kalerkantho


নিজের টাকায় সড়ক সংস্কার আইনমন্ত্রীর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

১৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০



দোয়া ও ইফতার মাহফিলে যোগ দিতে গত মঙ্গলবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় আসেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। ঢাকা থেকে সড়কপথে আখাউড়া হয়ে কসবা গিয়ে ফের আখাউড়ায় আসেন। এ সময় কসবা-আখাউড়া সড়কের কিছু অংশের বেহাল দশা দেখে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন। একই সঙ্গে সড়ক সংস্কারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়ে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে টাকা দেবেন বলে জানান।

এ অবস্থায় গতকাল বুধবার থেকে ওই সড়কের সংস্কারকাজ শুরু হয়েছে। মন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস) অ্যাডভোকেট রাশেদুল কায়সার ভূঁইয়া জীবন সড়ক সংস্কারকাজের উদ্বোধন করেন। এ সময় কসবা পৌর মেয়র মো. এমরান উদ্দিন জুয়েল, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মো. মনির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন রিমনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

কসবা উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার মন্ত্রী কসবা-আখাউড়া সড়ক হয়ে যাওয়া-আসা করার সময় তিনি সড়কের এমন অবস্থা সম্পর্কে সংশ্লিষ্টদের কাছে জানতে চান। মন্ত্রীকে জানানো হয়, ওই সড়কের সাত কিলোমিটার অংশ এরই মধ্যে টেন্ডার হয়েছে। ঈদুল ফিতরের পরপরই এর কাজ শুরু করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। তবে ঘরমুখো মানুষের দুর্ভোগ কমাতে দ্রুত মেরামতকাজের জন্য মন্ত্রী দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেন। এ জন্য প্রয়োজনীয় যে অর্থ লাগবে, সেটি ব্যক্তিগতভাবে দেওয়ারও ঘোষণা দেন মন্ত্রী।

কসবা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মনির হোসেন বলেন, ‘মন্ত্রী মহোদয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী কসবা-আখাউড়া সড়কের কসবা থেকে গোপীনাথপুর এলাকা পর্যন্ত মেরামতকাজ শুরু হয়েছে। শ্রমিকদের পাশাপাশি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাও এ কাজে অংশ নিয়েছে। সড়ক সংস্কার হলে ঈদে ঘরমুখো মানুষের দুর্ভোগ কমবে।’

আইনমন্ত্রীর এপিএস রাশেদুল কায়সার বলেন, ‘কসবা-আখাউড়া সড়কটি মেরামতে এরই মধ্যে পাঁচ কোটি ৬১ লাখ টাকার টেন্ডার হয়েছে। ওই কাজ শুরু হওয়ার আগে ঈদে সড়কে মানুষের দুর্ভোগ কমাতে আইনমন্ত্রীর ব্যক্তিগত অর্থায়নে সাময়িক মেরামতকাজ শুরু করা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, কসবা-আখাউড়া সড়কের ১৭ কিলোমিটারের মধ্যে প্রায় ১২ কিলোমিটার বেহাল দশায় উপনীত হয়েছে। এর মধ্যে আখাউড়া থেকে গঙ্গাসাগর, গোপীনাথপুর থেকে কসবা পর্যন্ত সড়ক খানাখন্দে ভরা।

 

 



মন্তব্য