kalerkantho


পাবনা পাগলা গারদে চিকিৎসাধীন এই নারীরা কি আসলেই অসুস্থ?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২২:০৫



পাবনা পাগলা গারদে চিকিৎসাধীন এই নারীরা কি আসলেই অসুস্থ?

মানসিক প্রতিবন্ধী ও অসুস্থদের চিকিৎসা দেয়া হয় পাবনা মানসিক হাসপাতালে। প্রতিষ্ঠানটি পাগলা গারদ হিসেবে বেশি পরিচিত। তবে ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে বহু নারী সেখানে ভর্তি রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সেখানে ভর্তি থাকা বেশ কয়েকজন নারীর দাবি, প্রকৃতপক্ষে সেখানে তাদের আটকে রাখা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, হাসপাতালে নারীদের ওয়ার্ডে ভর্তি থাকা কয়েকজন নিজেদের সুস্থ বলে দাবি করছেন। তারা বলছেন, তাদেরকে পাগল হিসেবে আখ্যা দিয়ে সেখানে আটকে রাখা হয়েছে। তবে তারা সম্পূর্ণ সুস্থ।

সেখানে ভর্তি থাকা মোছাম্মদ কাফসুরা খাতুন বলেন, আমি ষড়যন্ত্রের শিকার। আমি কখনোই মানিসিক রোগী ছিলাম না। আমার স্বামী আমাকে ব্যবহার করে টাকা কামাতে চেয়েছিল। আমি রাজি না হওয়ায় সে আমাকে অনেক মারধর করেছে। তার পরেও রাজি না হওয়ায় এখানে জোর করে ভর্তি করে গেছে।

তিনি আরো দাবি করেন, আমার একটা সন্তান ছিল। সে আমার স্বামীর প্রতারণার কারণে মারা গেছে। আমি কাউকে কিছু বলতে পারিনি। কারণ আমি আমার স্বামীকে খুব ভালোবাসতাম। কিন্তু সে আমাকে ঘরের মধ্যে বন্দ করে রেখে অন্যান্য মেয়েদের সাথে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করত।

তিনি আরো বলেন, এখানে যারা রয়েছেন, তাদের সবাই কোনো না কোনোভাবে প্রতারিত হয়ে এখানে এসেছে। আমি এখান থেকে মুক্তি পেতে চাই। আমি আমার স্বামীর মুখোশ খুলে দিতে চাই।

সেখানে ভর্তি থাকা আরো কয়েকজন নারী একই অভিযোগ করেন। তাদের দাবি, তারা প্রতারণার শিকার। তারা মানসিক রোগি নন, তারা সম্পূর্ণ সুস্থ। জোর করে তাদেরকে এখানে আটকে রাখা হয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে পারেন



মন্তব্য