kalerkantho

শুক্রবার । ৭ কার্তিক ১৪২৭। ২৩ অক্টোবর ২০২০। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ

[ষষ্ঠ শ্রেণির বাংলা চারুপাঠ বইয়ের ‘মাদার তেরেসা’ প্রবন্ধে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কথা উল্লেখ আছে]

ইন্দ্রজিৎ মণ্ডল   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রথম বিশ্বযুদ্ধ

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ একটি বৈশ্বিক যুদ্ধ, যা ১৯১৪ সালের ২৮ জুলাই ইউরোপে শুরু হয় এবং ১৯১৮ সালের ১১ নভেম্বর পর্যন্ত স্থায়ী হয়। এই যুদ্ধ ছিল ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ সংঘাতের একটি। এ যুদ্ধের ফলে পরবর্তী সময়ে এর সঙ্গে যুক্ত থাকা দেশগুলোর রাজনীতিতে বিরাট পরিবর্তন আসে।

১৯১৪ সালে অস্ট্রো-হাঙ্গেরিয়ান সাম্রাজ্যের হবু সম্রাট ডিউক ফার্দিনান্দ সিংহাসনে আরোহণের কিছুদিন আগে সারায়েভো শহরে স্ত্রীসহ সার্বিয়ান বিচ্ছিন্নতাবাদী আততায়ীর গুলিতে নিহত হন। অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি সার্বিয়ার ওপর প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয় এবং ওই বছরের ২৮ জুলাই যুদ্ধ ঘোষণা করে। এ যুদ্ধে দুই দেশের বন্ধু রাষ্ট্রগুলো ধীরে ধীরে জড়িয়ে পড়ে। এতে যোগ দেয় সে সময়ের অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী প্রায় সব দেশ। এভাবে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সূচনা হয়। অস্ট্রিয়ার যুবরাজের হত্যাকাণ্ড ছাড়াও আরো কিছু কারণ ছিল প্রথম বিশ্বযুদ্ধ সংঘটিত হওয়ার পেছনে। উনিশ শতকে শিল্প বিপ্লবের কারণে সহজে কাঁচামাল সংগ্রহ, তৈরি পণ্য বিক্রির জন্য উপনিবেশ স্থাপনে প্রতিযোগিতা, আগের দ্বন্দ্ব-সংঘাত ইত্যাদিও প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে এক পক্ষে ছিল উসমানীয় সাম্রাজ্য, অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি, জার্মানি ও বুলগেরিয়া। এদের বলা হতো কেন্দ্রীয় শক্তি। আর অপর পক্ষে মিত্রশক্তি হিসেবে পরিচিত ছিল সার্বিয়া, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জাপান, ইতালি, রুমানিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

এই মহাযুদ্ধে প্রায় ১৮৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রত্যক্ষ ও ১৫১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার পরোক্ষ খরচ হয়, যা এর আগে ঘটিত যেকোনো যুদ্ধব্যয়ের চেয়ে অনেক বেশি।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধে ৯০ লাখ যোদ্ধা ও এক কোটি ২০ লাখ নিরীহ মানুষ নিহত হয়। প্রায় এক কোটি সৈন্য এবং দুই কোটি ১০ লাখ সাধারণ মানুষ আহত হয়, এদের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ছিল এক লাখ ১৬ হাজার ৫১৬ জন। দীর্ঘ চার বছর ধরে চলতে থাকা এ যুদ্ধে বিশ্বের মানচিত্রে বড় ধরনের পরিবর্তন দেখা দেয়। এতে ১৯১৭ সালে রোমান সাম্রাজ্য, ১৯১৮ সালে জার্মান ও অস্ট্রো-হাঙ্গেরীয় সাম্রাজ্য এবং ১৯২২ সালে উসমানীয় সাম্রাজ্যের পতন ঘটে। জন্ম হয় অনেক নতুন রাষ্ট্রের। বদলে যায় বিশ্বের রাজনৈতিক চিত্রপট।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা