kalerkantho

রবিবার । ৪ আশ্বিন ১৪২৮। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১১ সফর ১৪৪৩

গেম

শেষ লড়াই

মোহাম্মদ তাহমিদ   

২৫ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শেষ লড়াই

স্মার্টফোনের জন্য সদ্য প্রকাশিত হয়েছে মন্দের বিরুদ্ধে মহাবিশ্বব্যাপী লড়াই ঘিরে তৈরি ‘ওয়ারহ্যামার ৪০কে’ সিরিজের সর্বশেষ গেম ‘লস্ট ক্রুসেড’। গেমপ্লে, গ্রাফিকস বা খেলার ধরন নতুন না হলেও বেইস বিল্ডিং ও মাল্টিপ্লেয়ার গিল্ডভিত্তিক ম্যাসিভলি মাল্টিপ্লেয়ার অনলাইন (এমএমও) ঘরানার গেম হিসেবে এটি ওয়ারহ্যামারভক্ত এবং সিরিজে নতুন আসা দুই ধরনের গেমারদেরই মন জয় করবে।

ওয়ারহ্যামার ৪০কে সিরিজের মূল কাহিনি—মানুষের রাজত্ব সৌরজগৎ ছাড়িয়ে বিভিন্ন গ্যালাক্সিতেও ছড়িয়ে পড়েছে। এর মধ্যে হানা দিয়েছে অন্য ডাইমেনশনের এক মন্দ শক্তি, যার নাম ‘কেওস’। এই কেওস ধীরে ধীরে মানুষ ও অন্যান্য বুদ্ধিমান প্রাণীকে বশে এনে তাদের মাধ্যমে বাকি মানুষের সঙ্গে শুরু করেছে যুদ্ধ। এমনই এক ময়দানে গেমারের মহাকাশযান প্রায় কেওসের হাতে পরাস্ত হওয়ার সময় তারা ওয়ার্প জাম্প করে পালাতে সক্ষম হলেও হয়ে পড়ে দলছুট। ক্ষতিগ্রস্ত যানটিকে মেরামত করার মাধ্যমে শুরু হবে গেমপ্লে। ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার পর যুদ্ধযানটি ঘিরে তৈরি শুরু হয় বেইস, সে বেইসে সেনাদের প্রশিক্ষণ, নানা ধরনের সমরাস্ত্রের গবেষণা ও শক্তি বৃদ্ধি করে আশপাশের গ্রহগুলোতে স্কাউটিং শুরু করতে হবে। গ্রহান্তরে কেওসের সঙ্গে লড়াই করা, নিজের বেইসকে আরো শক্তিশালী করাই গেমটির মূল কাজ।

কিছুটা লেভেল বাড়ানোর পর গেমার চাইলে অন্যান্য গেমারের সঙ্গে একটি গিল্ডে যুক্ত হতে পারবেন বা শুরু করতে পারবেন নিজেদের গিল্ড। গিল্ডের অংশ হিসেবে করতে পারবেন যুদ্ধ বা অন্যান্য গিল্ডের বিরুদ্ধেও করতে পারবেন লড়াই। এভাবেই এগোতে থাকবে গেমের ঘটনাবলি।

শুধু মহাকাশযান থাকলেই হবে না, সেটি পরিচালনা ও যুদ্ধ করার জন্য প্রয়োজন যোদ্ধা ও সেনাপতি। শক্তিশালী সব সেনাকে উদ্ধার করার মাধ্যমে নিজের সামরিক ক্ষমতা বাড়াতে হবে। সেনাদের আপগ্রেড ও তাদের অস্ত্রপাতির ক্ষমতা বৃদ্ধিও গেমটির অন্যতম অংশ।

গেমটির খারাপ দিকও গতানুগতিক। খেলা হয়তো শুরু করা যাবে বিনা মূল্যে, কিন্তু ইন-অ্যাপ পারচেস ছাড়া সেরা সেনাদের পাওয়া প্রায় অসম্ভব। বেশির ভাগ বেইস আপগ্রেড বা বড় ধরনের যুদ্ধে সময় লাগবে প্রচুর, সেটি কমানোর জন্যও খরচ করতে হবে টাকা। তবে ধৈর্য ধরে খেললে টাকা খরচ ছাড়াও খেলা সম্ভব, বিশেষ করে যদি একটি বড়সড় গিল্ডে ঢুকে যাওয়া যায়, অন্য গেমাররা সাহায্য করলে এই আপগ্রেড ও রিসার্চের টাইম কমে যাবে প্রায় ১০ গুণ। তবে ফ্রি গেম হলেও এতে কোনো প্রকার বিজ্ঞাপনের যন্ত্রণা নেই।

গেমটির গ্রাফিকস অসাধারণ কিছু নয়, কন্ট্রোল কিছুটা বিভ্রান্তিকর। প্রচুর মেন্যু আর ফিচারে ভরা ইন্টারফেসে কোথায় কী হচ্ছে তার দিকে খেয়াল রাখতে মাথা গুলিয়ে যেতে পারে, বিশেষ করে টিউটরিয়াল শেষ হয়ে যাওয়ার পর কোথায় কী করা উচিত সেগুলো মনে রাখা বেশ কঠিন।

সব মিলিয়ে বেইস বিল্ডিং গেম হিসেবে এটি বেশ মজার। যাঁরা ক্ল্যাশ অব ক্ল্যানসের বদলে অন্য কিছু খেলতে চাচ্ছেন, তাঁদের জন্য গেমটি হতে পারে আদর্শ। গেমটি খেলার জন্য তেমন শক্তিশালী ডিভাইস লাগবে না।

 

ডাউনলোড লিংক

https://urlzs.com/GpTzw [অ্যানড্রয়েড]

https://apps.apple.com/nz/app/warhammer-40-000-lost-crusade/id1532636309 [আইওএস]

 

বয়স

খেলতে পারবে সবাই।