kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১১ সফর ১৪৪২

নভোচারীদের জন্য টয়লেট বানান

৯ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নভোচারীদের জন্য টয়লেট বানান

২০২৪ সালে চাঁদে ফের মানুষ পাঠাতে চায় নাসা; কিন্তু নভোচারীদের প্রাতঃক্রিয়া নিয়ে ঝামেলায় আছে। এ জন্য একটি প্রতিযোগিতার মাধ্যমে চাঁদে ব্যবহারোপযোগী টয়লেটের ডিজাইন আহ্বান করেছে তারা। বিস্তারিত জানাচ্ছেন মো. ফয়সাল ইসলাম

 

মহাকাশে ভরহীন হয়ে সব কিছুই ভেসে বেড়ায়। চাঁদে কিছুটা অভিকর্ষ থাকলেও তা পৃথিবীর তুলনায় বেশ কম। সেখানে এক লাফে অনেক দূর যাওয়া গেলেও আসলে সব কাজ পৃথিবীর মতো সহজসাধ্য নয়। এই যেমন প্রাতঃক্রিয়ার কথাই ধরুন না কেন! একবার কি ভেবে দেখেছেন অল্প অভিকর্ষের পরিবেশে কাজটি সম্পন্ন করা কতটা কষ্টসাধ্য বা কঠিন হতে পারে? কাজটি যে টয়লেট ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে হবে সেটির ডিজাইনটিই বা কেমন?

এসব প্রশ্নের উত্তর খোঁজার জন্য নাসা আয়োজন করেছে টয়লেট তৈরির একটি প্রতিযোগিতার। আর চাঁদের পরিবেশ অনুযায়ী টয়লেট বানাতে পারলে বিজয়ীরা পাবেন সাড়ে ২৯ লাখ টাকার পুরস্কার।

এখানে বলে রাখা দরকার—মহাকাশে অর্থাৎ মাইক্রো গ্র্যাভিটিতে ব্যবহারের জন্য টয়লেটের ব্যবস্থা কিন্তু রয়েছেই স্পেস স্টেশনগুলোতে। এখন নাসা চাইছে এমন একটি টয়লেট বানাতে, যা মহাকাশে ও চাঁদে—এ দুই জায়গায়ই ব্যবহার করা যাবে। এ জন্য  বেশ কয়েকটি শর্তও জুড়ে দিয়েছে তারা। এই চন্দ্রাভিযানে নারী ও পুরুষ নভোচারী থাকবেন। তাই এই টয়লেট নারী-পুরুষ উভয়েরই ব্যবহারোপযোগী হতে হবে। এতে পানি ধারণের ক্ষমতা থাকতে হবে। টয়লেটটি হতে হবে একই সঙ্গে দুর্গন্ধ ও সংক্রামকমুক্ত। শুধু তা-ই নয়, বাড়তি হিসেবে আরো একটি ব্যবস্থা থাকলে আরো ভালো হয় আর সেটি হলো কেউ বমি করতে চাইলে অন্য কাউকে এসে যেন তার মাথা ধরে রাখতে না হয়।

টয়লেটটি দুজন নভোচারীর ১৪ দিন ব্যবহার করার মতো ব্যবস্থাপনা থাকতে হবে। এটি যেন খুব সহজেই পরিষ্কার করা যায় এবং একজন ব্যবহার করার সর্বোচ্চ পাঁচ মিনিটের ভেতরে যেন তা আরেকজনের ব্যবহারের উপযোগী হয়ে ওঠে। এতে সর্বোচ্চ ৭০ ওয়াট বিদ্যুৎ ব্যবহার করা যাবে। টয়লেটটিতে ব্যবহার করা মোটর বা ফ্যান থেকে যেন কোনো শব্দদূষণ না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। টয়লেটটির সর্বোচ্চ ওজন হতে হবে পৃথিবীর ৩৩ পাউন্ড আর আয়তন রাখতে হবে ০.১২ ঘনমিটারের মধ্যে।

টয়লেট চ্যালেঞ্জ প্রতিযোগিতায় সেরা তিনজনকে পুরস্কৃত করা হবে। তবে আঠারো বছরের নিচের কাউকে জুনিয়র ক্যাটাগরিতে ধরা হবে। প্রতিযোগিতাটি সবার জন্য উন্মুক্ত। নিচের লিংকে গিয়ে আপনিও নিজের সৃজনশীলতাকে কাজে লাগাতে পারেন। https://www.herox.com/LunarLoo?from=home

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা