kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৯ নভেম্বর ২০২২ । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সুপার-অ্যাপ তৈরি করতে চান ইলন মাস্ক

টেক প্রতিদিন ডেস্ক   

৭ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



ইলন মাস্ক জানিয়েছিলেন তাঁর টুইটার কেনার সিদ্ধান্ত ‘এক্স অ্যাপ’ তৈরির প্রক্রিয়া আরো দ্রুত এগিয়ে নিতে সহায়ক হবে। টুইটে তিনি এই অ্যাপকে ‘দি এভরিথিং অ্যাপ’ বলেও আখ্যায়িত করেন। এখন স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন আসতে পারে, এক্স অ্যাপ কী?

‘এভরিথিং অ্যাপ’কে ‘সুপার-অ্যাপ’ বললে অনেকের কাছেই বিষয়টি পরিষ্কার হবে। এশিয়ার দেশগুলোতে সুপার-অ্যাপের জনপ্রিয়তা বেশি।

বিজ্ঞাপন

এশিয়ার অনেক দেশেই এখন ইন্টারনেট ব্যবহারের একমাত্র ডিভাইস মোবাইল ফোন। তাই এক অ্যাপ থেকেই সব রকমের সেবা নিতে স্বস্তিবোধ করে ব্যবহারকারীরা।

ভারতের ‘টাটা নিউ’, চীনের ‘উইচ্যাট’ এবং মালয়েশিয়ার ‘গ্র্যাব’ সুপার-অ্যাপ হিসেবে পরিচিত। সুপার-অ্যাপের বৈশিষ্ট্য হলো, এতে মেসেজিং, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং, পেমেন্ট ও ই-কমার্স প্ল্যাটফরম থেকে কেনাকাটা করার সুযোগ থাকে। গত জুনে টুইটারের সঙ্গে এক মিটিং চলাকালীন মাস্ক বলেছিলেন, এশিয়ার বাইরে উইচ্যাটের মতো কোনো সুপার-অ্যাপ নেই। টুইটারে ডিজিটাল পেমেন্টের সুবিধাসহ আরো কিছু সেবা যোগ করে এটির ব্যবহারকারী ও আয় দুটিই বাড়াতে চান তিনি।  

 সূত্র : গ্যাজেটস নাউ



সাতদিনের সেরা