলাকার ভূমি অফিসগুলো ঠিকভাবে পর্যবেক্ষণ ও প্রয়োজনে আকস্মিক পরিদর্শন করতে পারেন। এ ছাড়া এর সঙ্গে যেন সরকারি অন্যান্য দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করে মাঠ পর্যায়ে একটি গুণগত পরিবর্তন আনতে পারেন। তিনি এসি ল্যান্ডদের সরকারি গাড়ির লগবুক কার্যকরভাবে লিপিবদ্ধ করার নির্দেশ প্রদান করেন।

উপস্থিত সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, সিসিটিভি স্থাপনের জন্য ডিপিপি’র প্রক্রিয়া চলছে। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ভূমি মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে কাজ করে যাবে। আমি আশা করি আগামী বছরের কোনো এক সময়ে সিসিটিভি স্থাপনের কাজ শেষ করা যাবে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী পদে নিয়োগ দানের বিষয়টি নিয়ে কাজ চলছে। এ ছাড়া জনস্বার্থে এসিল্যান্ড ও কানুনগোর মাঝে কোনো পদ সৃষ্টি করা যায় কিনা তাও যাচাই করা হবে।

মন্ত্রী অনুষ্ঠানে উপস্থিত এসিল্যান্ডদের মধ্য থেকে ৫ জনের হাতে গাড়ির চাবি তুলে দিয়ে কেবিন-পিকআপ কার্যক্রম হস্তান্তরের উদ্বোধন করেন।

মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিববৃন্দ ছাড়াও মন্ত্রণালয়ের মাঠ প্রশাসন শাখার যুগ্ম সচিব প্রদীপ কুমার দাস, উপসচিব কামরুল ইসলাম চৌধুরী, কেবিন-পিকআপ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান প্রগতি ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেডের উপ-মহাব্যবস্থাপক একেএম আনোয়ার মোর্শেদ ও উপ-প্রধান প্রকৌশলী নবারুণ সরকার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা