kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৭ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪১

নোয়াখালীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

নোয়াখালী প্রতিনিধি    

২৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নের বীরকোট এলাকায় গত সোমবার গভীর রাতে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, নিহত আনোয়ার হোসেন ওরফে ইউছুফ (৪৪) আন্ত জেলা ডাকাতদলের সর্দার এবং সাতটি ডাকাতিসহ ১২ মামলার আসামি। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন পুলিশের তিন সদস্য। আনোয়ার হোসেন ওরফে ইউছুফ বেগমগঞ্জ উপজেলার পূর্ব লাউতলী গ্রামের আবু তাহের ওরফে ওলি উল্যার ছেলে।

সেনবাগ থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বেগমগঞ্জের জমিদারহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইউছুফকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে থানায় জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান রাতেই তাঁর দল ডাকাতি করবে। তাঁর দেওয়া তথ্যে তাঁকে নিয়ে রাত পৌনে ৩টার দিকে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সহযোগিতায় বীরকোট এলাকায় অভিযান চালায় সেনবাগ থানার পুলিশ। এ সময় ইউছুফের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে আত্মরক্ষার্থে পুলিশ পাল্টা গুলি ছোড়ে। উভয় পক্ষের মধ্যে মিনিট পাঁচেক বন্দুকযুদ্ধ হয়। ইউছুফ দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে তাঁর সহযোগীর গুলিতে তিনি আহত হন। পরে তাঁর সহযোগীরা পালিয়ে গেলে ইউছুফকে দ্রুত নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। বন্দুকযুদ্ধের সময় পুলিশের উপপরিদর্শক জসিম উদ্দিন, সহকারী উপপরিদর্শক লোকেশ মহাজন ও কনস্টেবল আব্দুর রহমান আহত হন। তাঁদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

নোয়াখালীর পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন জানান, বন্দুকযুদ্ধের পর ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, তিনটি গুলি, চারটি কার্তুজ, সাতটি গুলির খোসা, তিনটি রামদা, একটি টর্চ লাইট ও একটি গ্যাস লাইটার উদ্ধার করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা