kalerkantho

সোমবার । ২৮ নভেম্বর ২০২২ । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ট্রফি নয়, চোখ প্রক্রিয়ায়

৬ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ট্রফি নয়, চোখ প্রক্রিয়ায়

বাংলা ওয়াশ সিরিজ : ট্রফি নিয়ে তিন অধিনায়কের এই ছবিটা কোথায় জানেন? ক্রাইস্টচার্চের বিখ্যাত ট্রামে। এর আগে ভিক্টোরিয়া স্কয়ারেও আরেক দফা ফটোসেশনে কেন উইলিয়ামসন ও বাবর আজমের সঙ্গী হয়েছিলেন নুরুল হাসান। ছবি : এনজেডসি টুইটার

ক্রীড়া প্রতিবেদক : বয়ে চলা ছোট্ট নদী অ্যাভনের পারে ছবির মতো সাজানো-গোছানো এক সবুজ শ্যামলিমা। ভিক্টোরিয়া স্কয়ার নামের সেই পার্ক টিম হোটেল থেকে খুব দূরেও নয়। তিন দলের অধিনায়ক তাই হেঁটেই সেখানে গেলেন। আগামীকাল থেকে শুরু হতে যাওয়া ত্রিদেশীয় ‘বাংলা ওয়াশ’ সিরিজের ট্রফি নিয়ে ফটোসেশনও সেরে নিলেন।

বিজ্ঞাপন

সেখানেই শেষ হলো না। আরেক দফা ফটোসেশন হল ক্রাইস্টচার্চের বিখ্যাত ট্রামের ভেতরেও। নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন আর পাকিস্তানের বাবর আজমের সঙ্গে ট্রফি হাতে যাঁর পোজ দেওয়ার কথা ছিল, সেই সাকিব আল হাসান আজ ক্রাইস্টচার্চে দলের সঙ্গে যোগ দিতে দিতে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা নেমে যাবে। তাঁর অনুপস্থিতিতে সহ-অধিনায়ক নুরুল হাসানই অন্য দুই অধিনায়কের সঙ্গে ফ্রেমবন্দি হলেন।

উইলিয়ামসন ও বাবর নন, সিরিজটির লোগো বরং এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটারের কাছেই বেশি আপন লাগার কথা। সেটি আসরের টাইটেল স্পন্সর বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠান এএনএইচ এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড হয়েছে বলে নয়, তাদের পণ্যের নাম বাংলা অক্ষরে লেখার কারণেই। এই প্রতিষ্ঠানের ডিটারজেন্ট ‘বাংলা ওয়াশ’-এর নামে সিরিজের নামকরণ করা হলেও এতে বাংলাদেশ দলের জন্য অপেক্ষা করে আছে বিশাল সব চড়াই-উতরাইও। নিজেদের কন্ডিশনে গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ড তো বটেই, পাকিস্তানও কম দুর্বোধ্য প্রতিপক্ষ নয় নুরুলদের জন্য। বিশেষ করে নিজেরা যখন টি-টোয়েন্টি সংস্করণে পায়ের নিচে মাটি খুঁজে পেতে লড়ছে, তখন এই দুই দল আরো জটিল ধাঁধা হয়েই সামনে আসছে। সবার আগে বাংলাদেশ মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তানের। আসরের উদ্বোধনী ম্যাচ কাল শুরু হবে স্থানীয় সময় বিকেল ৩টায় (বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টায়)।

এই ম্যাচ সামনে রেখে দল ফল নিয়ে ভাবছে না বলেই জানালেন নুরুল। বিসিবির পাঠানো ভিডিও বার্তায় তাঁকে একটি নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া অনুসরণ করার কথাই বলতে শোনা গেল বারবার। দলীয় একতায়ও ভীষণ জোর দিলেন তিনি, ‘আমরা ফল নিয়ে ভাবছি না। আমাদের ভাবনা প্রক্রিয়া নিয়ে। ফল তো আর আমাদের হাতে থাকবে না। সবাই যে যার জায়গা থেকে কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করছে। একজন আরেকজনকে সহায়তা করছে। দলের একতার জন্য এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এই কাজগুলো করার চেষ্টা করছি। ’ টিম ম্যানেজমেন্ট থেকেও নাকি ফলাফল নিয়ে ভাবতে বারণ করা হয়েছে, ‘আমাদের দলের পরিবেশ খুবই ভালো। সবচেয়ে বড় ব্যাপারটি হলো, আমাদের সবাইকে একটি বার্তাই দেওয়া হচ্ছে (দল থেকে)। আমরা যেন ফলাফল নিয়ে চিন্তা না করি। আমরা একটি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। ফল কী হবে, সেটি তো আর আগে থেকে অনুমান করার কোনো সুযোগ নেই। ’ পাকিস্তানের বিপক্ষে ভালো কিছু করার লক্ষ্যেও সেই প্রক্রিয়াতেই ভরসা নুরুলের, ‘পাকিস্তান নিঃসন্দেহে অনেক ভালো দল। তবু তাদের বিপক্ষে ভালো কিছু হওয়ার সম্ভাবনা আছে। যদি আমরা তিন দিক (ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং) ভালো করতে পারি। ’ নিউজিল্যান্ড থেকেই বিশ্বকাপে ভালো কিছু করার উদ্দীপনাও নিয়ে যেতে চান নুরুল, ‘এ রকম কন্ডিশনে কয়েকটি ম্যাচ খেলার সুযোগ বিশ্বকাপে আমাদের উদ্দীপ্ত করবে। এখান থেকে ইতিবাচক দিকগুলো নিয়ে যেতে পারলে বিশ্বকাপেও ভালো ফল আশা করতে পারি। ’



সাতদিনের সেরা