kalerkantho


খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে

সফলভাবে শেষ হলো এডভান্সড ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যানেজমেন্ট চ্যালেঞ্জ ২০১৮

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ২০:০৮



সফলভাবে শেষ হলো এডভান্সড ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যানেজমেন্ট চ্যালেঞ্জ ২০১৮

ছবি : কালের কণ্ঠ

গত ২রা ফেব্রুয়ারি রোজ শুক্রবার খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার সেন্টারে (এসডব্লিউসি) অনুষ্ঠিত হয় এডভান্সড ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যানেজমেন্ট চ্যালেঞ্জ (এইএমসি)। ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগ প্রথমবারের মত এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। 

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডঃ মুহুম্মদ আলমগীর, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যন্ত্রপ্রকৌশল ফ্যাকাল্টির ডিন প্রফেসর ডঃ মিহির রঞ্জন হালদার, ছাত্রকল্যাণের পরিচালক প্রফেসর ডঃ সোবহান মিয়া এবং সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইইএম বিভাগের বিভাগীয় প্রধান (ভারপ্রাপ্ত) ডঃ মুহম্মদ রফিকুজ্জামান। 

সমস্যা সমাধান ভিত্তিক এই প্রতিযোগিতায় সারা দেশের ৩০টির বেশি বিশ্ববিদ্যাল্যের ৬০টির বেশি দল প্রথম রাউন্ডে তাদের সমধান অনলাইনে পাঠায়। প্রাথমিক বাছাইয়ের পর ২০টি দল নির্বাচিত হন পরবর্তী রাউন্ডের জন্য। সকাল ৯টায় উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানের পর পরই এসডব্লিউসি এর হল রুমটি প্রতিযোগিদের সমাগমে মুখরিত উঠে। 

প্রতিযোগিতাটি উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি। সকাল ১০টায় নাস্তা বিরতির পর শুরু হয় মূল প্রতিযোগিতা। এরপর বিকাল ৪টায় প্রতিটি দল তাদের নিজ নিজ সমধান বিচারকদের সামনে উপস্থাপন করে। অবশেষে রাত ৮টায় পিডিএফে জমা দেয়া সমাধান এবং সমাধানের উপস্থাপন মূল্যায়ন শেষে পাঁচ সদস্যের বিচারকমণ্ডলী বিজয়ী দলগুলোর নাম ঘোষণা করে। 

প্রতিযোগিতায় যৌথভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দল  'ওয়াসিস'  এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দল 'টিম'। ১ম রানার আপও হয়েছে দুইটি দল যৌথভাবে, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেকটি দল “ডেনিম” এবং খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দল 'ডিভিশন বাই জিরো'। ২য় রানার আপ হয়েছে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দল  'টিম ভিশনারী'। 

উল্লেখ্য, প্রতিযোগিতাটির চ্যাম্পিয়ন, ১ম রানার আপ এবং ২য় রানার আপের জন্য বরাদ্দ ছিলো যথাক্রমে পঞ্চাশ হাজার, ত্রিশ হাজার এবং দশ হাজার টাকার প্রাইজমানি।

 

 



মন্তব্য