kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

চট্টগ্রামে সমাবেশে মেয়র নাছির

ভোট নস্যাতে বিএনপি ও তাদের আশ্রিত অপশক্তি ষড়যন্ত্র করছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৭ নভেম্বর, ২০১৮ ০২:৫১



ভোট নস্যাতে বিএনপি ও তাদের আশ্রিত অপশক্তি ষড়যন্ত্র করছে

মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, ‘সংবিধানসম্মতভাবে নিবন্ধিত সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অর্থবহ করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বোচ্চ উদারতা ও মহানুভবতা দেখিয়েছেন। এটা সব মহলে প্রশংসিত হয়েছে। তার পরও নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপি ও তাদের ছায়াতলে আশ্রিত স্বাধীনতা, গণতন্ত্র ও সংবিধানবিরোধী অপশক্তি নানা রকম ছক তৈরি করছে। তারা আগুন নিয়ে খেলার মহড়া দিচ্ছে। সংবিধান, গণতন্ত্র ও স্বাধীনতা রক্ষার স্বার্থে একাত্তরের মতোই তাদের প্রতিঘাত করতে আমরা মাঠে প্রস্তুত। নির্বাচন বানচাল করতে যারা আগুন নিয়ে খেলছে সে আগুনে তারা পুড়বে।’

গতকাল শুক্রবার বিকেলে বন্দর নগরের পাঁচলাইশ থানা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মুরাদপুর চত্বরে সংবিধান ও গণতন্ত্র রক্ষা এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র নাছির উদ্দীন এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ড. কামাল হোসেন, আ স ম আবদুর রব, কাদের ছিদ্দিকী, মাহমুদুর রহমান মান্না স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের পতাকাবাহী হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তাঁরা আজ মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বিকিয়ে দিতে একাত্তরের পরাজিত শক্তি এবং বঙ্গবন্ধু হত্যার বেনিফিসিয়ারিদের সঙ্গে হাত মিলেয়ে এদেশকে পাকিস্তান বানাতে চান। বিএনপি-জামায়াত এবং কামাল হোসেন-রব-কাদের ছিদ্দিকী গংরা বাঙালি জাতিসত্তার প্রত্যক্ষ শত্রু। এদের রাজনৈতিক মৃত্যু ঘটাতে হবে। তাই আগামী নির্বাচনে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে আবার ক্ষমতায় আনতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন বলেন, ‘নির্বাচন বানচাল করতে একাত্তরের পরাজিত শক্তি ও ১৫ আগস্টের বেনিফিসিয়ারিরা প্রাসাদ ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে। তারা এ দেশের উন্নয়ন, মানুষের ভাত ও ভোটের অধিকার চায় না। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ সব সময় গণতন্ত্র ও সংবিধান রক্ষায় সচেষ্ট ছিল এবং এখনো আছে। জনগণই আমাদের ক্ষমতার উৎস।’

পাঁচলাইশ থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আহমেদুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং রফিউল হায়দার রফি ও শাহজাহান ছুফির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগ নেতা নোমান আল মাহমুদ, দিদারুল আলম চৌধুরী, আবু তাহের, হাজি মুহাম্মদ ইয়াকুব, সৈয়দ আমিনুল হক, জাফর আহমদ চৌধুরী, হাজি বেলাল আহমদ, এ এইচ এম জিয়াউদ্দিন প্রমুখ।



মন্তব্য