kalerkantho

তৃতীয় ধাপে ভোট আজ ১১৭ উপজেলায়

বিশেষ প্রতিনিধি   

২৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



তৃতীয় ধাপে ভোট আজ ১১৭ উপজেলায়

আজ রবিবার উপজেলা পরিষদের পঞ্চম সাধারণ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে ২৫ জেলার ১১৭ উপজেলায় ভোটগ্রহণ হতে যাচ্ছে। এ ধাপে ১২৭ উপজেলার নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হলেও ছয়টি উপজেলায় সব পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার ঘটনায় ভোটগ্রহণের প্রয়োজন হচ্ছে না। কক্সবাজারের কুতুবদিয়া ও চট্টগ্রামের লোহাগাড়া—এ দুটি উপজেলার নির্বাচন আদালতের আদেশ বাস্তবায়নের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। আর নির্বাচন কমিশন অন্য দুটি উপজেলা—নরসিংদী জেলার সদর ও কক্সবাজার জেলার সদরের নির্বাচন তৃতীয় ধাপ থেকে চতুর্থ ধাপে স্থনান্তর করেছে। ফলে আজ ভোটগ্রহণ হচ্ছে ১১৭টি উপজেলায়। এই ১১৭টি উপজেলার মধ্যে ২৭টি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ভোট হবে না। এসব উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে গেছেন। একই কারণে ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিনটি উপজেলায় এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাতটি উপজেলায় ভোটগ্রহণ হবে না।

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের তথ্য অনুসারে, তৃতীয় ধাপের এ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান পদে ৩৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯ জন এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৩ জন নির্বাচিত হয়েছেন।

যে ছয় উপজেলায় সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত সেগুলো হলো—বরিশালের গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া, মাদারীপুরের শিবচর, শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ, নরসিংদীর পলাশ এবং চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলা। এই ছয় উপজেলা ছাড়া আরো ২৭ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এগুলো হলো—কুষ্টিয়া সদর, মেহেরপুর জেলার সদর ও মুজিবনগর, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ, বরিশালের সদর, বাকেরগঞ্জ, বানারীপাড়া, মুলাদী ও হিজলা, ঝালকাঠি জেলার নলছিটি, ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন, মাদারীপুর জেলার কালকিনি, শরীয়তপুর জেলার সদর, জাজিরা, নাড়িয়া ও ডামুড্যা, রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ, মানিকগঞ্জ জেলার সদর, শিবালয়, হরিরামপুর ও সাটুরিয়া, গাজীপুর জেলার কালিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জের মিঠামাইন, চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর, মতলব দক্ষিণ ও হাজীগঞ্জ এবং কক্সবাজার জেলার উখিয়া।

গতকাল শনিবার বিকেলে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন উপজেলায় যেখানে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে সেখান থেকে তাঁদের তাত্ক্ষণিক প্রত্যাহার ও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ইসি সচিবালয় সূত্র জানায়, পক্ষপাতসহ বেশ কয়েকটি অভিযোগে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া, রংপুরের মিঠাপুকুর ও যশোরের কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী উপজেলা কর্মকর্তাকে (ইউএনও) প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ ছাড়া মাদারীপুরের রাজৈর, চট্টগ্রামের লোহাগাড়া, চাঁদপুরের কচুয়া, ফরিদগঞ্জসহ মোট চারটি থানার ওসিদের বদলি করা হয়েছে।

ইসি সচিব গতকাল আরো বলেন, ‘২৪টি উপজেলায় অতিরিক্ত বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠিত করতে সংসদ সদস্যদের সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে। কোনো ধরনের ভয়ভীতি ও প্রভাব চাপের ঊর্ধ্বে থেকে সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশন বদ্ধপরিকর।’ প্রধম ও দ্বিতীয় ধাপের মতো তৃতীয় ধাপে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন ইসি সচিব।

তিনি জানান, আজকের তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে মেহেরপুর, মানিকগঞ্জ, গোপালগঞ্জ ও রংপুরের চারটি সদর উপজেলায় ইভিএমের ব্যবহার করা হবে। এর মধ্যে মেহেরপুর ও মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। মেহেরপুর সদর উপজেলায় শুধু নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ভোট হবে।

আজ যে ১১৭ উপজেলায় ভোট : আজ যে ১১৭টি উপজেলায় ভোট হচ্ছে সেগুলো হলো—চাঁপাই নবাবগঞ্জের ভোলাহাট, গোমস্তাপুর, নাচোল ও শিবগঞ্জ; রংপুরের সদর ও মিঠাপুকুর; চুয়াডাঙ্গার সদর, আলমডাঙ্গা, দামুড়হুদা ও জীবননগর; মাগুরার সদর, শ্রীপুর, শালিখা ও মহম্মদপুর; নড়াইলের সদর, কালিয়া ও লোহাগড়া; সাতক্ষীরার সদর, আশাশুনি, শ্যামনগর, কালীগঞ্জ, কলারোয়া, তালা ও দেবহাটা; কুষ্টিয়ার সদর, ভেড়ামারা, কুমারখালী, মিরপুর, খোকসা ও দৌলতপুর; মেহেরপুরের সদর, মুজিবনগর ও গাংনী; ঝিনাইদহের সদর, শৈলকুপা, হরিণাকুণ্ডু ও কালীগঞ্জ; বরিশালের সদর, বাকেরগঞ্জ, বাবুগঞ্জ, বানারীপাড়া, উজিরপুর, মুলাদী ও হিজলা; ঝালকাঠির সদর, নলছিটি, রাজাপুর ও কাঁঠালিয়া; ভোলার বোরহানউদ্দিন; শেরপুরের নালিতাবাড়ী, শ্রীবরদী ও ঝিনাইগাতী; মাদারীপুরের কালকিনি ও রাজৈর; শরীয়তপুরের সদর, জাজিরা, নাড়িয়া, ডামুড্যা ও গোসাইরহাট; গোপালগঞ্জের সদর, টুঙ্গিপাড়া, কোটালীপাড়া, কাশিয়ানী ও মুকসুদপুর; রাজবাড়ীর সদর, গোয়ালন্দ, পাংশা ও বালিয়াকান্দি; মানিকগঞ্জের সদর, দৌলতপুর, ঘিওর, শিবালয়, সিংগাইর, হরিরামপুর ও সাটুরিয়া; গাজীপুরের কাপাসিয়া, কালিয়াকৈর, শ্রীপুর ও কালিগঞ্জ; নরসিংদীর শিবপুর, মনোহরদী, বেলাব ও রায়পুরা; কিশোরগঞ্জের সদর, হোসেনপুর, কটিয়াদী, পাকুন্দিয়া, তাড়াইল, করিমগঞ্জ, ইটনা, মিঠামইন, অষ্টগ্রাম, নিকলী, বাজিতপুর, কুলিয়ারচর ও ভৈরব; চাঁদপুরের সদর, কচুয়া, মতলব উত্তর, মতলব দক্ষিণ, ফরিদগঞ্জ, হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি; লক্ষ্মীপুরের সদর, রামগঞ্জ, রায়পুর, কমলনগর ও রামগতি; চট্টগ্রামের বেয়ালখালী, পটিয়া, চন্দনাইশ ও বাঁশখালী এবং কক্সবাজার জেলার পেকুয়া, মহেশখালী, রামু, উখিয়া ও টেকনাফ।

 

মন্তব্য