kalerkantho

শনিবার  । ১৯ অক্টোবর ২০১৯। ৩ কাতির্ক ১৪২৬। ১৯ সফর ১৪৪১                     

অ্যাপে জেনে ওজন কমাই

পরিমাণে কম খাচ্ছে, ব্যায়ামও করছে নিয়মিত। কিন্তু কিছুতেই কমছে না শরীরের ওজন। তবে চাইলেই হাতের মুঠোয় থাকা অ্যাপের মাধ্যমে নির্দিষ্ট ক্যালরির খাবার খেয়ে ওজন কমানো সম্ভব। জানাচ্ছেন তুসিন আহম্মেদ

২৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



অ্যাপে জেনে ওজন কমাই

লুজ ইট

কোন খাবারে কত ক্যালরি, কতটুকু খেতে হবে—ব্যবহারকারীর ওজন, বয়স বুঝে জানাতে পারে অ্যাপটি। ব্যায়ামের সময়সূচিও মনে করিয়ে দেয়। বাতলে দেয় স্বাস্থ্য ভালো রাখার পরিকল্পনাও। অ্যাপটিতে রয়েছে প্রায় ৭০ লাখ খাবারের বিশাল তথ্যভাণ্ডার।

এ ছাড়া ঘুমের তথ্য, হাঁটার পরিমাণ, শরীরে থাকা চর্বির পরিমাণও জানাতে পারে। অ্যাপটির সঙ্গে যেকোনো ফিট ব্যান্ড যুক্ত করে ব্যবহারকারীর কতটুকু ক্যালরি খরচ হয়েছে, সেই তথ্যও জানা যায়। ফিটনাউ ইনকরপোরেশনের তৈরি অ্যাপটি গুগল প্লে থেকে এক কোটি বারেরও বেশি ডাউনলোড হয়েছে। ৩৭ মেগাবাইট আকারের অ্যাপটির রেটিং ৪.৪। অ্যানড্রয়েড ব্যবহারকারীরা http://bit.ly/2RJBOF7 এবং আইওএস ব্যবহারকারীরা https://apple.co/2RJnyMx থেকে বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে।

 

স্পার্ক পিপল

সামনে থাকা খাবারের ছবি তুললেই খাবারের পুষ্টিগুণ ও ক্যালরি সম্পর্কে জানাতে পারে ‘স্পার্ক পিপল’। এ জন্য প্রায় ৩০ লাখেরও বেশি খাবারের তথ্য রয়েছে অ্যাপটিতে। এ ছাড়া যেকোনো খাবারের প্যাকেটে থাকা বারকোড স্ক্যান করে সেই খাবারে কত ক্যালরি রয়েছে, তাও জানাতে পারে। অ্যাপটি ইনস্টল করলেই ব্যায়ামের নানা কৌশল ও পদ্ধতি জানা যাবে। ছবির মাধ্যমে প্রকাশ করায় কারো সাহায্য ছাড়াই ঘরে বসে ব্যায়াম করা যাবে। অ্যাপে দেওয়া রুটিন অনুযায়ী ব্যবহারকারীরা খাবার খেলে পাওয়া যাবে পয়েন্ট উপহার। ৪.৫ রেটিং পাওয়া অ্যাপটি গুগল প্লে থেকে ১০ লাখ বারেরও বেশি ডাউনলোড হয়েছে। অ্যানড্রয়েড ব্যবহারকারীরা http://bit.ly/2Hb3pLn এবং আইওএস ব্যবহারকারীরা https://apple.co/2H9hnx7 থেকে বিনা মূল্যে অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবে।

 

ক্যালরি কাউন্টার-মাইফিটনেসপাল

অ্যাপটি প্রায় পাঁচ লাখ ধরনের খাবারের খুঁটিনাটি তথ্য বিশ্লেষণ করে খাবারের গুণাগুণ জানাতে পারে। ব্যবহারকারীরা কতটুকু ওজন কমাতে বা বাড়াতে চায়, তা নির্ধারণ করে দিলেই সঠিক পরিমাণে ক্যালরিযুক্ত খাবার নির্বাচন করার পাশাপাশি বিভিন্ন নির্দেশনা দিয়ে থাকে অ্যাপটি। ফেইসবুকের মাধ্যমেও লগইনের সুবিধা রয়েছে এতে। ৪.৬ রেটিং পাওয়া অ্যাপটি গুগল প্লে থেকে পাঁচ কোটিরও বেশি বার ডাউনলোড হয়েছে। http://bit.ly/2FpMUcD থেকে অ্যানড্রয়েড ও https://apple.co/2D8HFLZ থেকে আইওএস ব্যবহারকারীরা বিনা মূল্যে ডাউনলোড করতে পারবে।

 

ফিটবিট

স্মার্ট ফিট ব্যান্ড কিংবা পরিধেয় ডিভাইস থেকে ব্যবহারকারীদের হাঁটা, ক্যালরি খরচ, ব্যায়াম ইত্যাদির তথ্য সংগ্রহ করতে পারে ফিটবিট। অ্যাপটিতে ব্যবহারকারীরা তাদের স্বাস্থ্যের অবস্থা প্রতিদিনের পাশাপাশি সপ্তাহিক বা মাস হিসেবেও জানতে পারবে। ব্যবহারকারীর ঘুমের পরিমাণও দিন ও সময় অনুযায়ী জানা যাবে অ্যাপটির মাধ্যমে। রয়েছে কমিউনিটি সাপোর্ট সুবিধা। ফলে স্বাস্থ্য সচেতন ব্যক্তিরা তাদের নানা পরামর্শ একে অন্যের সঙ্গে বিনিময় করার পাশাপাশি যোগাযোগও করতে পারে। অ্যাপটি গুগল প্লে থেকে এক কোটি বারেরও বেশি ডাউনলোড হয়েছে। http://bit.ly/2SQodZL থেকে অ্যানড্রয়েড এবং https://apple.co/2AHV5wI থেকে আইওএস ব্যবহারকারীরা বিনা মূল্যে ডাউনলোড করতে পারবে।

 

ওয়েট ওয়াচিং

অ্যাপটিতে পরিমাণমতো ও স্বাস্থ্যসম্মত বিভিন্ন খাবারের রেসিপি দেওয়া রয়েছে। বিশেষ করে ওজন কমাবে, এমন খাবারের রেসিপি দেওয়া আছে। প্যাকেটজাত খাবারের কিউআর (কুইক রেসপন্স) কোড স্ক্যান করার সুবিধা। স্ক্যান করলে প্যাকেটে থাকা খাবারের পুষ্টিগুণ, ক্যালরি ইত্যাদি সম্পর্কে তথ্য পাওয়া যাবে। গুগল প্লে থেকে পাঁচ লাখেরও বেশি ডাউনলোড হয়েছে। http://bit.ly/2RJHmzr থেকে অ্যানড্রয়েড এবং https://apple.co/2SQNBPh থেকে আইওএস ব্যবহারকারীরা ডাউনলোড করতে পারবে।

 

ফ্যাট বার্না পকেট ওয়ার্ক আউট

ব্যবহারকারী ওজন ও উচ্চতা অনুযায়ী কোন ধরনের ব্যায়াম করা উচিত তা জানা যাবে অ্যাপটিতে। পাশাপাশি এটি ব্যবহার করে বিভিন্ন তরল পানীয়, নিরামিষ আহার পরিকল্পনা, স্বাস্থ্যসম্মত খাবার গ্রহণের মাধ্যমে অতিরিক্ত ওজন কমানোর কার্যকর তথ্য পাওয়া যাবে। এ ছাড়া অ্যাপটিতে বিভাগ অনুযায়ী বিভিন্ন খাবার সম্পর্কে জানা যাবে।

৪.৩ রেটিংপ্রাপ্ত অ্যাপটি গুগল প্লে থেকে এক লাখের বেশি ডাউনলোড হয়েছে। এই ঠিকানা (http://bit.ly/2FrSzOz) থেকে বিনা মূল্যে ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যাবে। আইওএস ব্যবহারকারীরা এই ঠিকানা (https://apple.co/2RpK1z0) থেকে ডাউনলোড করতে পারবে।

 

মেল রিমাইন্ডার

ব্যস্ততার কারণে অনেক সময় খাওয়াদাওয়ার ঠিক থাকে না। অসময়ে খেতে হয় দিনের খাবার। তবে প্রতিদিনই এমন চলতে থাকলে তা স্বাস্থ্যের ওপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে। নিয়ম মেনে ও প্রতিদিন নির্দিষ্ট পরিমাণ না খেলে অসুস্থ হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়। এ সমস্যার সমাধান মিলবে ফোনে। খাওয়ার সময় খেতে ভুলে গেলে ‘মেল রিমাইন্ডার’ অ্যাপ তা মনে করিয়ে দেবে।

অ্যাপটি ব্যবহারকারীর উচ্চতা, ওজন ইত্যাদি তথ্য নিয়ে সে অনুযায়ী কী ধরনের খাবার খাওয়া উচিত সে সম্পর্কে জানাবে। এতে বিকল্প খাবার সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যাবে। বিভিন্ন শর্করা, আমিষ, ফ্যাট, শাকসবজি, দুগ্ধজাতীয় খাবার, ফলমূল, ডালজাতীয় খাবার ইত্যাদি খাবারের বিকল্প খাদ্যের চার্ট দেওয়া রয়েছে।

৪.৫ রেটিংপ্রাপ্ত অ্যাপটি গুগল প্লে থেকে পাঁচ লাখের বেশি ডাউনলোড হয়েছে। এই ঠিকানা (http://bit.ly/ 2H8EwzT) থেকে ডাউনলোড করা যাবে। আইফোন ব্যবহারকারীরা এই ঠিকানা (https:// apple.co/ 2FpajLl) থেকে ডাউনলোড করতে পারবে।

 

ডায়েট পয়েন্ট

পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণের জন্য ১৩০টিরও বেশি পরিকল্পনা রয়েছে অ্যাপটিতে। ৫০০টিরও বেশি পরামর্শ রয়েছে, যা ব্যবহারকারী স্বাস্থ্য সচেতনতার পরিকল্পাকে সফল করার পথ দেখাবে।

এ ছাড়া ব্যবহারকারীর ফর্দটিও তৈরি করে দেবে অ্যাপটি। বিনা মূল্য ব্যবহার করা গেলেও অ্যাপটির কিছু প্রো ফিচার আছে। সেগুলোর জন্য অর্থ ব্যয় করতে হবে।

৪.৩ রেটিংপ্রাপ্ত অ্যাপটি গুগল প্লে থেকে ১০ লাখের বেশি ডাউনলোড হয়েছে। http://bit.ly/2ssp07P থেকে বিনা মূল্যে ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যাবে। আইফোন ব্যবহারকারীরা https://apple.co/2CigM6O থেকে ডাউনলোড করতে পারবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা