kalerkantho

মঙ্গলবার  । ২০ শ্রাবণ ১৪২৭। ৪ আগস্ট  ২০২০। ১৩ জিলহজ ১৪৪১

গেম

হেলো ৩ এলো পিসিতে

মোহাম্মদ তাহমিদ   

১২ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



হেলো ৩ এলো পিসিতে

এক্সবক্স ৩৬০ কাঁপানো গেম ‘হেলো ৩’ দীর্ঘ ১৩ বছর পর পিসিতে আসছে ১৪ জুলাই। মূল হেলো ট্রিলোজির শেষ গেম এটি, মাস্টার চিফের গ্যালাক্সি বাঁচানো এবং হেলো রিংয়ে পাওয়া প্যারাসাইটের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ক্লাইম্যাক্সও এ গেমে। ১৫ বছর আগে যখন শেষবারের মতো মাস্টার চিফ পিসিতে হানা দিয়েছিলেন, সে সময় গেমাররা দেখতে পান ‘হেলো ২’-এর শেষে এলিয়েন কভেনেন্ট এবং মাস্টার চিফ তাদের লড়াই হেলো রিং থেকে পৃথিবীতে নিয়ে এসেছেন। এলিয়েন কভেনেন্ট ভেঙে মানুষের পক্ষে লড়াই শুরু করেছে একটি দল, এলিয়েনদের মধ্যে চলছে গৃহযুদ্ধ। এত দিনে পিসি গেমাররা সেই কাহিনির শেষটা দেখতে পারবেন।

মাস্টার চিফের পৃথিবীর বুকে আছড়ে পড়ার মাধ্যমে কাহিনির শুরু। মাস্টার চিফের সঙ্গে টিকে থাকা বাকি সৈন্য এবং মিত্র এলিয়েন বাহিনীর প্রধান আরবিটারের দেখা হয়, তারা কাছে থাকা একটি ক্যাম্প শক্রদের হাত থেকে উদ্ধারের জন্য এগিয়ে যায়। ধীরে ধীরে পৃথিবীতে আগমন ঘটে কভেনেন্টদের পুরো সেনাবাহিনীর, হাজির হয় প্যারাসাইট ফ্লাডের গ্রেভমাইন্ড এবং তার সৈন্যরাও। মাস্টার চিফ এবং আরবিটার তাদের সবাইকে পরাস্ত করার জন্য লড়াই করতে থাকে। বাকি কাহিনি না হয় গেম খেলে নিজে জানার জন্যই তোলা থাক।

গেমপ্লে বলা যায় হেলো সিরিজের সবচেয়ে ভালো সংস্করণ। বরাবরের মতো মূল অস্ত্র থাকবে দুটি, আর বাড়তি হিসেবে একটি টারেট বা শক্তিশালী গ্রেনেড লঞ্চারও নেওয়া যাবে। অর্থাৎ মোট তিনটি অস্ত্র বহন করার উপায় আছে গেমটিতে। বন্ধুদের সঙ্গে কো-অপ খেলার সময় তারা আরবিটার ও তার সৈন্যদের নিয়ে খেলবে, কিন্তু একা খেললেও গেমার মিত্র হিসেবে আরবিটারকে ‘এআই কমপ্যানিয়ন’ বা ‘কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সঙ্গী’ হিসেবেই পাবেন। নতুন অনেকগুলো শক্র গেমে যুক্ত করা হয়েছে। এখন এসব ফিচার নতুন মনে না হলেও হেলো ৩ থেকেই কিন্তু অনেক ফিচার পরের অন্যান্য শ্যুটার গেমে যুক্ত হয়েছে।

মিশন সবগুলো শুরু থেকে খেলা গেলেও উচিত হবে শুরুতে মিশনগুলো এক ধারাবাহিকতায় শেষ করা, না হলে কাহিনি বুঝতে কষ্ট হবে। বিশেষ করে যারা হেলো : রিচ, কম্ব্যাট ইভলবড এবং ‘হেলো ২’-এর কাহিনি জেনে এসেছেন তাঁদের জন্য ক্যাম্পেইনের শুরুতে টানা খেলা একরকম বাধ্যতামূলক।

গেমটির গ্রাফিকস বর্তমানের তুলনায় খুব আহামরি নয়। ১৩ বছর পুরনো গেম থেকে এর চেয়ে বেশি কিছু আশা করাও যায় না। পুরনো ভক্তদের সামনে সম্পূর্ণ নতুন করে ডিজাইন করা গেম হাজির করলে কি হয় তা ‘মাফিয়া ২’ রিমেক বা সাম্প্রতিক সময়ে ক্রাইসিস রিমেকের ক্ষেত্রে দেখেছি। সে কথা চিন্তা করেই কি না নির্মাতা ৩৪৩ ইন্ডাস্ট্রিজ চেষ্টা করেছে পিসি সংস্করণেও মূল ‘হেলো ৩’-এর কাছাকাছি গ্রাফিকস ধরে রাখতে। তবে গ্রাফিকস যেমনই হোক, ‘হেলো ৩’-এর মতো চমৎকার গেম খুব কমই আছে।

সিংগেল প্লেয়ারের পাশাপাশি হেলো সিরিজ মাল্টিপ্লেয়ারের জন্য বিখ্যাত। সমস্যা একটাই, নতুন ব্যাটল রয়্যাল আর মোবাইল গেমের যুগে হেলোর বেশ ক্লাসিক ঘরানার মাল্টিপ্লেয়ার ম্যাচ খেলার গেমার খুবই কম। বাংলাদেশে বসে ম্যাচ খেলার জন্য গেমার পাওয়া বেশ কঠিন। তবে কয়েক বন্ধু মিলে কো-অপ ক্যাম্পেইন খেলে মজা পাওয়া যেতে পারে। চাইলে চার থেকে আটজন মিলে ডেথম্যাচ বা ‘কিং অব দ্য হিল’ ঘরানার ম্যাচও খেলা যেতে পারে।

 

খেলতে যা যা লাগবে

অন্তত উইন্ডোজ ১০ ৬৪ বিট

ইন্টেল কোর আই ৫ বা এএমডি এফএক্স কোয়াডকোর প্রসেসর

৮ গিগাবাইট  র‌্যাম

এনভিডিয়া জিটিএক্স ৬৬০ টিআই বা এএমডি রেডিওন ৭৮৫০ গ্রাফিকস কার্ড

 

বয়স ১৮+

মন্তব্য