kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

♦ গ্রুপ-১
♦ দক্ষিণ আফ্রিকা ♦ ইংল্যান্ড হ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ♦ এ-১ ♦ বি-২

অস্ট্রেলিয়া

টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিং : ৭

১৭ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অস্ট্রেলিয়া

ক্রিকেটের সবচেয়ে সফলতম দলের একটি অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তাদের ইতিহাস একেবারে সাদামাটা। বর্ণিল ট্রফি কাপবোর্ডে সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটের বৈশ্বিক ট্রফিটা এখনো যে যোগ করতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। সেরা সাফল্য ২০১০ সালে ফাইনাল খেলা। বার্বাডোজের ম্যাচে ৮ রানে তিন উইকেট হারানোর পর হাফসেঞ্চুরিতে দলকে ১৪৭ রানের লড়াইয়ের পূঁজি গড়ে দিয়েছিলে ডেভিড হাসি। তবু চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ডের কাছে ৭ উইকেটে হেরে যায় মাইকেল ক্লার্কের দল। আমিরাতের আসরেও শিরোপা ফেভারিট ভাবা হচ্ছে না অস্ট্রেলিয়াকে। সাম্প্রতিক ফর্মও তাদের যাচ্ছেতাই। সর্বশেষ পাঁচটি সিরিজই হেরেছে তারা। বাংলাদেশে এসে ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ হারের তিক্ত অভিজ্ঞতাও অস্ট্রেলিয়ার। যদিও পূর্ণশক্তির দল পাঠায়নি তারা বাংলাদেশে। বিশ্বকাপে অবশ্য ডেভিড ওয়ার্নার, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, অ্যারন ফিঞ্চ, স্টিভেন স্মিথদের মতো সেরাদের নিয়েই নামবে অস্ট্রেলিয়া। তাঁদের নিয়ে বিশ্বকাপে সাফল্যের নতুন গল্প লিখতে চান ফিঞ্চ, ‘নিজেদের সেরা খেলাটা খেলতে পারলে আমাদের হারানো কঠিন হবে। আমরাও হতে পারি বিশ্বসেরা।’

 

সেরা তারকা

গ্লেন ম্যাক্সওয়েল

একজন চৌকস অলরাউন্ডার। ব্যাটে ঝড় তুলে ম্যাচের বাঁক বদলে দিতে পারঙ্গম। আবার খেলার মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারেন কার্যকর স্পিন বোলিংয়েও। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ৪৯ এবং ৫০ বলে শতরান করার দুটি নজির আছে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের। আমিরাতের পরিবেশের সঙ্গেও মানিয়ে নিয়ে ব্যাটে নিয়মিত ঝড় তুলছেন আইপিএলে। সর্বশেষ ছয় ম্যাচে চার হাফসেঞ্চুরিসহ চলতি আসরের পঞ্চম সর্বোচ্চ স্কোরার তিনি। ছক্কা মেরেছেন ২১টি। তাঁর চেয়ে বেশি ছক্কা হাঁকিয়েছেন শুধু লোকেশ রাহুল ও গায়কোয়াড।

 

কোচ

জাস্টিন ল্যাঙ্গার

নড়বড়ে হয়ে গিয়েছিল চাকরিটা! টি-টোয়েন্টিতে টানা পাঁচটি সিরিজ হারের সঙ্গে ঘরের মাঠে টেস্ট সিরিজ নাস্তানাবুদ হওয়া একজনের পক্ষে অস্ট্রেলিয়ার কোচের পদে টিকে থাকা কঠিনই। তবে ‘ভোট অব কনফিডেন্সে’ জেতা ল্যাঙ্গারই পেয়েছেন টি-টোয়েন্টি ‘দুঃখ’ ঘুচানোর দায়িত্ব।

 

স্কোয়াড

অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), অ্যাস্টন অ্যাগার, প্যাট কামিনস, জশ হ্যাজেলউড, জশ ইংলিশ, মিচেল মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, কেন রিচার্ডসন, স্টিভ স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, মার্কাস স্টয়নিস, মিচেল সোয়েপসন, ম্যাথু ওয়েড, ডেভিড ওয়ার্নার এবং অ্যাডাম জাম্পা।

 

পারফরম্যান্স

২০০৭ :    সেমিফাইনাল

২০০৯ :    গ্রুপ পর্ব

২০১০ :    রানার্স আপ

২০১২ :    সেমিফাইনাল

২০১৪ :    সুপার টেন

২০১৬ :    সুপার টেন

পরিসংখ্যান

♦ বিশ্বকাপে ২৯ ম্যাচে জয় ১৬, হার ১৩। সাফল্যের হার ৫৫.১৭ শতাংশ।

♦ শেন ওয়াটসনের সর্বোচ্চ ৫৩৭ রান আর সবচেয়ে বেশি ২২ উইকেটও শেন ওয়াটসনের।



সাতদিনের সেরা