kalerkantho


হাইকোর্টে রিট আবেদন খারিজ

সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করার এখতিয়ার আদালতেরও নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করার এখতিয়ার আদালতেরও নেই

জাতীয় সংসদে দলের বিপক্ষে ভোটদানের কারণে আসন শূন্য হওয়া সংক্রান্ত সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দাখিল করা রিট আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। এর ফলে সংসদে নিজ দলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ভোট দিয়ে সদস্যপদ হারানোর বিধান বহাল থাকল। বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের একক বেঞ্চ গতকাল রবিবার এ রায় দেন।

আদালত তাঁর রায়ে বলেন, ১৯৭২ সালে যখন সংবিধান প্রণয়ন করা হয় তখন সংবিধানে ৭০ অনুচ্ছেদ যুক্ত করা হয়। এই ৭০ অনুচ্ছেদ আদি সংবিধানের অংশ। তাই এটা চ্যালেঞ্জ করার এখতিয়ার নেই। দেশের কোনো আদালতও এই ৭০ অনুচ্ছেদ অবৈধ বা বাতিল করতে পারেন না।

রায়ে বলা হয়, যাঁরা দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন তাঁরা তো দলীয় নির্বাচনী ইশতেহার মেনেই তা করেন। আগেই জানেন যে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করলে দলের সিদ্ধান্ত মানতে হবে। রাজনৈতিকভাবে মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচিত হওয়ার পর সংবিধান অনুযায়ী দলের বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই। দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করার পর যদি কেউ ওই দলের বিরুদ্ধে যান, তবে সেটা জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করার শামিল হবে। সংগত কারণেই দলের বিরুদ্ধে গেলে সংবিধান অনুযায়ী তাঁর সদস্যপদ বাতিল হবে। রায়ে আরো বলা হয়, দলের বাইরে থেকে জনগণের জন্য কথা বলতে হলে স্বতন্ত্রভাবে প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করার সুযোগ আছে।

এর আগে গত ১৫ জানুয়ারি রিট আবেদনের ওপর দ্বিধাবিভক্ত আদেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ। ওই বেঞ্চের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি ‘৭০ অনুচ্ছেদ কেন বাতিল ও সংবিধানবিরোধী ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন। আর কনিষ্ঠ বিচারপতি রিট আবেদনটি সরাসরি খারিজ করে দেন। দ্বিধাবিভক্ত আদেশের কারণে নথি প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠানো হয়। নিয়ম অনুযায়ী, প্রধান বিচারপতি বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য একক বেঞ্চে পাঠান।

৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল চেয়ে করা রিট আবদেনে বলা হয়েছিল, ৭০ অনুচ্ছেদ সংবিধানের মৌলিক কাঠামো এবং ৭(১), ১১, ১৯(১, ৩) ২৬(১,২), ২৭, ১১৯(১), ১৪২ ও ১৪৯ অনুচ্ছেদ পরিপন্থী। সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদের কারণে অনিচ্ছা থাকা সত্ত্বেও দলের পক্ষে ভোট দিতে বাধ্য হন দলীয় প্রতীকে নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা।

সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘কোন নির্বাচনে কোন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরূপে মনোনীত হইয়া কোন ব্যক্তি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হইলে তিনি যদি-(ক) উক্ত দল হইতে পদত্যাগ করেন, অথবা (খ) সংসদে উক্ত দলের বিপক্ষে ভোটদান করেন, তাহা হইলে সংসদে তাঁহার আসন শূন্য হইবে, তবে তিনি সেই কারণে পরবর্তী কোন নির্বাচনে সংসদ সদস্য হইবার অযোগ্য হইবেন না।’



মন্তব্য