kalerkantho

মঙ্গলবার । ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

অ্যাপ রিভিউ

অ্যাপেই করা যাবে মালিক ভাড়াটিয়ার তথ্য নিবন্ধন

রিয়াদ আরিফিন   

১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে




অ্যাপেই করা যাবে মালিক ভাড়াটিয়ার তথ্য নিবন্ধন

রাজধানীতে বাড়ির মালিক ও ভাড়াটিয়াদের তথ্য নিবন্ধনের জন্য ‘সিটিজেন ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম’ বা নাগরিক তথ্য ব্যবস্থাপনার (সিআইএমএস) মোবাইল অ্যাপ চালু করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

অপরাধ ব্যবস্থাপনার জন্য বিভিন্ন ধরনের তথ্য সংগ্রহের অংশ হিসেবে ঢাকায় বসবাসরত নাগরিকের তথ্য সংগ্রহ, সংরক্ষণ এবং ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে ২০১৬ সাল থেকে শুরু হয় নাগরিক তথ্য সংগ্রহের কার্যক্রম। এ কাজকে সহজ ও গ্রাহকবান্ধব করার লক্ষ্যে অ্যাপটি প্রকাশ করেছে ডিএমপি। অ্যাপটি সফলভাবে ইনস্টল হয়ে গেলে শুরুতে ‘নিবন্ধন’-এ ক্লিক করতে হবে। এরপর একটি সচল মোবাইল ফোন নম্বর ব্যবহার করে অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। প্রথম ধাপে দেওয়া মোবাইল ফোন নম্বরটিতে একটি ওটিপি (ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড) পাঠানো হবে। সেটি যাচাইয়ের পর অ্যাকাউন্ট খোলার প্রথম ধাপ সম্পন্ন হবে। পরের ধাপে একটি পাসওয়ার্ড সেট করে নিতে হবে। এরপর লগইন করে নিজের একটি ছবি যুক্ত করে নিতে হবে। অ্যাপটি বাংলা, ইংরেজি উভয় ভাষায়ই ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

অ্যাপটির হোম পেজে বাড়িওয়ালা, ভাড়াটিয়া, মেস সদস্য ও সাবলেট—এই চার ক্যাটাগরিতে তথ্য প্রদানের অপশন প্রদর্শিত হবে। প্রয়োজন অনুযায়ী ক্যাটাগরি নির্বাচন করে পরের ধাপে যেতে হবে।

এই ধাপে প্রথমে বাড়ির তথ্য যেমন—ফ্ল্যাট বা ফ্লোর, হোল্ডিং নম্বর, রাস্তা, থানা, এলাকা ও পোস্ট কোড দিতে হবে। পরের ধাপে গিয়ে ‘সাধারণ তথ্য’ ফরমে নাম, বাবার নাম, জন্ম তারিখ, ঠিকানা, জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর ইত্যাদি তথ্য প্রদান করতে হবে। তবে ভাড়াটিয়ার ক্ষেত্রে নিজের তথ্য প্রদানের আগেই বাড়ির মালিকের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল ফোন নম্বর দিতে হবে।

বাড়িওয়ালা ক্যাটাগরিতে কর্মচারী ও পরিবারের সদস্যদের তথ্য আলাদাভাবে যোগ করার অপশন পাওয়া যাবে।

কোনো তথ্য প্রদানে ভুল হয়ে থাকলে তা অ্যাকাউন্টে লগ ইন করে সংশোধন করা যাবে।

তথ্য প্রদান সম্পন্ন হলে তা সংশ্লিষ্ট থানায় যাচাই-বাছাই শেষে কেন্দ্রীয় তথ্যভাণ্ডারে যুক্ত হবে। এ ছাড়া প্রদত্ত তথ্যে কোনো অসংগতি থাকলে কিংবা তথ্য অসম্পূর্ণ থাকলে তা গ্রাহককে এসএমএসের মাধ্যমে অবহিত করা হবে। এই পর্যন্ত ৭২ লাখ মানুষ মালিক ও ভাড়াটিয়া তথ্য নিবন্ধন তালিকায় নাম লিখিয়েছে।

 

ডাউনলোড লিংক

https://bit.ly/2MTeKQW

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা