kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মোবাইল রিভিউ

পাওয়ার শেয়ার করা যাবে তারবিহীন

টেলিকম ডেস্ক   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাওয়ার শেয়ার করা যাবে তারবিহীন

বছরের আলোচিত ও প্রতীক্ষিত ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসের নাম বললেই চলে আসবে ‘গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাস’-এর নাম। স্যামসাংসের এযাবৎকালের সবচেয়ে শক্তিশালী ফোনও বলা যেতে পারে এটিকে।

 

ডিসপ্লে

ডিভাইসটির মূল আকর্ষণ হচ্ছে এটির এইচডিআর১০+ ইনফিনিটি ডিসপ্লে। সর্বোচ্চ স্ক্রিন-টু-বডি অনুপাতে এটির পর্দা সংযোজন করা হয়েছে। ডিভাইসটিতে রয়েছে ৬.৮ ইঞ্চির ডাব্লিউকিউএইচডি+ ডাইনামিক অ্যামোলেডের প্রায় ব্যাজেলহীন ডিসপ্লে। এতে উপভোগ করা যাবে ফোরকে বা আল্ট্রাএইচডি ভিডিও।

 

প্রসেসর

এটিতে আছে অত্যাধুনিক ও অধিক শক্তিশালী ৭ ন্যানোমিটারের (এনএম) এক্সিনস ৯৮২৫ প্রসেসর (অক্টাকোর)। ফলে এই ফোনে পাওয়া যাবে উচ্চমানের গেইমিং পারফরম্যান্স।

 

র‌্যাম ও রম

ডিভাইসটিতে ব্যবহার করা হয়েছে অত্যাধুনিক ও দ্রুতগতিতে কর্মসম্পাদনে সক্ষম ১২ গিগাবাইট এলপিডিডিআর৪এক্স র‌্যাম। পাশাপাশি অভ্যন্তরীণ মেমোরি হিসেবে এতে আছে সর্বোচ্চ গতিতে ডাটা আদান-প্রদানে সক্ষম ২৫৬ গিগাবাইট রম (বাংলাদেশ সংস্করণ)।

 

ক্যামেরা

ফোনের পেছনে রয়েছে চারটি ক্যামেরা। এসবের মধ্যে আছে ১৬ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা, ১২ মেগাপিক্সেল ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা, ১২ মেগাপিক্সেল টেলিফটো ক্যামেরা এবং ডেপথভিশন ক্যামেরা। এ ছাড়া সেলফি তোলার জন্য আছে ১০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।

 

এস পেন

ফোনটির অত্যাধুনিক এস পেন ফিচারে উচ্চমানের ব্লুটুথ সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে, যার মাধ্যমে ডিভাইসটি বিভিন্নভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

 

অপারেটিং সিস্টেম

এই ফোনে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকছে অ্যানড্রয়েড ৯ (পাই)। মূল অপারেটিং সিস্টেম সফটওয়্যারটি স্যামসাং ওয়ান ইউজার ইন্টারফেসের (ইউআই) মাধ্যমে নিজস্ব নকশায় সাজানো হয়েছে। ব্যাটারির পাওয়ার খরচও অনেক কমিয়ে আনবে এই স্যামসাং ওয়ান ইউআই।

 

ব্যাটারি

স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৪৩০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার স্মার্ট ব্যাটারি, যা ৪৫ ওয়াটের সুপার ফাস্ট চার্জিং সমর্থন করে। মাত্র এক ঘণ্টায় ফোনটি পুরো চার্জ করা যায়।

 

তারবিহীন পাওয়ার শেয়ার

তারবিহীন বা ওয়্যারলেস পাওয়ার শেয়ার দিয়ে বিপদের সময় পাওয়ার শেয়ার করা যাবে। নিজের ডিভাইসের পাশাপাশি অন্যের ডিভাইসেও পাওয়ার ভাগাভাগি করা যায় এই ফিচারের মাধ্যমে।

 

দাম

দেশের বাজারে ফোনটি কেনা যাবে এক লাখ ৪৪ হাজার ৫০০ টাকায়।

দেশব্যাপী স্যামসাংয়ের সব শোরুম এবং অনুমোদিত মোবাইল আউটলেটগুলোতে পাওয়া যাচ্ছে ডিভাইসটি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা