kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ফ্র্যাঞ্চাইজি হকির কোচরাও তারকা

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্রীড়া প্রতিবেদক : হকিতে নতুন যুগের সূচনা করতে আগামী মাসেই মাঠে গড়াচ্ছে ফ্র্যাঞ্চাইজি হকি লিগ ‘হকি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি’। অংশ নিতে যাওয়া ছয়টি দলেরই দায়িত্বে থাকবেন বিদেশি কোচ। যে ছয়জন কোচকে এরই মধ্যে চূড়ান্ত করা হয়েছে, তাঁদের প্রত্যেকের প্রফাইলই এতটা সমৃদ্ধ যে তাঁদের তারকাদ্যুতিতেও আলোকিত হবে এ আসর।

দক্ষিণ কোরিয়ার ইয়ু সিয়াং-জিন যেমন, তিনি জাপান ছেলে ও মেয়েদের জাতীয় দলে কাজ করেছেন কয়েক দফায়।

বিজ্ঞাপন

নিজে বিশ্বকাপ খেলেছেন, কোরিয়ার হয়ে জিতেছেন এশিয়ান গেমস। দক্ষিণ কোরিয়ারই আরেকজন, সেওংতায়ে সং, যিনি কোরিয়া জাতীয় দলেরই সহকারী কোচ ছিলেন ২০১৮ সাল পর্যন্ত। তিনটি অলিম্পিক খেলেছেন, এশিয়ান গেমস জিতেছেন ২০০২ সালে। তাঁর মতোই আন্তর্জাতিক হকি ফেডারেশন স্বীকৃত হাই পারফরম্যান্স কোচ পাকিস্তানের ওয়াসিম আহমেদ। পাকিস্তান ঘরোয়া লিগে কোচিং করিয়েছেন, এই মুহূর্তে আছেন অস্ট্রেলিয়ায়। ওয়াসিম নিজে পাকিস্তানের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডধারী।

ছয়জনের তালিকায় তিনজন কোরিয়ার কোচ, একজন পাকিস্তানের ও দুজন মালয়েশিয়ান। কোরিয়ান ইয়াং কিউও জাতীয় দলের দায়িত্বে ছিলেন। মালয়েশিয়ার শফিউল আজলি কাতার ও মিয়ানমার জাতীয় দলের কোচ ছিলেন। খেলোয়াড় হিসেবে তিনিও এশিয়ান গেমস জেতা। অন্যজন ধর্মরাজ আব্দুল্লাহ মালয়েশিয়া জাতীয় দলেই কাজ করেছেন। বাংলাদেশ জাতীয় দল সব সময়ই ভালো বিদেশি কোচ পেতে চেয়েছে। এখন শুধু জাতীয় দল না, ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলতে যাওয়া শীর্ষ সারির খেলোয়াড় সবাই এই হাই প্রফাইল কোচদের পাচ্ছেন তাঁদের নিজেদের দল।

কোন কোচ কোন দল পাচ্ছেন তা নির্ধারণ হবে আজ। খেলোয়াড়দের আগে কোচদের এই ড্রাফটটা হয়ে যাচ্ছে। ছয়টি ফ্র্যাঞ্চাইজি মোনার্ক মার্ট, ওয়ালটন, একমি, রূপায়ণ গ্রুপ, সাইফ পাওয়াটটেক ও মেট্রো এক্সপ্রেস লটারির মাধ্যমে বেছে নেবে তাদের কোচকে। স্থানীয় সহকারী কোচও নির্ধারণ হয়ে যাবে আজ। ফেডারেশন এরই মধ্যে তাঁদের ১০ জনের একটি তালিকা তৈরি করেছে।



সাতদিনের সেরা