English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

স্যাট পরীক্ষার্থীদের জন্য দেবপ্রিয়ের পরামর্শ

  •    
  • ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫ ০০:০০

একাদশ শ্রেণিতে ওঠার পর স্যাটের জন্য প্রস্তুতি শুরু করা যেতে পারে। কিভাবে স্যাট প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়, তার জন্য ব্যারনস এবং প্রিন্সটন বুক রিভিউয়ের বই পড়া যেতে পারে। অনুশীলনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের কলেজ বোর্ড থেকে প্রকাশিত অফিশিয়াল স্যাট বইয়ের প্র্যাকটিস টেস্ট অনুসরণ করা যেতে পারে। ক্রিটিক্যাল রিডিংয়ে দুটি অংশ থাকে সেনটেন্স কমপ্লিশন এবং কমপ্রিহেনশন। সেনটেন্স কমপ্লিশন অনেকটা শূন্যস্থানের মতো হয়। প্রশ্নপত্রে দেওয়া অপশন থেকে উত্তর দিতে হয়। উত্তরগুলো কাছাকাছি হয়ে থাকে। এখানে ভালো করতে হলে পছন্দের টপিক্স অনুসারে প্রচুর বই পড়তে হবে। নতুন শব্দ পেলে তা নোটবুকে সব ধরনের অর্থসহ টুকে রাখতে হবে। পরবর্তী সময়ে অনুশীলন করতে হবে। কমপ্রিহেনশনে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করতে সমস্যা হয় সবারই। এখানে দেবপ্রিয়ের পরামর্শ : কমপ্রিহেনশন প্যাসেজ পড়ার আগে প্রশ্নগুলো পড়ো এবং প্রশ্নের লাইন নম্বর রেফারেন্স অনুযায়ী প্যাসেজে ব্র্যাকেট দিয়ে লাইনগুলো চিহ্নিত করো। তারপর পুরো প্যাসেজ প্রথম থেকে দ্রুতগতিতে পড়ো; কিন্তু যখনই তুমি চিহ্নিত লাইনে আসবে, তখন আস্তে এবং গুরুত্ব সহকারে পড়বে। তারপর সেই চিহ্নিত লাইনের যথাযথ প্রশ্নটি তৎক্ষণাৎ উত্তর করবে। এভাবে তথ্য মনে রাখা অবস্থাতেই উত্তর দিতে পারবে। এতে সময়ও বাঁচবে এবং উত্তর সঠিক হওয়ার সম্ভাবনা বাড়বে।

রাইটিংয়ের শুরু হয় রচনা দিয়ে। এখানকার রচনাগুলোর উত্তর যুক্তিপ্রধান হয়ে থাকে। যেমন- বিজ্ঞান আশীর্বাদ নাকি অভিশাপ। এ ক্ষেত্রে উভয় অংশের পক্ষে যুক্তি দেখিয়ে পরবর্তী সময়ে যেকোনো একটিকে কল্যাণকর হিসেবে উপস্থাপন করতে হয়। দুই পৃষ্ঠার ভেতরে রচনা শেষ করতে হয়। অপ্রয়োজনীয় কোনো শব্দ বা বাক্য ব্যবহার অনুচিত। মূল্যায়নের জন্য দুই পৃষ্ঠায় রচনার উত্তর করা দরকার। রচনায় দু-তিনটি উদাহরণ দিতে পারলে ভালো হয়। হতে পারে তা ব্যক্তি, উপন্যাস কিংবা ইতিহাসের কোনো ঘটনা। এ জন্য বিভিন্ন বিষয়ে অধ্যয়ন করতে হয়। বলে রাখা ভালো, রচনার নম্বর প্রায় সময় আড়াই শর কাছাকাছি হয়। তাই এখানে ভালো না করলে মন খারাপ হয়ে যাওয়ার ঘটনাই বেশি ঘটে।

এ ছাড়া আছে বাক্যের ভুল অংশ শুদ্ধকরণ এবং বাক্য থেকে ভুল শব্দ চিহ্নিতকরণ। এ জন্য বেশি বেশি অনুশীলন জরুরি। গণিতের ক্ষেত্রে প্রথম দিকের প্রশ্নগুলো সহজ হয়ে থাকে। তাই এগুলোর তাড়াতাড়ি উত্তর করতে হয়। পরেরগুলো কিছুটা কঠিন হওয়ায় মনোযোগ দিয়ে উত্তর করা এবং পুনরায় যাচাই করা যেতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের বেশির ভাগ বিশ্ববিদ্যালয়ে স্যাট সাবজেক্ট টেস্ট হয়ে থাকে। ভালোভাবে প্রস্তুতি নিলে একটি সাবজেক্টে ৮০০ পাওয়া কঠিন কিছু নয়। মাসখানেক গুছিয়ে পড়াশোনা করলে এখানে ভালো করা যায়। এ ক্ষেত্রে প্রিন্সটন রিভিউ এবং কেপলানের বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক বই পড়া যেতে পারে।

স্যাট পরীক্ষা কষ্টসাধ্য এবং ব্যয়বহুল হওয়ায় ভালোভাবে প্রস্তুতি নিয়ে অংশ নেওয়া উচিত। এ পরীক্ষার ফলাফলের ওপর বিশ্ববিদ্যালয় এবং স্কলারশিপ অনেকটাই নির্ভর করে থাকে।

 

 

ক্যাম্পাস- এর আরো খবর