kalerkantho

রবিবার । ১০ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৫ জুলাই ২০২১। ১৪ জিলহজ ১৪৪২

পঞ্চম অধ্যায় : বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়

সোনিয়া আক্তার, সহকারী শিক্ষক, ধামদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মুন্সীগঞ্জ সদর, মুন্সীগঞ্জ

২২ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সঃক্ষিপ্ত  প্রশ্ন

চতুর্থ অধ্যায়

আমাদের অর্থনীতি : কৃষি ও শিল্প

[পূর্ব প্রকাশের পর]

৯।   বাংলাদেশের কোন মাটি আলু চাষের জন্য উপযোগী?

     উত্তর : বাংলাদেশের উর্বর দো-আঁশ ও বেলে মাটি আলু চাষের জন্য বিশেষ উপযোগী।

১০। খাবারকে সুস্বাদু করতে খাবারে কী ব্যবহার করা হয়?

     উত্তর : খাবারকে সুস্বাদু করতে খাবারে বিভিন্ন ধরনের মসলা ব্যবহার করা হয়।

১১। বাংলাদেশে কোন ধরনের তৈলবীজ উৎপাদন করা হয়?

     উত্তর : বাংলাদেশে সরিষা, বাদাম বা তিসি উৎপাদন করা হয়।

১২। অর্থকরী ফসল কাকে বলে?

     উত্তর : যেসব কৃষিপণ্য বিদেশে রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জন করা হয়, সেগুলোকে অর্থকরী ফসল বলে।

১৩। বাংলাদেশের প্রধান অর্থকরী ফসল কোনটি?

     উত্তর : পাট বাংলাদেশের প্রধান অর্থকরী ফসল।

১৪। পাটকে ‘সোনালি আঁশ’ বলা হয় কেন?

     উত্তর : পাট রপ্তানি করে বাংলাদেশ প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে। তাই পাটকে ‘সোনালি আঁশ’ বলা হয়।

১৫। বাংলাদেশের কোন কোন জেলায় পাট চাষ বেশি হয়?

     উত্তর : বাংলাদেশের ময়মনসিংহ, ফরিদপুর, কুমিল্লা, পাবনা, কুষ্টিয়া, যশোর ও নওগাঁ জেলায় পাট চাষ বেশি হয়।

১৬। বাংলাদেশের কোন কোন জেলায় চা বেশি উৎপন্ন হয়?

     উত্তর : বাংলাদেশের সিলেট ও চট্টগ্রাম জেলায় চা বেশি উৎপন্ন হয়।

১৭। তামাক কী কাজে ব্যবহার করা হয়?

     উত্তর : সিগারেট ও বিড়ি তৈরিতে তামাক ব্যবহার করা হয়।

১৮। বাংলাদেশে তামাক চাষকে নিরুৎসাহ করা হচ্ছে কেন?

     উত্তর : তামাক মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, তাই বাংলাদেশে তামাক চাষকে নিরুৎসাহ করা হচ্ছে।

 

১৯। বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য কয়েকটি অর্থকরী ফসলের নাম লেখো।

     উত্তর : বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য কয়েকটি অর্থকরী ফসলের নাম হলো—তুলা, রেশম, সুপারি ও রাবার।

২০। বাংলাদেশের মোট কৃষিজ আয়ের কত শতাংশ আসে মাছ থেকে?

     উত্তর : বাংলাদেশের মোট কৃষিজ আয়ের ২৩ শতাংশ আসে মাছ থেকে।



সাতদিনের সেরা