kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফেসবুকে ভাইরাল লাল সবুজের ঢাকা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৯:২১



ফেসবুকে ভাইরাল লাল সবুজের ঢাকা

না ফটোশপে এডিট করে নয়। বৃষ্টির পানি লাল হয়েছে রক্তে।

ঈদের দিন কোরবানির পর রক্তে ছেয়ে গেছে রাজধানীর অলিগলি। সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুলে ধরে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের আলোচনা-সমালোচনা ছিল দিনভর। সমালোচনা করে বলা হয়েছে, নির্ধারিত স্থানে পশু কোরবানি হয়নি। তাই এমনটি ঘটল। প্রশ্ন রেখে কেউ বলেছেন, কতটা অব্যবস্থাপনার এই শহর? কতটা জলাবদ্ধ আমরা? গভীরভাবে আশঙ্কা করা হচ্ছে, এই রক্ত পানি থেকে ছড়িয়ে পড়তে পারে নানা রোগ-জীবাণু। আক্রান্ত হতে পারে শিশুরা। তাই দ্রুত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি।

ত্যাগের ঈদে ঢাকা ছিল বৃষ্টিস্নাত। সকালে নামাজে যাওয়ার সময় থেকে যে বৃষ্টি দুপুর পর্যন্ত, তাতে ভিজেছে ঢাকা। এর মধ্যে কোরবানিও সারতে হয়েছে। ঢাকাবাসী বাড়ির আঙিনা আর সামনে গলিপথে গরু-ছাগল-মহিষ কোরবানি দিয়েছেন। এরপর বৃষ্টিতে সেই রক্তে ছেয়েছে পুরো রাস্তা। পানিতে ডুবে যাওয়া গলি হয়ে যায় রক্তের লালে লাল। এসব ছবি উঠে আসে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। পশু কোরবানি দিতে এবার বৃষ্টির বিড়ম্বনার পাশাপাশি অব্যবস্থাপনার কথা লিখেছেন অনেকে। সাংবাদিক মাকসুদ উন-নবী লিখেছেন, ঢাকার রক্ত নদী, চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল কতটা অব্যবস্থাপনার এই নগর। কতটা জলাবদ্ধ আমরা।

আরিফ মাহমুদ লিখেছেন, কোরবানি ইচ্ছেমতো দিয়ে পরিষ্কারের দায়িত্ব অনেকেই ছেড়ে দিয়েছেন বৃষ্টির হাতে। কিন্তু বৃষ্টি আগেই পানি জমিয়ে রাস্তা ডুবিয়েছে। সেই পানি এখন রক্ত লাল। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মতে, রক্ত খুব দ্রুত পচে গিয়ে রোগ-জীবণু ছড়িয়ে দিতে পারে। টাইফয়েড, জন্ডিস, উদরাময়, ডেঙ্গু হতে পারে। এ ছাড়া শিশুদের জন্য এই জীবণু ক্ষতিকর প্রভাব ফেলবে। এদিকে, রাজধানীতে কোরবানির পশুর বর্জ্য ৪৮ ঘণ্টার আগেই অপসারণ করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছে দুই সিটি করপোরেশন।


মন্তব্য