kalerkantho

শুক্রবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৭ নভেম্বর ২০২০। ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

[ ই চ্ছে খা তা ]

থ্যাংকস গিভিং ডিনার অ্যাপোলো

আশরাফ শাহ্

২৩ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



থ্যাংকস গিভিং ডিনার অ্যাপোলো

থ্যাংকস গিভিং এর দিনে

মুখে রোচে আর কি

ক্র্যানবেরি সস গ্রেভি

দমে রাখা টার্কি

উৎসবে মুখরিত

বেস্পতিবার কি—

চেয়ে খাই খেয়ে চাই

খাই তাতে কার কি?

সালাদ আপেল পাই

ভুনা বিফ জার্কি

উদরের প্রতিবাদে

মেনে নেব হার কি?

 

টীকা : থ্যাংকস গিভিং ডে

আমেরিকায় নভেম্বর মাসের চতুর্থ বৃহস্পতিবারটাই থ্যাংকস গিভিং ডে। অনেকে এটাকে টার্কি ডে-ও বলে।  এ দিন পরিবার, প্রতিবেশী ও বন্ধুবান্ধব সবাই একসঙ্গে হয়ে ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানায়। দেশ ও জাতির আরো সাফল্য প্রার্থনা করে। অনেক খাবারদাবারের ব্যবস্থাও থাকে। খাবারের তালিকায় থাকে টার্কি রোস্ট, ক্র্যানবেরি সস, মিষ্টি আলুর ক্যান্ডি, ম্যাশড পটেটো ও পামকিন পাই। টার্কি তোমরা দেখেছ মনে হয়। ময়ূরের মতো বড় হয়। থ্যাংকস গিভিং ডের ইতিহাস কিন্তু বেশ পুরনো। এর সঙ্গে একটি জাহাজও জড়িয়ে আছে। ১৬২০ সালে  ১০২ জন বিভিন্ন ধর্মের মানুষ মে ফ্লাওয়ার জাহাজে চড়ে ইংল্যান্ড থেকে নতুন দুনিয়ার খোঁজে বেরিয়েছিল। ম্যাসাচুসেটস উপকূলে পৌঁছাতে তাদের কয়েক মাস লেগে যায়। এর মধ্যে যাত্রীদের অনেকেই অনাহার-অর্ধাহার আর শীতে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। যারা সুস্থ ছিল তারা জাহাজ থেকে নেমে প্লাইমাউথ নামের একটি গ্রাম গড়ে তোলে। তাদের পরিচয় হয় স্কোয়ান্তো নামের এক আমেরিকান ইন্ডিয়ানের সঙ্গে। স্কোয়ান্তো তাদের কর্ন চাষের উপায় জানায়। আরো শেখায় কিভাবে মাছ ধরতে হয় এবং ম্যাপলগাছ থেকে রস সংগ্রহের পদ্ধতি। পরের বছর খুব ভালো ফলন হয়। গভর্নর উইলিয়াম সবার জন্যই একটি ভোজের আয়োজন করে। ওই অনুষ্ঠানে তারা ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানায় তাদের এত ভালো শস্য দেওয়ার জন্য। সেই যে শুরু হলো! এই দিনে আমেরিকায় সরকারি ছুটি থাকে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা