kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

সিনেমা

ফিরে এলো অ্যানা, এলসা

২০১৩ সালে মুক্তির পরই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায় রাজকুমারী অ্যানা আর এলসার গল্প নিয়ে তৈরি ‘ফ্রোজেন’। ছয় বছর পর ছবিটির দ্বিতীয় কিস্তি মুক্তি পেয়েছে আজ। লিখেছেন লতিফুল হক

২২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ফিরে এলো অ্যানা, এলসা

 

 

এলসার কথা মনে আছে? আর তার ছোট বোন রাজকুমারী অ্যানাকে? ঠিক ধরেছ, বলছি ‘ফ্রোজেন’ সিনেমার কথা। ছয় বছর আগে ছবিটি মুক্তির পর কী সাড়াই না ফেলেছিল! এতই জনপ্রিয় হয়েছিল যে বাংলাদেশেও ঈদের আগে দোকানে দোকানে এলসার ড্রেসের মতো পোশাক উঠেছিল। ‘ফ্রোজেন’ দেখে তোমরা যেমন আনন্দ পেয়েছিলে, তেমনি পরে মন খারাপও হয়েছিল খানিকটা। কবে আসবে পরের কিস্তি? কী হবে অ্যানা আর এলসার? এমন নানা প্রশ্ন মাথায় ঘুরেছে। অবশেষে এলো ‘ফ্রোজেন ২’। প্রথম পর্বে কী ঘটেছিল, তোমাদের স্মরণ আছে নিশ্চয়ই। তবু আরেকবার মনে করিয়ে দেওয়া যাক। গল্পটা দুই রাজকুমারী অ্যানা আর এলসাকে নিয়ে। বড় বোন এলসার এক জাদুকরী ক্ষমতা আছে—আঙুল দিয়ে যা ছোঁয় সেটাই বরফ হয়ে যায়! এটা নিয়েই হয় মুশকিল। একবার খেলতে খেলতেই এলসা ছুঁয়ে দেয় অ্যানাকে। হয় কঠিন বিপদ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বেঁচে যায় অ্যানা। এরপর দুই বোনকে আলাদা করা হয়। এলসা চলে যায় অনেক অনেক দূরে। এর মধ্যে অ্যানার হবু বর সিংহাসন দখলের চক্রান্ত করে। এলসার খোঁজে বের হয় অ্যানা। এবারের কিস্তির গল্প আগেরটির তিন বছর পরের। এলসা হঠাৎই উত্তর দিক থেকে রহস্যময় একটা শব্দ শুনতে পায়। কেউ যেন ওকে ডাকছে। মনে হয় এই শব্দটা তার জাদুকরী ক্ষমতার সঙ্গে সম্পর্কিত। এরপর দেখা যাবে দুই বোন মিলে এলসার জাদুকরী ক্ষমতার উৎসের খোঁজে বের হয়েছে। কারণ এটার ওপর তাদের রাজ্যের ভালো-মন্দও নির্ভর করছে। দুই বোনের অভিযান নিয়েই এবারের ছবি। যেখানে অবশ্যই তাদের সঙ্গী বরফমানব ক্রিস্টাফ ও পোষা বলগা হরিণ সভেন।

প্রথম কিস্তি ২০১৩ সালের সবচেয়ে ব্যবসাসফল ছবি ছিল, জিতেছিল দুটি শাখায় অস্কারও। ভেঙে ছিল অনেক রেকর্ড। নির্মাতারা আশ্বস্ত করেছেন প্রথমটির মতো ‘ফ্রোজেন ২’-ও সবাই পছন্দ করবে। তোমাদের মনের মতো করে বানাবেন বলেই এই কিস্তি নিয়ে আসতে এতটা সময় লেগেছে তাদের। প্রথমটির মতো এবারও অ্যানা ও এলসার চরিত্রে কণ্ঠ দিয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী ক্রিস্টেন বেল ও ইডিনা মেনজেল।

সারা দুনিয়ার ছোটরা ‘ফ্রোজেন’-এর বড় ভক্ত। তাই তোমাদের কথা চিন্তা করে এবারের ছবিতে পরিবেশ নিয়ে বেশ কিছু সচেতনতামূলক বার্তা দেওয়া হয়েছে। দেখানো হয়েছে পরিবেশের ক্ষমতা আসলে কতটা ব্যাপক। নির্মাতারা জানিয়েছেন ফিনল্যান্ড, নরওয়ে, আইসল্যান্ডের মতো দেশগুলোতে উত্তর মেরুর বরফ অঞ্চল নিয়ে নানা ধরনের লোককথা প্রচলিত। চিত্রনাট্য লেখার সময় সেগুলো থেকে প্রেরণা নিয়েছেন তাঁরা। এ জন্য ছবির গবেষণাদল দেশগুলোতে সফর করেছে। ছবির পরিচালকদের একজন ক্রিস বাক বলেন, ‘এলসার ক্ষমতার সঙ্গে প্রকৃতির সম্পর্ক আছে। যখন আইসল্যান্ডে যাই, তখন আমি প্রকৃতির ক্ষমতা বুঝতে পারি। আপনি যখন বরফাঞ্চল বা বিশাল কোনো জঙ্গলের মধ্য দিয়ে যাবেন, তখন প্রকৃতিকে অনুভব করতে পারবেন। পুরো সিনেমায় আমরা সেই অনুভূতি দর্শকদের দিতে চেয়েছি।’

‘ফ্রোজেন’-এর গানগুলো দারুণ জনপ্রিয় হয়েছিল, বিশেষ করে অস্কার পাওয়া ‘লেট ইন গো’ তো সবার মুখে মুখে ফিরেছে। ‘ফ্রোজেন ২’-তেও গান থাকছে। সেগুলো কতটা ভালো লাগবে তোমাদের সেটা কয়েক দিন পরই বোঝা যাবে।

আজ সারা বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশেও মুক্তি পেয়েছে ‘ফ্রোজেন ২’। চাইলে মা-বাবা ও বন্ধুদের নিয়ে দেখে নিতে পার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা